আসছে ‘কেজিএফ’ ফ্র্যাঞ্চাইজির আরো সিনেমাঃ বাদ পরছেন যশ

‘কেজিএফ’ ফ্র্যাঞ্চাইজির

২০২২ সালে ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ২’ সিনেমার মাধ্যমে ভারতীয় বক্স অফিসে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন নির্মাতা প্রশান্ত নীল। এখনো কোন আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না পাওয়া গেলেও দ্বিতীয় পর্বের ক্লাইম্যাক্সে সিনেমাটির তৃতীয় পর্বের ইঙ্গিত দিয়েছেন নির্মাতা। সম্প্রতি ‘কেজিএফ’ ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রযোজক বিজয় কিরাগান্দুর জানিয়েছে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি একাধিক অংশে তৈরি করা হবে। তবে ‘জেমস বন্ড’ সিনেমার মতো, আগামীতে সিনেমাটির প্রধান অভিনেতা পরিবর্তন করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

‘কেজিএফ’ ফ্র্যাঞ্চাইজির মাধ্যমে রাতারাতি প্যান ইন্ডিয়া তারকা খ্যাতি অর্জন করেছেন কন্নড় সিনেমার রকিং স্টার যশ। প্রথম দুই পর্বের গল্প যশ অভিনীত চরিত্রকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত হয়েছে। সিনেমাটিতে রকির কেজিএফ দখল এবং উত্তান পতনের গল্প দেখা গেছে। সিনেমাটির আগামী পর্বগুলো থেকে বাদ পরতে যাচ্ছেন যশ।  কিছুদিন আগে সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপচারিতায় এমনটাই জানিয়েছে বিজয়। এছাড়া সিনেমাটির তৃতীয় পর্বের কাজ ২০২৫ সালে শুরু হবে বলেও জানিয়েছেন এই প্রযোজক।

এ প্রসঙ্গে উক্ত সংবাদ মাধ্যমকে বিজয় বলেন, ‘কেজিএফ ফ্র্যাঞ্চাইজিতে এটা হতে পারে যে, পঞ্চম পর্বের পর অন্য কোন তারকা রকির চরিত্রে অভিনয় করতে পারেন। যেমনটা আমরা জেমস বন্ড সিনেমার ক্ষেত্রে দেখেছি।‘ ‘কেজিএফ’ ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রযোজক বিজয় কিরাগান্দু সুত্রে আরো জানা গেছে যে বর্তমানে প্রশান্ত নীল ‘সালার’ সিনেমার কাজে ব্যাস্ত রয়েছেন। এরপর তিনি শুরু করবেন এনটিআর জুনিয়রকে নিয়ে তার নতুন সিনেমার কাজ। তাই ২০২৫ সালের আগে ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ৩’ সিনেমার কাজ শুরু হওয়ার কোন সম্ভাবনা আপাতত নেই।

হম্বলে ফিল্মসের প্রতিষ্ঠাতা বিজয় কিরাগান্দু ‘কেজিএফ’ ছাড়াও গত বছরের ব্লকবাস্টার ‘কান্তারা’-এর মতো সিনেমা প্রযোজনা করেছে। গত দুই বছরে আঞ্চলিক গল্পের ব্যাপক সাফল্যের পর এসব সিনেমার বাজার পুরো ভারতে প্রসারিত হয়েছে। ‘বাহুবলী’ সিনেমার মাধ্যমে দক্ষিণের সিনেমার প্যান ইন্ডিয়া জনপ্রিয়তা আরো শক্তভাবে প্রতিষ্ঠিত করেছে ‘পুষ্পা’, ‘কেজিএফ’, ‘আরআরআর’ এবং ‘কান্তারা’ সিনেমাগুলো। এরই ধারাবাহিকতায় সামনের দিনগুলোতে দক্ষিণের নির্মাতা নিয়ে আসছেন একাধিক প্যান ইন্ডিয়া সিনেমা।

এদিকে চলচ্চিত্রে ভবিষ্যত বিনিয়োগের বিষয়ে তার পরিকল্পনার কথা বলতে গিয়ে ডিসেম্বরে একটি আলাপচারিতায় বিজয় পিটিআইকে বলেছিলেন, ‘আমরা আগামী পাঁচ বছরের জন্য ভারতের বিনোদন শিল্পে ৩,০০০ কোটি বিনিয়োগ করতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি বিনোদন শিল্প আরও বৃদ্ধি পাবে। এটি গল্পের মিশ্র একটি উদ্যাগ হবে। প্রতি বছর একটি ইভেন্ট সিনেমা সহ পাঁচ-ছয়টি সিনেমা মুক্তি পাবে। এখন পর্যন্ত আমাদের দক্ষিণের সব ভাষায় সিনেমা বানানোর পরিকল্পনা আছে।‘

উল্লেখ্য যে, হম্বলে ফিল্মসের প্রযোজনায় বর্তমানে বেশ কয়েকটি প্যান ইন্ডিয়া সিনেমা নির্মানাধীন রয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত সিনেমা হচ্ছে ‘সালার’। প্রশান্ত নীল পরিচালিত এই সিনেমার নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তেলুগু সিনেমার প্যান ইন্ডিয়া সুপারস্টার প্রভাস। এছাড়া আরো আছেন শ্রুতি হাসান, পৃথ্বীরাজ সুকুমারন এবং যোগপতি বাবু। এছাড়া আরো রয়েছে অ্যাকশন থ্রিলার ‘বাঘীরা’, একাধিক ভাষায় নির্মানাধীন ‘ধোমাম’ এবং কার্তি সুরেশ অভিনীত তামিল সিনেমা ‘রঘুথা’।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত আলোচিত ‘কেজিএফ’ সিনেমার দ্বিতীয় পর্বটি বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১,২০০ কোটি রুপির বেশী আয় করেছে। প্রথম পর্বে দেখা দিয়েছিলো গারোরাকে হত্যার মাধ্যমে নারাচিতে নিজের অবস্থান শক্ত করেছে রকি। দ্বিতীয় পর্বে দেখা গেছে তার নতুন যাত্রা। ‘কেজিএফ ২’ সিনেমায় ইয়াশের সাথে এবার যুক্ত হয়েছেন বলিউড তারকা সঞ্জয় দত্ত এবং রাবিনা ট্যন্ডন। এছাড়া দ্বিতীয় পর্বের একটি বিশেষ চরিত্রে ছিলেন জনপ্রিয় তারকা প্রকাশ রাজকে।

আরো পড়ুনঃ
যশ রাজ এবং রোহিত শেঠির পর গ্যাংস্টার ইউনিভার্স নিয়ে আসছেন প্রশান্ত নীল
প্যান ইন্ডিয়া বক্স অফিসে যত রেকর্ড গড়ল প্রশান্ত নীলের ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ২’
আসছে ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ৩’: রকির সাথে এবার যুক্ত হচ্ছে ‘সালার’ বাহিনী

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত