১০০ সিনেমা এবং শাকিব খান সম্পর্কে কি বললেন নির্মাতা ঝন্টু

১০০ সিনেমা এবং শাকিব

১০০ সিনেমা এবং শাকিব

সম্প্রতি একসাথে ১০০টি সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলেন আলোচিত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার কর্নধার সেলিম খান। একসঙ্গে শুরু না করে বছরজুড়েই চলবে সিনেমাগুলোর নির্মান কাজ এবং বৈচিত্রময় গল্পে ভিন্ন ভিন্ন পরিচালক ও শিল্পীদের নিয়ে সিনেমাগুলো নির্মিত হবে বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। এরমধ্যে ১৫ টি সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে আগামী ২২শে ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে বলেও জানান সেলিম খান।

এরপরই এ নিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা। এরপর একটি সিনেমার চুক্তিবদ্ধের অনুষ্ঠানে এ প্রসঙ্গে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন সময়ের সেরা সুপারষ্টার শাকিব খান। এই অনুষ্ঠানে নিজের বক্তব্যে বর্তমান সিনেমা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন দেশ সেরা এই তারকা। ১০০/৫০০ টা সিনেমার পরিবর্তে একটা ভালো সিনেমা দিয়ে ইন্ডাস্ট্রির চাকা ঘোরানো সম্ভব বলে মন্তব্য করেন শাকিব খান।

এবার এ বিষয়ে মুখ খুললেন বাংলাদেশের সর্বাধিক ছবির নির্মাতা, চিত্রনাট্যকার ও প্রযোজক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুক একটি দীর্ঘ স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘সেলিম খান এবার হলো সবার প্রাণ, তাইনা দেখে একটি হিরোর গেলো জান নামটি হলো শাকিব খান। সেলিম খান একশতটা পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করবে এ সংবাদে কে কতটুকু খুশি হয়েছে আমি জানি না, তবে আমি ততটুকু খুশি হয়েছি যতটুকু খুশি ছোটবেলা ঈদের চাঁদ দেখলে হতাম। আমি কিন্তু ঐ একশত চলচ্চিত্র পরিচালকদের মধ্যে নেই। তবুও এতখুশি হয়েছি এ জন্য আমাদের চলচ্চিত্র অঙ্গন আবার নতুন করে প্রাণ চাঞ্চল্য ফিরে পাবে। বলতে গেলে আমাদের চলচ্চিত্র একরকম প্রযোজক শূন্য হয়ে পড়েছিলো। এবার সেই শূন্যতা আবার পূর্ণ হতে চলেছে, আজ এই আনন্দে শুধু আমি আনন্দিত নই, আনন্দিত গোটা চলচ্চিত্র।’

এছাড়া এই ১০০ সিনেমার ঘোষনায় শাকিব খানের হিংসা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি লিখেন, ‘তবে এরই মধ্যে চলচ্চিত্রের একজনকে খুশি হতে দেখলাম না, অনলাইন সোশ্যাল মাধ্যমগুলোতে দেখলাম সেখানে শাকিব খানের কথা শুনে আমার মনে হলো এতে তার হিংসা হয়েছে। যদিও সে কারো নাম ধরে কথা বলেনি তবুও আমার মনে হলো সেলিম খানের একশতটি চলচ্চিত্র নির্মাণ নিয়েই কথা বলেছে। কাকে যেন স্টুপিডও বলেছে। কিন্তু ওর তো এমন হিংসা করার কথা নয় কারন সে আমাদের কোন প্রযোজক নয়, সে শুধু মাত্র একজন নায়ক। আজকাল সে টুকটাক ইংরেজী শব্দও ব্যবহার করছে, কোকিলের মত অনেকেই সুর ধরতে চায় কিন্তু কোকিলের ডাক তো অন্য পাখি ডাকতে পারে না এবং দাড়কাক কখনো ময়ূর সাজতে পারে না।’

বাংলা চলচ্চিত্র ধ্বংসের জন্য শাকিব খানকে দায়ী করে তিনি আরো লিখেন, ‘শাকিব খান বর্তমানে এক নাম্বার নায়ক হলেও সে ভেবে দেখেনি ওর জন্য বর্তমানে চলচ্চিত্র প্রায় ধ্বংসের পথে। এর কারন হলো চলচ্চিত্রে ব্যবসা না থাকা সত্বেও ৩০/৪০ লক্ষ টাকা পারিশ্রমিক নেয় শুনেছি, সে যদি চলচ্চিত্রকে ভালোবাসতো তাহলে ঐ পারিশ্রমিকের ৪ ভাগের ১ ভাগ টাকা পারিশ্রমিক নিয়ে অভিনয় করতো। ২ নাম্বার কারন হলো, ৩০ দিনে একটি চলচ্চিত্র যদি শেষ করা যায় সেখানে তার নন কো-অপারেশনের জন্য দুই মাসের অধিক সময় লেগে যায়। উল্লেখ থাকে যে, বর্তমানে একদিন শুটিং করতে প্রযোজকের ব্যায় হয় ৮০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা। এখন ৩০ দিনের পরিবর্তে যদি শাকিব খানের জন্য ৬০ দিন সময় ব্যায় হয় তাহলে ৫০ থেকে ৬০ লক্ষ টাকার অধিক ব্যায় হয়। শাকিবের এমন আচরেন মনে হয় প্রযোজকের টাকা তার পৈত্রিক সম্পত্তি ছাড়া আর কিছুই না। আমি টাকা খরচ করাবো তাতে কার কি আসে যায়? বাহ্। আমার শেষ কথা হলো সবার উচিত সেলিম খানকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করা।’

উল্লেখ্য যে, শাপলা মিডিয়া ঘোষিত এই ১০০ সিনেমার পরিচালকের তালিকায় নেই দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। এর আগে পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ উঠেছে। সেসময় এই সংবাদ দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচারিত হয়েছিল। সে সময় স্বাধীনতাবিরোধী কাউকে নিয়ে কাজ করবেন না বলেও জানিয়েছিলেন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান।

আরো পড়ুনঃ
বাবার ১০০ সিনেমার একটিতেও নেই শান্ত খান: কারন জানালেন নিজেই
১০০/৫০০ নয় একটি ভালো সিনেমা ঘোরাবে ইন্ডাস্ট্রির চাকা: শাকিব খান
একসঙ্গে শাপলা মিডিয়ার ১০০ সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা!

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত