হলিউড থেকে অনুপ্রাণিত এবং রিমেক হওয়া আমির খানের যত সিনেমা

রিমেক হওয়া আমির খানের

রিমেক হওয়া আমির খানের

সম্প্রতি প্রকাশ করা হয়েছে আমির খান অভিনীত ‘লাল সিং চাড্ডা’ সিনেমার ট্রেলার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সিনেমাটির ট্রেলারের রিভিউ থেকে ধারনা করা যাচ্ছে যে ‘ফরেস্ট গাম্প’র এই রিমেকের সাথে একটি বড় বলিউড ব্লকবাস্টার দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন আমির খান৷ অবশ্য সিনেমাটিতে আমির খানের অভিনয় নিয়েও হচ্ছে বিস্তর আলোচনা। ‘লাল সিং চাড্ডা’ সিনেমার আগে হলিউড থেকে অনুপ্রাণিত এবং রিমেক হওয়া আমির খানের সিনেমা নিয়ে আলোচনা থাকছে এই প্রতিবেদনে।

‘লাল সিং চাড্ডা’ সিনেমাই হলিউড থেকে অনুপ্রাণিত এবং রিমেক হওয়া প্রথম সিনেমা নয়। বলিউডের অন্য অনেক তারকার মত আমির খানকেও হলিউডের রিমেক একাধিক সিনেমায় দেখা গেছে। এই সিনেমাগুলোর কিছু সরাসরি অনানুষ্ঠানিক রিমেক আবার কিছু সিনেমা হলিউডের সিনেমা থেকে অনুপ্রাণিত। চলুন দেখে নেয়া যাক হলিউড থেকে অনুপ্রাণিত এবং রিমেক হওয়া আমির খানের ১২টি সিনেমার বিস্তারিত।

রিমেক হওয়া আমির খানের

০১। দিল হ্যায় কে মানতা নেহি (১৯৯১)
মহেশ ভাট পরিচালিত ‘দিল হ্যায় কে মানতা নেহি’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিলো ১৯৯১ সালে। সিনেমাটিতে আমির খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন পূজা ভাট। ‘দিল হ্যায় কে মানতা নেহি’ সিনেমাটি ১৯৩৪ সালের হলিউড সিনেমা ‘ইট হ্যাপেন্ড ওয়ান নাইট’-এর একটি অনানুষ্ঠানিক রিমেক ছিলো।

০২। জো জিতা ওহি সিকান্দার (১৯৯২)
আমির খান অভিনীত সর্বকালের সবচেয়ে জনপ্রিয় সিনেমাগুলির মধ্যে একটি হচ্ছে ‘জো জিতা ওহি সিকান্দার’। ১৯৯২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই সিনেমাটি ১৯৭৯ সালের হলিউড সিনেমা ‘ব্রেকিং অ্যাওয়ে’ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত হয়েছিলো। মনসুর খান পরিচালিত এই সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করেছেন দীপক তিজোরি, আয়েশা ঝুলকা এবং পূজা বেদি।

রিমেক হওয়া আমির খানের

০৩। হাম হ্যায় রাহি পেয়ার কে (১৯৯৩)
আমির খান অভিনীত ‘হাম হ্যায় রাহি পেয়ার কে’ সিনেমাটি পরিচালনার পাশাপাশি এর চিত্রনাট্য রচনা করেছেন মহেশ ভাট। ১৯৯৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই সিনেমাটি ১৯৫৮ সালের হলিউড সিনেমা ‘হাউস বোট’-এর একটি অনানুষ্ঠানিক রিমেক। সিনেমাটিতে আমির খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন জুহি চাওলা। এছাড়া এই সিনেমায় শিশু শিল্পী হিসেবে ছিলেন কুনাল খেমু।

০৪। বাজী (১৯৯৫)
একাডেমি পুরষ্কারের জন্য মনোনীত ‘লাগান’ সিনেমার আগে আমির খান পরিচালক আশুতোষ গোয়ারিকরের পরিচালনায় অ্যাকশন থ্রিলার ‘বাজী’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন। ১৯৯৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই সিনেমাটি ১৯৮৮ সালের কাল্ট হিট ‘ডাই হার্ড’ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত হয়েছিলো। সিনেমাটিতে আরও অভিনয় করেছেন মমতা কুলকার্নি, পরেশ রাওয়াল, আশিস বিদ্যার্থী এবং মুকেশ ঋষি।

০৫। আতঙ্ক হি আতঙ্ক (১৯৯৫)
আমির খান সর্বকালের অন্যতম সেরা চলচ্চিত্র দ্য গডফাদার (১৯৭২) এর রিমেকেও অভিনয় করেছিলেন। দিলীপ শঙ্কর পরিচালিত ‘আতঙ্ক হি আতঙ্ক’ নামের এই সিনেমায় আমির খান আল পাচিনোর মাইকেল কোরলিওনের দ্বারা অনুপ্রাণিত চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সিনেমাটিতে আমির খানের সাথে একটি গুরুত্বপূর্ন চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তামিল সুপারস্টার রজনীকান্ত।

রিমেক হওয়া আমির খানের

০৬। আকেলে হাম আকেলে তুম (১৯৯৫)
মনে হচ্ছে ১৯৯৫ সালটা আমির খানের জন্য হলিউড রিমেকের একটি বছর ছিল। ১৯৯৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মনসুর খানের ‘আকেলে হাম আকেলে তুম’ সিনেমায় আমির খান মনীষা কৈরালার সাথে অভিনয় করেছিলেন। সিনেমাটি ১৯৭৯ সালের একাডেমি পুরস্কার বিজয়ী চলচ্চিত্র ‘ক্রেমার বনাম ক্রেমার’র একটি অনানুষ্ঠানিক রিমেক ছিলো।

রিমেক হওয়া আমির খানের

০৭। গোলাম (১৯৯৮)
বিক্রম ভাট পরিচালিত ১৯৯৮ সালের বহুল আলোচিত ‘গোলাম’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন আমির খান, রানি মুখার্জি এবং শরৎ সাক্সেনা। মুকেশ ভাট প্রযোজিত ‘গুলাম’ সিনেমাটি ছিল সঞ্জয় দত্ত অভিনীত মহেশ ভাটের ১৯৮৮ সালের চলচ্চিত্র ‘কাব্জা’-এর রিমেক। ‘কাব্জা’ সিনেমাটি আবার ১৯৫৪ সালের মারলন ব্র্যান্ডো অভিনীত ‘অন দ্য ওয়াটারফ্রন্ট’ সিনেমার অনুকরণে নির্মিত হয়েছিলো।

০৮। মান (১৯৯৯)
আমির খান, মনীষা কৈরালা এবং অনিল কাপুর অভিনীত ‘মান’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছিলেন ইন্দ্র কুমার। ১৯৯৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত আলোচিত এই সিনেমাটি ১৯৫৭ সালের হলিউড চলচ্চিত্র ‘অ্যান অ্যাফেয়ার টু রিমেম্বার’ থেকে ব্যাপকভাবে অনুপ্রাণিত ছিল।

রিমেক হওয়া আমির খানের

০৯। রং দে বাসন্তী (২০০৬)
আমির খানের ক্যারিয়ারের অন্যতম প্রশংসিত সিনেমা ‘রং দে বাসন্তী’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০০৬ সালে। এই সিনেমাটি ঠিক রিমেক বলা যাবে না, তবে ছাত্রদের একটি দল একটি নাটক/ডকুমেন্টারি তৈরির প্লটটি ১৯৮৯ সালের হলিউড সিনেমা ‘জিসাস অফ মন্ট্রিল’ থেকে অনুপ্রাণিত বলে মনে হয়। পাশাপাশি রাকেশ ওমপ্রকাশ মেহরার পরিচালনায় এই সিনেমাটি ১৯৪৮ সালের ‘অল মাই সনস’ সিনেমার থেকেও অনুপ্রাণিত বলে মনে হয়।

রিমেক হওয়া আমির খানের

১০। ফানা (২০০৬)
আমির খান এবং কাজল অভিনীত ‘ফানা’ সিনেমাটির দ্বিতীয়ার্ধ ১৯৮১ সালের হলিউড সিনেমা ‘আই অফ দ্য নিডল’ এবং ১৯৯৯ সালের কোরিয়ান চলচ্চিত্র ‘শিরি’ থেকে অনুপ্রাণিত বলে মনে হচ্ছে। সিনেমাটিতে আমির খানকে একজন সন্ত্রাসী চরিত্রে দেখা গেছে। অন্যদিকে কাজল সিনেমাটিতে একজন অন্ধ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। যশ রাজ ফিল্মস প্রযোজিত সিনেমাটি বক্স অফিসে সাফল্যের পাশাপাশি সমালোচকদের প্রশংসা কুঁড়াতেও সক্ষম হয়েছিলো।

রিমেক হওয়া আমির খানের

১১। গজিনি (২০০৮)
বলিউডের প্রথম ১০০ কোটি রুপি আয় করা সিনেমা ‘গজিনি’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০০৮ সালে। অ্যাকশন গল্পের এই সিনেমাটির প্রধান কয়েকটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন আমির খান, অসিন, জিয়া খান এবং প্রদীপ রাওয়াত। এর আর মুরুগুদাস পরিচালিত সিনেমাটি একই নির্মাতার একই নামের একটি তামিল সিনেমার রিমেক ছিলো। আর তামিল সিনেমাটি আবার ক্রিস্টোফার নোলানের ২০০০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘মেমেন্টো’ সিনেমা থেকে ব্যাপকভাবে অনুপ্রাণিত ছিল।

রিমেক হওয়া আমির খানের

১২। ধুম থ্রি
যশ রাজ ফিল্মস তথা বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্ছাইজি ‘ধুম’। এই ফ্র্যাঞ্ছাইজির তৃতীয় কিস্তির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন আমির খান। সিনেমাটিতে তাকে দ্বৈত চরিত্রে দেখা গেছে। বক্স অফিসে ব্লকবাস্টার এই সিনেমাটিতে আমির খানের বিপরীতে ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ। ‘ধুম থ্রি’ হলিউডের আলোচিত নির্মাতা ক্রিস্টোফার নোলানের ২০০৬ সালের সিনেমা ‘দ্য প্রেস্টিজ’ অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত হয়েছিলো।

প্রিয় পাঠক আমির খান অভিনীত উল্লেখিত এই সিনেমাগুলোর মধ্যে আপনার প্রিয় সিনেমা কোনটি তা আমাদের জানিয়ে দিন মন্তব্যে। এছাড়া বলিউডের মিঃ পারফেকশনিস্ট আমির খানের মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘লাল সিং চাড্ডা’ সিনেমাটির ট্রেলার আপনার কেমন লেগেছে তাও জানিয়ে দিতে পারেন মন্তব্যে। প্রসঙ্গত, ‘লাল সিং চাড্ডা’ সিনেমায় আমির খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন কারিনা কাপুর খান। আগামী ১১ই আগস্ট মুক্তি পেতে যাচ্ছে এই সিনেমাটি।

আরো পড়ুনঃ
প্রিভিউতে প্রশংসিত ‘লাল সিং চাড্ডা’ ট্রেলার: আইপিএল ফাইনালে উম্মোচন
বলিউডের ভবিষ্যৎ নির্ধারন করবে আসন্ন যে দশটি বিগ বাজেটের সিনেমা!
বলিউডে ‘কেজিএফ ২’ সিনেমার রেকর্ড ভাঙ্গতে আসছে যে ৪টি হিন্দি সিনেমা!

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d