প্যান ইন্ডিয়া মুক্তির লক্ষ্যে বিশাল বাজেটে নির্মিত হচ্ছে ‘লুসিফার’ সিক্যুয়েল

‘লুসিফার’ সিক্যুয়েল

‘লুসিফার’ সিক্যুয়েল

মালায়ালাম নতুন বছর চিংগামের প্রথম দিনে মলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা মোহনলাল এবং পৃথ্বীরাজ সুকুমারান তাদের আসন্ন সিনেমা ‘এমপুরান’-এর কাজ শুরুর ঘোষণা দেন। জানা গেছে বিশাল বাজেটে নির্মিত হতে যাচ্ছে অ্যাকশন বিনোদনধর্মী ‘লুসিফার’ সিক্যুয়েল ‘এমপুরান’। সিনেমাটির নির্মাতারা একটি ভিডিও প্রকাশের মাধ্যমে ‘এমপুরান’-এর পরিকল্পনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়েছিলেন। পৃথ্বীরাজ সুকুমারন জানিয়েছেন সিনেমাটির চিত্রনাট্য ইতিমধ্যে চূড়ান্ত করেছেন নির্মাতারা।

ভক্তদের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে সিনেমাটির কাজ শুরু ঘোষণা দিলেন নির্মাতারা। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যমে সিনেমাটির কাজ শুরু নিশ্চিত করেছেন পৃথ্বীরাজ সুকুমারন, মোহনলাল এবং প্রযোজক মুরালি গোপি। জানা গেছে সিনেমাটির নির্মান শুরুর সব প্রস্তুতি নিচ্ছেন নির্মাতারা। বর্তমানে পুরোদমে সিনেমাটি প্রি-প্রোডাকশনের কাজ এগিয়ে চলেছে। এছাড়া সিনেমাটি প্যান ইন্ডিয়া মুক্তির লক্ষ্যে নির্মিত হচ্ছে বলেও জানা গেছে।

বলে রাখা দরকার যে, ‘লুসিফার’ সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন মালায়ালাম সিনেমার মেগাস্টার মোহনলাল। সিনেমাটিতে একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন পৃথ্বীরাজ সুকুমারন। ‘লুসিফার’ মালায়ালাম সিনেমার ইতিহাসের সর্বকালের অন্যতম সেরা সিনেমাগুলোর একটি হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে। সিনেমাটির সিক্যুয়েল নিয়ে অনেক আগেই আলোচনা শুরু হলেও মোহনলাল এবং পৃথ্বীরাজ সুকুমারন উভয়ই নিজেদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকার কারনে সিক্যুয়েলটির কাজ শুরু বিলম্বিত হচ্ছিল।

মোহনলাল উক্ত কথিত ভিডিওতে বলেছেন যে ‘এমপুরান’ একটি বিশাল স্কেলের সিনেমা হতে যাচ্ছে যা প্রথম পর্বের চেয়েও বড় হবে। ভারতের প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুসারে, নির্মাতারা সিনেমাটির জন্য ৪০০ কোটি রুপি বাজেট বরাদ্দ করেছেন। এছাড়া সিনেমাটি একটি প্যান-ইন্ডিয়ান সিনেমা হিসেবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। যদিও নির্মাতারা নিশ্চিত করেছেন যে ‘এমপুরান’ বিশাল বাজেটে তৈরি হবে, তবে বাজেটের পরিমাণ নিয়ে নির্মাতারা আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কিছু জানাননি।

এর আগে সিনেমাটির লেখক মুরালি গোপী জানিয়েছিলেন যে ‘এমপুরান’ সিনেমাটি ‘লুসিফার’ সিক্যুয়েল নয় বরং তিন পর্বের সিরিজের দ্বিতীয় সিনেমা হতে যাচ্ছে। মুরালি গোপীর এই কথা ইঙ্গিত দেয় যে নির্মাতারা লোকেশ কানারাজের মতোই একটি সম্পূর্ণ নতুন ইউনিভার্স তৈরি করার চেষ্টা করছেন’ লোকেশ যেমনটা ‘বিক্রম’ এবং ‘ কাইথি’ সিনেমার মাধ্যমে করেছিলেন। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে ‘এমপুরান’ শুধুমাত্র একটি প্যান-ইন্ডিয়ান নয়, একটি প্যান-ওয়ার্ল্ড পর্যায়ের সিনেমা হতে যাচ্ছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে আরো জানা গেছে ‘লুসিফার’ সিক্যুয়েল ‘এমপুরান’-এর চিত্রনাট্য ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে এবং সিনেমাটির প্রি-প্রোডাকশনের কাজ শীঘ্রই শুরু হবে বলে। প্রথম পর্বের মত দ্বিতীয় পর্বটিও পরিচালনা করছেন পৃথ্বীরাজ সুকুমারন। ‘এমপুরান’ সম্পর্কে পৃথ্বীরাজ জানিয়েছেন যে একটি সম্পূর্ণ বাণিজ্যিক বিনোদন নির্ভর সিনেমা হতে যাচ্ছে। ভারতের বাইরে বেশ কয়েকটি স্থানে সিনেমাটির দর্শ্যধারন করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ‘লুসিফার’ সিনেমায় মোহনলালের সাথে আরো অভিনয় করেছিলেন লেডি সুপারস্টার খ্যাত মাঞ্জু ওয়ারিওর এবং বিবেক ওবেরয়। তবে এর সিক্যুয়েল ‘এমপুরান’ সিনেমায় এই দুই তারকার থাকা বা না থাকার বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আগের সিনেমার এই সিক্যুয়েল (বা প্রিক্যুয়েল) নিয়ে দর্শকদের প্রত্যাশা আকাশচুম্বী। নেটিজেনরা অনেকেই সিনেমাটিতে ‘আরআরআর’, এবং ‘কেজিএফ’-এর মতো অন্যান্য ইন্ডাস্ট্রির সিনেমার জন্য মলিউডের উত্তর বলে অভিহিত করছে।

উল্লেখ্য যে, ‘লুসিফার’ সিনেমাটির তেলুগু সংস্করণ বর্তমানে নির্মানাধীন রয়েছে। সিনেমাটির তেলুগু সংস্করণের নাম ‘গডফাদার’। কিছুদিন আগেই সিনেমাটির টিজার প্রকাশ করেছেন নির্মাতারা। ‘গডফাদার’ সিনেমার প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করছেন তেলুগু মেগাস্টার চিরঞ্জীবী এবং দক্ষিণের লেডি সুপারস্টার খ্যাত নয়নতারা। এছাড়া মালায়ালাম সিনেমাটিতে পৃথ্বীরাজ সুকুমারন যে চরিত্রে অভিনয় করেছিলনে, তেলুগু সংস্করণে সেই চরিত্রে অভিনয় করছেন বলিউডের ভাইজান সালমান খান।

আরো পড়ুনঃ
জানা গেলো মোহনলালকে নিয়ে পৃথ্বীরাজ সুকুমারনের ‘এমপুরান’ বিস্তারিত
‘এমপুরান’ থেকে ‘বিলাল’: মালায়ালাম ইন্ডাস্ট্রির আসন্ন ৫টি অ্যাকশন সিনেমা

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d