সৃজিতের ‘দশম আবতার’ দিয়ে শুরু হলো বাংলা সিনেমার প্রথম কপ ইউনিভার্স

সৃজিতের ‘দশম আবতার’

পূজায় মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ সবসময়ই বেশী থাকে। বাণিজ্যিক সাফল্যের জন্য পূজা বছরের অন্যতম সেরা সময়, তাই নির্মাতারাও সেসময় হাজির হয়ে থাকেন বড় বড় চমক নিয়ে। আগামী পূজায় মুক্তির জন্য ইতিমধ্যে তিনটি সিনেমার ঘোষণার পাওয়া গেছে। সিনেমাগুলো হচ্ছে নন্দিতা-শিবপ্রসাদের ‘রক্তবীজ’, দেবের ‘বাঘাযতীন’ এবং অরিন্দম শীলের ‘সারান্ডায় মিতিন’। পূজার চমকের তালিকায় নতুন করে যুক্ত হলো নতুন সিনেমা। সৃজিতের ‘দশম আবতার’ নামের সিনেমা দিয়ে দিয়ে শুরু হলো বাংলা চলচ্চিত্রের প্রথম কপ ইউনিভার্স।

বাংলা সিনেমার প্রথম কপ ইউনিভার্সটি নির্মিত হতে যাচ্ছে টলিউডের প্রভাবশালী প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফ। সম্প্রতি হয়ে গেলো আলোচিত এই সিনেমার মোহরত, যেখানে উম্মোক্ত করা হয়েছে সৃজিতের ‘দশম আবতার’-এর লোগো। সৃজিত পরিচালিত  ‘বাইশে শ্রাবণ’ সিনেমার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় অভিনীত প্রবীর রায় চৌধুরী এবং ‘ভিঞ্চি দা’ সিনেমায় অনির্বাণ ভট্টাচার্য অভিনীত বিজয় পোদ্দার থাকছেন  বাংলা সিনেমার প্রথম কপ ইউনিভার্সে। পুরোদস্তুর থ্রিলার ঘরানার এই সিনেমায় এই দুই চরিত্র মিলে করবে জটিল রহস্যের সমাধান।

সৃজিতের ‘দশম আবতার’ মোহরতের ছবিতে একসাথে হাজির হয়েছেন টলিউডের একঝাক তারকা। প্রকাশিত ছবিতে সৃজিতের সাথে ছিলেন রূপম ইসলাম, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, অনুপম রায়, যিশু সেনগুপ্ত, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্ত প্রমুখ। আর এই ছবির মধ্যমণি হয়ে আছেন ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। ছবির সবার পরনে সাদা শার্ট এবং জিন্স। একটি পুরনো বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে তাঁদের ছবি তুলতে দেখা যায়। এদিন বাগবাজারের বসুবাটীতে অনুষ্ঠিত হয়েছে সিনেমাটির লোগো প্রকাশের অনুষ্ঠান।

জানা গেছে জয়া নয়, সিনেমাটির প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয়ের জন্য শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়কে চূড়ান্ত করেছিলেন নির্মাতা সৃজিত। প্রথমবারের মত সৃজিতের সিনেমায় কাজের সুযোগ পেয়ে বেশ উচ্ছ্বাসিত ছিলেন শুভশ্রী। কিন্তু গত মাসের শেষেই দ্বিতীয়বার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর দেন এই অভিনেত্রী নায়িকা। এরপরই সৃজিত নিশ্চিত করেছিলেন যে, শুভশ্রীর বদলে ‘দশম অবতার’ সিনেমায় অভিনয় করবেন জয়া আহসান। এর আগে সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ‘রাজ কাহিনী’ এবং ‘এক যে ছিল রাজা’ সিনেমাগুলোতে অভিনয় করেছিলেন জয়া আহসান।

সৃজিতের ‘দশম আবতার’ সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ হাতছাড়া হওয়া প্রসঙ্গে টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শুভশ্রী বলেন, ‘আমি চেয়েছিলাম সিনেমাটা করতে, কিন্তু সৃজিত কনফিটেন্ড ছিল না। আমাকে ওর সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাতেই হত।‘ তবে এত বড় প্রোজেক্ট হাতছাড়া হওয়ার কোনও আফসোস নেই শুভশ্রীর। সৃজিতের সঙ্গে ভবিষ্যতে কাজের আশাবাদ ব্যাক্ত করে তিনি আরো বলেন, ‘নিজের ভালোর জন্য জীবনে এমন অনেক বড় প্রোজেক্ট ছেড়েছি। আশাকরি সৃজিতের সঙ্গে ভালো ভালো কাজ হবে।‘

পূজায় সৃজিতের শেষ সিনেমা মুক্তি পেয়েছিলো ২০১৯ সালে। সিনেমাটির নাম হচ্ছে ‘গুমনামি’। এর আগে সৃজিত পরিচালিত ‘ইয়েতি অভিযান’ এবং ‘এক যে ছিল রাজা’ সিনেমাগুলোও পূজায় মুক্তি পেয়েছিল। তিন বছর পর আবারো পূজায় সিনেমা নিয়ে হাজির হচ্ছেন টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় এই নির্মাতা। আর পূজায় ফিরছেন যখন, তখন তিনি যে রীতিমতো প্রস্তুতি নিয়েই ফিরছেন সৃজিত। নিজের জনপ্রিয় দুই সিনেমার চরিত্রকে নিয়ে বাংলা সিনেমার প্রথম কপ ইউনিভার্স নির্মান করছেন তিনি। সাথে সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় দুই তারকা। সব মিলিয়ে ইতিমধ্যে জমজমাট সৃজিতের পূজার আয়োজন।

আরো পড়ুনঃ
সৃজিতের হাত ধরে পূজায় আসছে বাংলা সিনেমার প্রথম কপ ইউনিভার্স
ভারতীয় সিনেমার সম্ভাব্য সাতটি সিনেমাটিক ইউনিভার্স বৃত্তান্ত
কৌশিকের নতুন সিনেমা দিয়ে টলিউডে অভিষিক্ত হচ্ছেন সায়নী গুপ্ত

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d