অপ্রত্যাশিত কারণে বাতিল হয়ে গিয়েছিলো যে ১০টি সিনেমার সিক্যুয়েল

সিনেমার সিক্যুয়েল

জনপ্রিয় সিনেমার সিক্যুয়েল আজকাল বিনোদন জগতে সবচেয়ে আলোড়ন তোলা ঘটনাগুলোর মধ্যে অন্যতম। তবে এটি কোন নতুন প্রবণতা নয়, কারণ দীর্ঘদিন ধরে জনপ্রিয় সিনেমার সিক্যুয়েল মুক্তির ধারা অব্যাহত ছিলো। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের আসল সিনেমাগুলির সাফল্যে বিনিয়োগ করতে এবং সিক্যুয়েলটিকে দর্শকদের কাছে আরো আকর্ষনীয় তোলার মাধ্যমে বক্স অফিসের আয়কে সমৃদ্ধ করতে পছন্দ করে। অনেক সময় এই প্রতিষ্ঠানগুলো আগের পর্বের গল্পকে কিছুটা দীর্ঘায়িত করে সিক্যুয়েল নির্মানের চেষ্টা করে। এটি প্রায়শই খারাপ সিক্যুয়েলের দিকে নিয়ে যায় যা যেমন দেখার যোগ্যও নয়, তেমনি মূল সিনেমাগুলির খ্যাতি নষ্ট করে।

- Advertisement -

অন্যদিকে কিছু কিছু সিনেমার সিক্যুয়েল সত্যিকার অর্থে আগের পর্বের সুনামকে ছাড়িয়ে যেতে দেখা গেছে। এর সবচেয়ে ভালো উদাহরণ হচ্ছে মার্ভেলের সিনেমাগুলোর। নির্দিষ্ট কোন চরিত্র নয়, বরং অনেকগুলো চরিত্রের সমন্বয়ে ধারাবাহিক গল্পে মার্ভেলের ‘ইউনিভার্স’ ইতিমধ্যে জনপ্রিয়তা লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। ‘ইউনিভার্স’ এর পর এবার মার্ভেল নিয়ে আসছে তাদের সুপারহিরোদের ‘মাল্টিভার্স’। নির্দিষ্ট কিছু সিক্যুয়েল ভালো সিনেমা হিসেবে আবির্ভুত হওয়ার সম্ভাবনা থাকা স্বত্বেও শেষ পর্যন্ত কোন এক অপ্রত্যাশিত কারণে সিনেমাগুলোর আলোর মুখ দেখে নি। চলুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক অপ্রত্যাশিত কারণে বাতিল হয়ে গিয়েছিলো যে ১০টি সিনেমার সিক্যুয়েলের বিস্তারিত।

- Advertisement -

০১। মিসেস ডাউটফায়ার ২
শৈশবের সবচেয়ে দুর্দান্ত কমেডি সিনেমাগুলোর মধ্যে অন্যতম ‘মিসেস ডাউটফায়ার’ একাধিকবার দেখেননি এমন দর্শক খোঁজে পাওয়া দুষ্কর। সিনেমাটি দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। রবিন উইলিয়াম তার শক্তি এবং তার কৌতুকপূর্ণ কৌতুকগুলির কারণে তার অভিনীত চরিত্রে উজ্জ্বলতা ছড়িয়েছিলেন। সিনেমাটি বক্স অফিসে এতটাই সফল ছিল যে সিক্যুয়েলের কথা চলে আসে আলোচনায়। সিক্যুয়েলের গল্পে দেখা যেত যে, ড্যানিয়েল (রবিন উইলিয়ামের চরিত্র) তার মেয়ে লিডিয়ার উপর নজর রাখার জন্য তাকে কলেজে অনুসরণ করে। তবে উইলিয়ামস গল্পটি পছন্দ করেননি এবং চিত্রনাট্যটি একাধিক পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে গেছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ২০০৭ সালে সিনেমাটির সিক্যুয়েলের পরিকল্পনা সম্পূর্ণভাবে বাদ দেওয়া হয়েছিল।

সিনেমার সিক্যুয়েল

- Advertisement -

০২। অ্যামেজিং স্পাইডার-ম্যান সিক্যুয়েল
‘অ্যামেজিং স্পাইডার-ম্যান’ সিনেমাটি স্পাইডার-ম্যানের ভক্তদের প্রিয় চরিত্রের অসাধারণ একটি স্পিন ছিল। কিন্তু সিনেমাগুলি খুব বেশি সাফল্য পায়নি এবং সিক্যুয়েলটি এতটাই হতাশাজনক ছিল যে সনি সম্পূর্ণরূপে এই সিরিজটি বন্ধ করে দেয় এবং পরিবর্তে রিবুট করার সিদ্ধান্ত নেয়। এটি একমাত্র কারণ ছিল না কারণ, ২০১৪ সালে সনি হ্যাকস ফ্র্যাঞ্চাইজির তৃতীয় ফিল্মের গল্প ফাঁসের দিকে পরিচালিত করেছিল। স্পষ্টতই, তৃতীয় মুভিতে পল গিয়ামাট্টির ভূমিকায় রাইনোর একটি প্রত্যাবর্তন এবং এমা স্টোনের গুয়েন স্ট্যাসির কোনোভাবে ফিরে আসার কথা ছিল।

০৩। সুপারম্যান লাইভস
এটি পর্দায় সুপারম্যানের পরবর্তী বড় উপস্থাপনা হওয়ার কথা ছিল। আর সিনেমাটি পরিচালনার কথা ছিলো টিম বার্টনের, যিনি এর আগে ১৯৮৯ সাল থেকে ব্যাটম্যান সিনেমা দিয়ে সুপারহিরো সিনেমার সাথে নিজের নামকে সংযুক্ত করেছিলেন। ‘দ্য ডেথ অফ সুপারম্যান’ এরপর থেকে সিনেমাটির গল্প এগিয়ে যাওয়ার কথা ছিলো এবং এতে নাম ভূমিকায় অভিনয়ের কথা ছিলো নিকোলাস কেজের। সিনেমাটির সিক্যুয়েল বাতিল ঘটনাটি সে সময়ে বেশ আলোচনার এবং জল্পনা-কল্পনার জন্ম দিয়েছিলো। জানা গেছে সিনেমাটির প্রযোজক সিনেমাটিতে বিশাল মাকড়সার যুদ্ধ দেখাতে চেয়েছিলেন যা ছিলো একেবারেই অর্থহীন। এমনকি বেশ কয়েকবার চেষ্টার পরও সিনেমাটির চূড়ান্ত চিত্রনাট্য দাঁর করাতে পারেননি নির্মাতারা।

সিনেমার সিক্যুয়েল

০৪। স্টার ট্রেক ৪: জেমস টি কার্কের ট্রায়াল
‘স্টার ট্রেক: দ্য সার্চ ফর স্পক’ সিনেমাটির সিক্যুয়েলের পরিকল্পনা ছিল। আগের পর্বে কার্কের ক্রিয়াকলাপের জন্য বিচার করা হয়েছিল, এরকম একটি আইনি বিষয় নিয়ে নির্মিত হওয়ার কথা ছিলো এর সিক্যুয়েল ‘স্টার ট্রেক ৪: জেমস টি কার্কের ট্রায়াল’। প্যারামাউন্ট সিনেমাটি একটি সহজ গল্পে এবং দর্শকদের জন্য আরও অনেক বেশি হালকা হিসেবে উপস্থাপন করতে চেয়েছিলো। তবে এটি পূর্ববর্তী স্টার ট্রেক প্রকল্পগুলির বাইরে ছিল৷

সিনেমার সিক্যুয়েল

০৫। মাথিল্ডা: দ্যা প্রফেশনাল
লুক বেসন তার সৃজনশীলতা এবং অ্যাকশন নির্ভর সিনেমাটিক প্রচেষ্টার কারণে সবচেয়ে সম্মানিত পরিচালকদের একজন। তার সবচেয়ে সফল সিনেমাগুলির মধ্যে একটি ‘লিওন: দ্য প্রফেশনাল’-এর মাথিল্ডার গল্প অনুসরণ করে এর একটি সিক্যুয়াল হওয়ার কথা ছিল। গল্প অনুসারে, সিনেমাটি মূল সিনেমার কয়েক বছর পরে তার গল্প অনুসরণ করবে এবং তাকে ভাড়া করা খুনি হিসেবে দেখাবে। একমাত্র জিনিস যা এই সিক্যুয়ালের সুযোগ বন্ধ করেছিল তা হল প্রোডাকশন হাউসটি চেয়েছিল নাটালি পোর্টম্যান অনেক বেশি বয়স্ক হোক। আরেকটি বাধা ছিল লুক বেসন তার নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা তৈরি করে এবং সিনেমাটি এর ব্যানারে মুক্তি দিতে চেয়েছিলেন। পরবর্তিতে সিনেমাটি একটি সম্পূর্ণ নতুন গল্পে তৈরি করা হয় এবং ‘কলাম্বিয়ানা’ শিরোনামে মুক্তি পায়।

০৬। ই. টি ২: নক্টারনাল ফিয়ারস
হ্যাঁ, আলোচিত ‘ই. টি’ সিনেমার একটি সিক্যুয়াল নির্মানের কথা ছিল। সিনেমাটির সিক্যুয়েল ‘ই. টি ২: নক্টারনাল ফিয়ারস’ শিরোনাম দেখে মনে করা হয়েছিল যে এলিয়ট এবং তার বন্ধুরা এলিয়েনদের দ্বারা অপহরণ হয়ে গেছে যখন তারা তাদের উপর পরীক্ষা শুরু করে। এলিয়টকে মুক্ত হতে হবে এবং সাহায্যের জন্য ই. টি-তে পৌঁছানোর চেষ্টা করতে হবে। স্পষ্টভাবে বোঝা যাচ্ছে যে আমরা ভাগ্যবান কারণ আমাদের এই সিক্যুয়েলের সাক্ষী হতে হয়নি।

০৭। অ্যাঙ্করম্যান ২ – রন বারগান্ডিঃ দ্য মিউজিক্যাল
অ্যাডাম ম্যাক হলিউডের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় পরিচালক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। ‘অ্যাঙ্করম্যান’ ছিল তার অন্যতম সফল কমেডি সিনেমা যা আমরা তার কাছ থেকে পেতে পেরেছি। সিনেমাটি আমাদের দেখা সবচেয়ে প্রিয় কমেডিগুলির মধ্যে একটি হয়ে উঠেছে। সিনেমাটির একটি সিক্যুয়াল নির্মানের পরিকল্পনা বারবার এসেছিল এবং এটি একটি মিউজিক্যাল হওয়ার ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছিল। এই পরিকল্পনাটি এমন একটি আনন্দের ছিল যে মূল ছবির সাথে জড়িত সমস্ত তারকা এতে যোগ দিয়েছিলেন এবং এটি কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। সিনেমাটির সিক্যুয়েল ২০১৩ সালে প্রকাশিত হয়েছিল তবে এটি মিউজিক্যাল ছিলো না।

০৮। দ্যা বডিগার্ড ২
‘বডিগার্ড’ সিনেমায় কেভিন কস্টনার গায়ক রাচেল মারনের দেহরক্ষী হিসাবে অভিনয় করেছিলেন, যেখানে হুইটনি হিউস্টনকে দেখা গেছে সেই গায়ক। এই সিনেমাটি কালজয়ী ক্লাসিক রোম্যান্টিক সিনেমা হয়ে ওঠে কারণ তারা একে অপরের প্রেমে পড়ে। সম্প্রতি, কেভিন কস্টনার প্রকাশ করেছেন যে সিনেমাটির একটি সিক্যুয়েল পরিকল্পনা ছিল এবং তিনি নিজেই প্রিন্সেস ডায়ানার বিপরীতে অভিনয় করার কথা ছিল। তিনি যোগ করেছেন যে তিনি প্রিন্সেস ডায়ানার মর্মান্তিক মৃত্যুর কয়েক দিন আগে সিনেমাটির প্রথম চিত্রনাট্য পেয়েছিলেন। স্পষ্টতই, তিনি তার সাথে সিনেমাটি নিয়ে আলোচনা করতে সক্ষম হয়েছিলেন। তবে তার মৃত্যু দর্শকদের সিক্যুয়ালটি দেখার সম্ভাব্য সম্ভাবনাকে শেষ করে দেয়।

সিনেমার সিক্যুয়েল

০৯। রজার রেবিট ২
ব্যাপকভাবে সফল ‘হু ফ্রেমড রজার রেবিট’ সিনেমার সিক্যুয়েলটি পর্দার পিছনের অনেক নাটকের কারণে বাতিল করা হয়েছিল। এই সিনেমাটির সাথে যুক্ত ছিলেন পরিচালক স্টিভেন স্পিলবার্গ। জানা গেছে সিনেমার প্লটটিতে রজারকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় নাৎসিদের হাত থেকে জেসিকা খরগোশকে বাঁচানোর চেষ্টার কথা দেখানোর কথা ছিল। কিন্তু স্পিলবার্গ এই প্লটটি পছন্দ করেননি কারণ তিনি সবেমাত্র তার মাস্টারপিস শিন্ডলারের তালিকা প্রকাশ করেছিলেন যা হোলোকাস্টের অন্বেষণ করেছিল এবং তিনি এই প্রকল্প থেকে বাদ পড়েছিলেন।

সিনেমার সিক্যুয়েল

১০। গ্ল্যাডিয়েটর ২
রিডলি স্কট তার ২০০১ সালের অস্কার জয়ী ‘গ্ল্যাডিয়েটর’ সিনেমার একটি সিক্যুয়েলের পরিকল্পনা করেছিলেন। কোনো গ্ল্যাডিয়েটরস এবং রাসেল ক্রো ছাড়াই সিনেমাটির সিক্যুয়াল হওয়ার কথা ছিল। ক্রো তার নিজের সিনেমার সিক্যুয়াল তৈরির জন্য আরও রক্তাক্ত দুঃসাহসিক কাজের মাধ্যমে সাথে ফিরে আসার জন্য কাজ করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সিনেমাটির সিক্যুয়েলের ধারনাগুলো বাতিল করা হয়। জানা গিয়েছিলো সিনেমাটিতে দেখা যাবে যে ম্যাক্সিমাস যীশু এবং তার অনুসারীদের হত্যা করে এবং পরে সে বুঝতে পারে যে সে তার নিজের ছেলেকে হত্যা করেছে।

প্রিয় পাঠক, উপরে উল্লেখিত সিনেমাগুলোর মধ্যে কোন সিনেমার সিক্যুয়েল আপনি বড় পর্দায় দেখতে চান তা জানিয়ে দিন মন্তব্যে। এছাড়া বর্তমানে হলিউডের মুক্তি প্রতীক্ষিত কোন সিনেমার সিক্যুয়েলের জন্য অপেক্ষা করছেন তাও জানিয়ে দিতে পারেন মন্তব্যে।

আরো পড়ুনঃ
‘ডক্টর স্ট্রেঞ্জ’ দেখার আগে যে সিনেমাগুলো দেখা উচিৎ!
ধর্ষণকে উপজীব্য করে নির্মিত হয়েছিলো হলিউডের যে ১০টি সিনেমা!
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ভয়াবহতা নিয়ে নির্মিত হলিউডের সেরা ৫টি সিনেমা

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ