সনি পিকচার্সের ইতিহাসে সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’

সনি পিকচার্সের ইতিহাসে

গত এক দশক ধরে বক্স অফিসে এককভাবে রাজত্ব করছে হলিউডের অন্যতম প্রভাবশালী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মার্ভেল। এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ ইতিমধ্যে বক্স অফিসে আলোড়ন তুলেছে। মার্ভেল স্টুডিওস এর সাথে সিনেমাটি যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে সনি পিকচার্স। মুক্তির দুই সপ্তাহের মাথায় ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটি সনি পিকচার্সের ইতিহাসে সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। ইতিমধ্যে বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে সিনেমাটির আয়ের পরিমান দাঁড়িয়েছে ১.১৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

- Advertisement -

হলিউড ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে ১.১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের মাধ্যমে সনি পিকচার্সের ইতিহাসে সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হিসেবে নাম লিখিয়েছে টম হল্যান্ড অভিনীত ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’। ১.১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের মধ্যে ডোমেস্টিক বক্স অফিসে সিনেমাটির মোট আয়ের পরিমান ৫১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। আর আন্তর্জাতিক বক্স অফিসে সিনেমাটি ৬৪৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করতে সক্ষম হয়েছে।

এদিকে ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটির মাধ্যমে অনন্য এক উচ্চতায় নিজেকে নিয়ে গেছেন সিনেমাটির প্রধান তারকা টম হল্যান্ড। বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১ বিলিয়নের বেশী আয় করা চারটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। এ তালিকায় মাত্র ১২ জন অভিনেতা রয়েছেন, এই তালিকায় নতুন করে নাম লিখালেন টম হল্যান্ড। মজার ব্যাপার হচ্ছে এই চারটি সিনেমাই প্রযোজনা করেছে মার্ভেল স্টুডিওস। এছাড়া ক্রিসমাসে মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বকালের অন্যতম সেরা আয়ের সিনেমার তালিকায় নাম লিখিয়েছে ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’।

- Advertisement -

বক্স অফিসে সাফল্যের পাশাপাশি ‘স্পাইডার-ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটি সমালোচকদেরও প্রশংসা কুঁড়াতে সক্ষম হয়েছে। সিনেমাটির বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ঝড় তোলার অন্যতম প্রধান কারন হচ্ছে এই সিনেমায় একসাথে আসছেন তিনি স্পাইডার ম্যান টোবি ম্যাগুয়ার, অ্যান্ড্রু গারফিল্ড এবং টম হল্যান্ড। যদিও নির্মাতাদের পক্ষ্য থেকে কোন আনুষ্ঠানিক ঘোষনা ছিলো না, কিন্তু মুক্তির আগেই থেকে সবাই এমনটাই ধারনা করছিলেন। তাই মুক্তির পর সিনেমাটি দেখার জন্য প্রেক্ষাগৃহে হুমড়ি খেয়ে পরেন স্পাইডার ম্যান ভক্তরা।

প্রসঙ্গত, ‘হোমকামিং’ এবং ‘ফার ফ্রম হোম’ সিনেমার পর আবারো ‘স্পাইডার-ম্যান’ পরিচালনায় ফিরছেন নির্মাতা পরিচালক জন ওয়াটস। ম্যাককেনা এবং এরিক সোমারসের চিত্রনাট্যে ‘স্পাইডার ম্যানঃ নো ওয়ে হোম’ সিনেমাটির মাধ্যমে জন ওয়াটস তার স্পাইডার ম্যান ট্রিলজির ইতি টানছেন এবং মার্ভেল শুরু করতে যাচ্ছে একটি নতুন ইউনিভার্স। সিনেমাটিতে আগের দুই পর্বের মতই পিটার পার্কারের চরিত্রে টম হল্যান্ড, এমজে চরিত্রে জেনডায়া এবং নেড চরিত্রে জ্যাকব ব্যাটালন অভিনয় করেছেন।

- Advertisement -

সিরিজের নতুন এই পর্বে দেখা যাবে পিটার পার্কার হিসাবে স্পাইডার-ম্যানের পরিচয় বিশ্বের কাছে প্রকাশ পেয়ে যায়। সবার স্মৃতি থেকে স্পাইডার-ম্যানের পরিচয় মুছে দেয়ার জন্য পিটার ডক্টর স্ট্রেঞ্জের সাহায্য চায় কিন্তু একটি ভূলের কারনে মাল্টিভার্স খুলে যায়। ডাঃ অটো অক্টোভিয়াস (আলফ্রেড মোলিনা), ইলেকট্রো (জেমি ফক্স) এবং গ্রীন গবলিন (উইলেম ডাফো) সবাই ফিরে আসে। এই সিনেমাটিতে নিজেদের চরিত্র নিয়ে ফিরে এসেছেন জেন্ডায়া, জ্যাকব ব্যাটালন, মারিসা টোমেই, জন ফাভরেউ এবং জে.কে. সিমন্স।

আরো পড়ুনঃ
বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের পথে ‘নো ওয়ে হোম’
‘স্পাইডার ম্যান’ ফ্র্যাঞ্চাইজির একাধিক সিনেমা নিশ্চিত করলো মার্ভেল
হলিউডের বহুল প্রতীক্ষিত যে সিনেমাগুলো আগামী বছর বক্স অফিস মাতাবে!

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ