‘অ্যাভাটার’ বক্স অফিস সংগ্রহকে ছাড়িয়ে যাবে ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’

'অ্যাভাটার' বক্স অফিস

সনি পিকাচার্স এবং মার্ভেল স্টুডিও প্রযোজিত ‘স্পাইডার ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটি সর্বকালের অন্যতম সেরা সিনেমার তালিকায় নাম লিখাতে যাচ্ছে। করোনা ভাইরাসের ওমিক্রন সংক্রমণের মুখেও মুক্তির প্রথম তিন দিনে সর্বকালের চতুর্থ সেরা সিনেমা হিসেবে আবির্ভূত হতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে হলিউড ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমগুলো। জানা গেছে শুধু আমেরিকার বক্স অফিসে ইতিমধ্যে ৭৪৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছে এই সিনেমা। আর এর মধ্যেই সিনেমাটি বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের রেকর্ড করেছে ‘স্পাইডার ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’।

- Advertisement -

জানা গেছে চলতি সপ্তাহেই যুক্তরাষ্ট্রে ‘অ্যাভাটার’ বক্স অফিস সংগ্রহকে ছাড়িয়ে যাবে স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’। গত বছরের শেষে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাটির শেষ সপ্তাহে বক্স অফিস আয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯.৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। সব মিলিয়ে সনি পিকাচার্স এবং মার্ভেল স্টুডিও প্রযোজিত ‘স্পাইডার ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটি যুক্তরাষ্ট্রের বক্স অফিসে চতুর্থ সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হিসেবে নাম লিখয়েছে।

এদিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে জেমস ক্যামেরন পরিচালিত ‘অ্যাভাটার’ সিনেমাটির বক্স অফিস আয় থেকে মাত্র ৮০০,০০০ মার্কিন ডলার দূরে রয়েছে। সিনেমাটির বক্স অফিস আয়ের ধারা অনুযায়ী খুব শীগ্রই ‘অ্যাভাটার’ বক্স অফিস সংগ্রহকে ছাড়িয়ে যাবে স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’। আর এর মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের বক্স অফিসে তৃতীয় সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হতে যাচ্ছে সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে আলোচিত এই সিনেমাটি।

- Advertisement -

ইতিমধ্যে ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটি ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’ এবং ‘অ্যাভেঞ্জার্সঃ ইনিফিনিটি ওয়ার’ সিনেমাগুলোর বক্স অফিস সংগ্রহকে ছাড়িয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের বক্স অফিসে সিনেমাটির সামনে থাকবে মাত্র দুটি সিনেমা। সবকিছু ঠিক থাকলে ‘স্টার ওয়ারস: দ্য ফোর্স অ্যাওয়েকেন্স’ ($৯৩৬.৬ মিলিয়ন) এবং ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’ ($৮৫৮.৩ মিলিয়ন) সিনেমাগুলোর পর তৃতীয় অবস্থানে থাকবে ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’।

প্রসঙ্গত, ‘হোমকামিং’ এবং ‘ফার ফ্রম হোম’ সিনেমার পর আবারো ‘স্পাইডার-ম্যান’ পরিচালনায় ফিরছেন নির্মাতা পরিচালক জন ওয়াটস। ম্যাককেনা এবং এরিক সোমারসের চিত্রনাট্যে ‘স্পাইডার ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটির মাধ্যমে জন ওয়াটস তার স্পাইডার ম্যান ট্রিলজির ইতি টানছেন এবং মার্ভেল শুরু করতে যাচ্ছে একটি নতুন ইউনিভার্স। সিনেমাটিতে আগের দুই পর্বের মতই পিটার পার্কারের চরিত্রে টম হল্যান্ড, এমজে চরিত্রে জেনডায়া এবং নেড চরিত্রে জ্যাকব ব্যাটালন অভিনয় করেছেন।

- Advertisement -

সিরিজের নতুন এই পর্বে দেখা গেছে পিটার পার্কার হিসাবে স্পাইডার-ম্যানের পরিচয় বিশ্বের কাছে প্রকাশ পেয়ে যায়। সবার স্মৃতি থেকে স্পাইডার-ম্যানের পরিচয় মুছে দেয়ার জন্য পিটার ডক্টর স্ট্রেঞ্জের সাহায্য চায় কিন্তু একটি ভূলের কারনে মাল্টিভার্স খুলে যায়। ডাঃ অটো অক্টোভিয়াস (আলফ্রেড মোলিনা), ইলেকট্রো (জেমি ফক্স) এবং গ্রীন গবলিন (উইলেম ডাফো) সবাই ফিরে আসে। এই সিনেমাটিতে নিজেদের চরিত্র নিয়ে ফিরে এসেছেন জেন্ডায়া, জ্যাকব ব্যাটালন, মারিসা টোমেই, জন ফাভরেউ এবং জে.কে. সিমন্স।

আরো পড়ুনঃ
‘স্পাইডার ম্যান’ ফ্র্যাঞ্চাইজির একাধিক সিনেমা নিশ্চিত করলো মার্ভেল
সর্বাকালের সেরা সিনেমার তালিকায় ‘স্পাইডার ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’!
বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের পথে ‘নো ওয়ে হোম’

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ