তামিল সিনেমার কয়েকটি আইকনিক চরিত্র এবং একজন সুপারস্টার বিক্রম

তামিল সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা বিক্রম। ১৯৯০ সালে প্রথমবারের মত নায়ক হিসেবে অভিষিক্ত হয়েছিলেন এই তারকা। সম্প্রতি ৫৬ বছর বয়সে পা দিলেন এই সুপারস্টার। দক্ষিনি সিনেমার এই জনপ্রিয় অভিনেতা তামিলের পাশাপাশি তেলুগু, কন্নড় এবং হিন্দি সিনেমায়ও অভিনয় করেছেন। নিজের ক্যারিয়ারে ইতিমধ্যে ভিন্নধারার বেশ কয়েকটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন বিক্রম। সিনেমাগুলোতে তার অভিনয়ও ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে। সুপারস্টার বিক্রম অভিনীত তামিল সিনেমার কয়েকটি আইকনিক চরিত্র নিয়ে বিস্তারিত থাকছে এই আলোচনায়।

সুপারস্টার বিক্রম

- Advertisement -

১। দেইভা থিরুমগাল
এএল বিজয় পরিচালিত ‘দেইভা থিরুমাগাল’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিলো ২০১১ সালে। সিনেমাটিতে বিক্রমের অভিনয় অবিশ্বাস্য ছিল কারণ কেউই আশা করেনি যে মানসিকভাবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির ভূমিকাটি বিক্রম এমন অসাধারনভাবে পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে পারবেন। পুরো সিনেমা জুড়ে ৫ বছর বয়সী বাচ্চার মতো অভিনয় করেছেন তিনি৷ সিনেমাটি ছিল একটি আবেগঘন পারিবারিক ড্রামা এবং এই সিনেমায় অভিনয়ের জন্য সেই বছর সেরা অভিনেতা হিসেবে বিক্রম সর্বোচ্চ পুরস্কার জিতেছিলেন।

সুপারস্টার বিক্রম

- Advertisement -

২। রাবণ
২০১০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘রাবণ’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছিলেন মণি রত্নম। সিনেমাটিতে বিক্রমের সাথে অন্য প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ঐশ্বরিয়া। যদিও সিনেমাটি বক্স অফিসে ভালো ব্যবসা করতে ব্যর্থ হয়েছিলো বিক্রমের অভিনয়ের কারণে সিনেমাটি বেশ আলোচিত হয়েছিলো এবং প্রেক্ষাগৃহে দর্শক টানতে সক্ষম হয়েছিলো। অ্যাকশন-অ্যাডভেঞ্চার ধর্মী এই সিনেমায় অসাধারণ অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে বিক্রম ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জিতেছিলেন।

সুপারস্টার বিক্রম

- Advertisement -

৩। আন্নিয়ান
দক্ষিনের আলোচিত নির্মাতা শঙ্কর পরিচালিত ‘আন্নিয়ান’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিলো ২০০৫ সালে। সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে বিক্রমের অভিনয় সিনেমাটিতে দিয়েছিলো ভিন্ন মাত্রা। এটি ছিল প্রথম তামিল সিনেমাগুলির মধ্যে একটি যাতে একাধিক ব্যক্তিত্বের ব্যাধির ধারণা অন্তর্ভুক্ত ছিল। একজন অভিনেতা হিসেবে বিক্রম নিজেকে প্রমাণ করেছেন আম্বি, আনিয়ান এবং রেমো চরিত্রে মাত্র একটি ছবিতে তিনটি ভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে। বক্স অফিসে ব্লকবাস্টার হওয়ার পাশাপাশি সিনেমাটি বিক্রমের ক্যারিয়ারের অন্যতম আলোচিত সিনেমা হিসেবে আবির্ভুত হয়েছিলো।

সুপারস্টার বিক্রম

৪। পিঠামগন
২০০৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘পিঠামগন’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছিলেন বালা। স্লিপার হিট এই সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন বিক্রম, সুরিয়া এবং লায়লা। ‘পিঠামগন’ এমন একটি সিনেমা যা আজও বিক্রমের অভিনয় দক্ষতার কথা বলে। সিনেমাটিতে অভিনয়ের জন্য সেরা পুরুষ অভিনেতা হিসেবে তামিলনাড়ু স্টেট ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডস পুরস্কার লাভ করেন বিক্রম। কোনো সংলাপ ছাড়াই শুধুমাত্র শারীরিক ইঙ্গিতের মাধ্যমে অভিনয় করে দক্ষিনি সিনেমায় নিজের জন্য একটি বিশেষ স্থান তৈরি করেছিলেন।

৫। সামি
২০০৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘সামি’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছিলেন হরি। অ্যাকশন গল্পের এই সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন বিক্রম এবং ত্রিশা। ‘সামি’ ছিল পুলিশের গল্পগুলির মধ্যে একটি যা ‘কাখা কাখা’-এর লাইনে প্রবণতা ছিল। বিক্রমের অভিনয় ছিল অসাধারণ যা সিনেমাটিকে সুপারহিট করেছে। ‘নান পুলিশ ইল্লা পোরুক্কি’ – সিনেমাটিতে বিক্রমের ব্যবহৃত এই লাইনটি আজও ট্রেন্ডে রয়েছে।

৬। সেতু
বালা পরিচালিত আলোচিত ‘সেতু’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিলো ১৯৯৯ সালে। বিক্রম এবং অভিথা জুটির এই সিনেমাটি ছিল একটি রোমান্টিক ড্রামা। ‘সেতু’ তামিলের সেরা সিনেমাটি হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জিতেছিলো এবং অভিনেতা বিক্রমও তার অভিনয়ের জন্য বেশ কয়েকটি পুরস্কার জিতেছেব। পুরো সিনেমায় দুর্দান্ত অভিনয়ের কারনে বিক্রমের অন্যতম আলোচিত চরিত্র হিসেবে ভক্তদের মাঝে স্থান করে নিয়েছিলো ‘সেতু’। সিনেমাটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছিলেন ইলাইয়ারাজা।

প্রিয় পাঠক সুপারস্টার বিক্রম অভিনীত উপরে উল্লেখিত সিনেমাগুলোর মধ্যে কোন সিনেমাটি আপনার সবচেয়ে ভালো লেগেছে তা জানিয়ে দিন মন্তব্যে। এছাড়া বিক্রম অভিনীত আর কোন সিনেমা এবং চরিত্র এই তালিকায় থাকা উচিৎ বলে আপনি মনে করছেন সেটাও জানিয়ে দিতে পারেন মন্তব্যে।

আরো পড়ুনঃ
মিশ্র প্রতিক্রিয়ার পরও ব্লকবাস্টার হয়েছিলো থালাপতি বিজয়ের যত সিনেমা
শুরু হলো অজিত কুমার অভিনীত নতুন সিনেমা দৃশ্যধারনের কাজ
শঙ্কর পরিচালিত নতুন সিনেমায় দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করছেন রাম চরন

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ