শাহরুখ খানের পর এবার সিনেমা থেকে বিরতি নিলেন আমির খান

সিনেমা থেকে বিরতি

২০১৮ সালের ক্রিসমাসে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘জিরো’ সিনেমার ব্যর্থতার পর সিনেমা থেকে সাময়িক বিরতি নিয়েছিলেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। ছেড়ে দিয়েছিলেন হাতে থাকা ‘সাড়ে জাহা সে আচ্চা’ নামের একটি সিনেমা। এরপর চার বছর বিরতি দিয়ে অবশেষে আগামী বছর বড় পর্দায় ফিরছেন এই তারকা। কিছুদিন আগে মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘পাঠান’ সিনেমার টিজার দিয়ে বড় পর্দায় রাজকীয় প্রত্যাবর্তনের ইঙ্গিতও দিয়েছেন তিনি। জানা গেছে শাহরুখ খানের পর এবার সিনেমা থেকে বিরতি নিচ্ছেন আমির খান।

আমির খান অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ‘থাগ অফ হিন্দুস্থান’ এবং ‘লাল সিং চাড্ডা’ বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়েছে। বিশেষ করে চলতি বছরে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘লাল সিং চাড্ডা’ বলিউডের অন্যতম বড় ডিজাস্টার সিনেমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। তবে সিনেমার ব্যর্থতা নয়, পরিবারকে আরো বেশী সময় দিতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আমির খান। সম্প্রতি দিল্লীতে একটি অনুষ্ঠানে নিজের সিনেমা প্রসঙ্গে আলাপকালে তার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে আমির খান বলেন, ‘আমি যখন একজন অভিনেতা হিসাবে একটি সিনেমায় কাজ করি, তখন আমি এতটাই হারিয়ে যাই যে আমার জীবনে আর কিছুই আমাকে প্রভাবিত করে না। লাল সিং চাড্ডা সিনেমার পর চ্যাম্পিয়নস নামে আমার একটা সিনেমা করার কথা ছিল। দুর্দান্ত গল্প এবং চিত্রনাট্যে এটি একটি খুব হৃদয়গ্রাহী এবং মনোরম সিনেমা। কিন্তু আমি অনুভব করছি যে আমার বিরতি নেয়া দরকার। আমি আমার পরিবারের সাথে, আমার মায়ের সাথে, আমার বাচ্চাদের সাথে সময় কাটাতে চাই।‘

আমির খান আরও বলেন, ‘৩৫ বছর ধরে কাজ করছি এবং আমি এককভাবে আমার কাজে মনোনিবেশ করেছি। আমি অনুভব করি যে এটি আমার কাছের লোকেদের জন্য ন্যায়সঙ্গত নয়। এই সময় আমি অনুভব করি যে তাদের সাথে থাকার জন্য আমাকে কিছুটা সময় নিতে হবে এবং বাস্তবে জীবনকে অন্যভাবে অনুভব করতে হবে। আমি আগামী বছরের জন্য অপেক্ষা করছি। আগামী দেড় বছর  অভিনেতা হিসেবে আমি কোন কাজ করছি না।‘

এদিকে ‘চ্যাম্পিয়নস’ সিনেমা সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে এই অভিনেতা জানিয়েছেন যে সিনেমাটি পরিকল্পিত সময়সূচী অনুযায়ী এগিয়ে যাবে। কারণ প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের পরবর্তে তিনি এর প্রযোজক হিসাবে থাকবেন। তিনি বলেন, ‘আমি একজন প্রযোজক হিসেবে কাজ করব, তাই আমি চ্যাম্পিয়নস প্রযোজনায় থাকছি। যে চরিত্রে আমার অভিনয়ের কথা ছিলো, সে চরিত্রের জন্য আমি এখন অন্য অভিনেতাদের সাথে যোগাযোগ করব। আমি জীবনের সেই পর্যায়ে আছি যেখানে আমি এই সময়ে আমার সম্পর্কগুলি উপভোগ করতে চাই।‘

স্প্যানিশ সিনেমা ‘ক্যাম্পেওনস’ এর হিন্দি রিমেকটি পাঞ্জাবের প্রেক্ষাপটে নির্মিত হতে যাচ্ছে। সিনেমাটিতে একজন জেদী এবং গরম মাথার অপ্রাপ্তবয়স্ক লিগ বাস্কেটবল কোচের গল্প দেখা যাবে। গল্পে দেখা যাবে সেই কোচকে কমিউনিটি সার্ভিসের জন্য সাজা দেওয়া হয়েছে এবং একটি বিশেষ অলিম্পিক দলকে প্রশিক্ষণ দিতে বাধ্য করা হয়েছে। এই দলের খেলোয়াড়দের শেখার ব্যাপারে অনেক অক্ষমতা রয়েছে। আরএস প্রসন্ন ভারতের সংবেদনশীলতা অনুসারে চিত্রনাট্যটি রূপান্তরিত করেছেন এবং উন্নয়ন প্রতিবন্ধী খেলোয়াড়দের গল্প অনুসারে এটি লিখেছেন।

উল্লেখিত সিনেমাটি স্প্যানিশ ‘ক্যাম্পেওনস’ এর অফিসিয়াল রিমেক হতে যাচ্ছে। ক্যাম্পেওনস (মানে চ্যাম্পিয়নস) বাস্কেটবলের পটভূমিতে তৈরি একটি স্পোর্টস কমেডি-ড্রামা। সিনেমাটিতে অন্যান্য বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন জাভিয়ের গুতেরেস, জোসে ডি লুনা, গ্লোরিয়া রামোস, রবার্তো চিনচিলা, অ্যাথেনিয়া মাতা, লুইসা গাভাসা, মারিয়ানো লোরেন্তে, ড্যানিয়েল ফ্রেয়ার এবং জুয়ান মার্গালো। জাভিয়ের ফেসার পরিচালিত এই সিনেমাটি তার মুক্তির বছরের সবচেয়ে বড় জাতীয় বক্স অফিস হিট হিসেবে আবির্ভুত হয়েছিলো।

বলিউড ভিত্তিক একটি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, নির্মাতারা প্রকল্পটির প্রাক-প্রোডাকশন শুরু করেছেন। এছাড়া সিনেমাটির দৃশ্যধারনের জন্য ছয় মাসের একটি সময়সূচী চূড়ান্ত করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। সনি পিকচার্স ইন্ডিয়া দ্বারা প্রযোজিত সিনেমাটির নির্মাতারা বর্তমানে লোকেশন, শিপ্লী-কুশলী এবং এর অন্যান্য দিক চূড়ান্ত করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী জানুয়ারি থেকে শুরু হবে সিনেমাটির দৃশ্যধারনের কাজ।

আরো পড়ুনঃ
এবার স্প্যানিশ সিনেমা ‘ক্যাম্পেওনস’ এর হিন্দি রিমেকে আমির খান
‘মহাভারত’ নির্মান করছেন ফিরোজ নাদিওয়ালাঃ বাজেট ৭০০ কোটি রুপি

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত