টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে প্রশংসিত সিনেমা ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং’

টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে আগামী সপ্তাহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে টম ক্রুজের বহুল আলোচিত সিনেমা ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং – পার্ট ওয়ান’। হলিউডের ইতিহাসের অন্যতম জনপ্রিয় এই ফ্র্যাঞ্চাইজির সপ্তম পর্ব নিয়ে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন ভক্তরা। অবশ্য মুক্তির আগে সিনেমাটি নিয়ে দর্শকদের উত্তেজন আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। কারণ প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া অনুযায়ী, টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে প্রশংসিত সিনেমা হতে যাচ্ছে ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং’। ফ্র্যাঞ্চাইজির সেরা না হলেও, সপ্তম পর্বটি অন্যতম সেরা বলে দাবী করছেন সমালোচকরা। মুক্তির পর প্রেক্ষাগৃহে ভালো আয়ের ব্যাপারেও আশাবাদী সংশ্লিষ্টরা।

‘মিশন ইম্পসিবল’ ফ্র্যাঞ্চাইজির ইথান হান্ট টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের অন্যতম আইকনিক একটি চরিত্র। দীর্ঘ বিরতির পর আবারো এই চরিত্রে হাজির হচ্ছেন তিনি। আগের পর্বগুলোর তুলনায় ফ্র্যাঞ্চাইজিত মুক্তি প্রতীক্ষিত সপ্তম পর্বে আরো ভয়ংকর স্টান্টে দেখা যাবে এই তারকাকে। কিছুদিন আগে আয়োজিত সিনেমাটির বিশেষ প্রদর্শনীতে সমালোচকদের কাছে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং’। সিনেমাটির অ্যাকশনের পাশাপাশি এতে হেইলি অ্যাটওয়েলের অভিনয়েরও প্রশংসা করছেন সমালোচকরা। মুক্তির আগের সপ্তাহে সিনেমাটিকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন বিশেষ প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করা সবাই।

ইতিমধ্যে ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং – পার্ট ওয়ান’ সিনেমাটি এই ফ্র্যাঞ্চাইজির সর্বোচ্চ রটেন টমেটোস স্কোর অর্জন করেছে। শুধু তাই নয়, এটি টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের সর্বকালের সর্বোচ্চ স্কোর পাওয়া সিনেমা হিসেবে আবির্ভুত হয়েছে। সমালোচকদের কাছ থেকে ব্যাপক প্রশংসা পাওয়ার পর বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসেও দুর্দান্ত শুরুর ইঙ্গিত দিচ্ছে ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং’ সিনেমাটির প্রথম পর্ব। এখন পর্যন্ত সিনেমাটি দেখতে অগ্রিম টিকেট নিয়ে দর্শকদের মাঝে দারুণ আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে। টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে প্রশংসিত সিনেমা হওয়ার পাশাপাশি ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং’ সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন অনেকে।

টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের

‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং – পার্ট ওয়ান’ এই ফ্র্যাঞ্চাইজির জন্য শেষের শুরু। মূলত ‘ডেড রেকনিং’ দিয়েই শেষ হচ্ছে ‘মিশন ইম্পসিবল’ ফ্র্যাঞ্চাইজির যাত্রা। আর এই শেষ কিস্তিটি নির্মিত হতে যাচ্ছে দুই পর্বে। ক্রুজের দীর্ঘ সময়ের সহযোগী এবং নির্মাতা ক্রিস্টোফার ম্যাককুয়ারির সাথে আরো একবার শ্বাসরুদ্ধকর স্টান্টের জন্য পুনরায় এক হয়েছেন। আগামী ১২ই জুলাই বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘মিশন ইম্পসিবলঃ ডেড রেকনিং – পার্ট ওয়ান’। আর সিনেমাটির দ্বিতীয় পর্ব আগামী বছরের ২৮শে জুন মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, টম ক্রুজের ‘মিশনঃ ইম্পসিবল’ ফ্র্যাঞ্ছাইজিটি হলিউডের অন্যতম দর্শক নন্দিত সিরিজগুলোর মধ্যে অন্যতম। এই সিরিজের প্রতিটি সিনেমাই বক্স অফিসে ব্যবসায়িক সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো। প্রাথমিক ঘোষনা অনুযায়ী সিনেমাটি ২০২১ সালের ২৩শে জুলাই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু করোনা মহামারীর কারনে স্কাইড্যান্স এবং প্যারামাউন্ট পিকচার্স প্রযোজিত সিনেমাটির মুক্তি কয়েকবার পিছিয়ে গেছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী জুলাইয়ে মুক্তি পেতে যাচ্ছে চলতি বছরের অন্যতম প্রতীক্ষিত এই সিনেমা।

প্রসঙ্গত, গোয়েন্দা অ্যাকশন গল্পের ‘মিশন ইম্পসিবল – ডেড রেকনিং’ পরিচালনা এবং চিত্রনাট্য রচনা করেছেন ক্রিস্টোফার ম্যাককুয়ারি। টম ক্রুজ অভিনীত ‘মিশন: ইম্পসিবল’ সিরিজের সপ্তম কিস্তি এবং ম্যাককুয়ারি পরিচালিত সিরিজের তৃতীয় কিস্তি হতে যাচ্ছে এই সিনেমা। ‘রগ নেশন’ এবং ‘ফলআউট’র পর তৃতীয়বারের মতো সিরিজের সিনেমা পরিচালনায় ফিরছেন এই নির্মাতা। সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন টম ক্রুজ, ভিং রামেস, হেনরি চের্নি, সাইমন পেগ, রেবেকা ফার্গুসন, ভেনেসা কিরবি এবং ফ্রেডেরিক শ্মিড্ট।

আরো পড়ুনঃ
দুই দিন আগে মুক্তি পাচ্ছে ‘মিশন ইম্পসিবল – ডেড রেকনিং’ প্রথম পর্ব!
‘মিশন: ইমপসিবল’ নতুন পর্বে আবারো টম ক্রুজের দুঃসাহসী স্টান্ট
তিন পর্বে নির্মিত হতে যাচ্ছে ‘ফাস্ট এন্ড ফিউরিয়াস’ সিরিজের দশম সংস্করণ

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d