লেডি সুপারস্টার নয়নতারা অভিনীত যে আটটি সিনেমা অবশ্যই দেখা উচিত

লেডি সুপারস্টার নয়নতারা

একটি মালয়ালি নাসরানি (সিরিয়ান খ্রিস্টান) পরিবারে ডায়ানা মারিয়াম কুরিয়েন হিসাবে জন্মগ্রহণ করেন নয়নতারা। তার পিতা কুরিয়ান কোডিয়াট্টু একজন ভারতীয় সেনা অফিসার এবং মা ওমানা কুরিয়েন। বেঙ্গালুরুর কর্ণাটকে ১৯৮৪ সালে জন্মগ্রহন করেন এই তারকা। তেলেগু, মালায়ালাম এবং কন্নড় সিনেমার পাশাপাশই তামিল সিনেমায় নিয়মিত অভিনয় করেন নয়নতারা। আকর্ষণীয় চেহারা এবং প্রতিভা দিয়ে ইতিমধ্যে দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছেন এই অভিনেত্রী। শিল্পের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং চাওয়া-পাওয়া অভিনেত্রীদের একজন। ‘চন্দ্রমুখী’, ‘গজিনি’, ‘ই’ এর মতো অনেক জনপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করার পর, ‘বিল্লা’ এবং ‘ইয়ারাদি নি মোহিনী’ সিনেমাগুলোতে তার ভূমিকার দর্শকদের অন্যতম প্রিয় সিনেমার তালিকায় রয়েছে। আজকের এই প্রতিবেদনে লেডি সুপারস্টার নয়নতারা অভিনীত এমন আটটি সিনেমা নিয়ে আলোচনা থাকছে যা অবশ্যই আপনার দেখা উচিত।

লেডি সুপারস্টার নয়নতারা

১। মায়া
ভৌতিক গল্পের তামিল ‘মায়া’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন অশ্বিন সারাভানন। সিনেমাটির প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করছেন লেডি সুপারস্টার নয়নতারা এবং আরি। সিনেমাটির নাম প্রথমে ‘নাইট শো’ ছিলো কিন্তু পরবর্তিতে সিনেমাটির নাম হয় ‘মায়া’। আরি একটি প্রিন্ট মিডিয়াতে কাজ করে এবং হরর সিরিজ নিয়ে কাজের দায়িত্বে রয়েছে। এটিতে কাজ করার সময়, মায়াভানামের জঙ্গলের ভিতরে একটি পুরানো মানসিক প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত একটি বিশেষ পর্ব তাকে এবং তার বন্ধুকে মুগ্ধ করে। সিনেমাটিতে আরির বন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন আমজাথ খান। সিনেমাটি নয়নতারা ক্যারিয়ারের ৫০তম সিনেমা ছিলো আর সিনেমাটিতে তামিলের অন্যতম সেরা হরর সিনেমা হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। ২০১৫ সালের তামিলের সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমাগুলো মধ্যে ‘মায়া’ ছিলো অন্যতম।

লেডি সুপারস্টার নয়নতারা

২। বস এঙ্গিরা বাস্করান
২০১০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই তামিল সিনেমাটিতে নয়নতারা আরিয়ার সাথে পর্দা ভাগ করেছিলেন। সিনেমাটিতে তার ক্যারিয়ারে অন্যতম স্মরণীয় সিনেমা বলা হয়ে থাকে। ‘বস এঙ্গিরা বাস্করান’ সিনেমায় লেডি সুপারস্টার নয়নতারা একজন বন্ধুত্বপূর্ণ শিক্ষকের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন, যা তিনি অত্যন্ত স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে সম্পন্ন করেছিলেন। আরিয়ার সাথে চাতুরীতে গর্ভবতী হাসির দৃশ্যটি সত্যিই সিনেমাটিতে উপভোগ্য করে তুলেছিল। মুক্তির পর সমালোচকদের প্রশংসার পাশাপাশি সিনেমাটি বক্স অফিসেও ভালো ব্যবসা করতে সক্ষম হয়েছিলো। পরবর্তিতে সিনেমাটি কান্নাড় ভাষায় ‘পারিজাতা’ এবং বাংলা ভাষায় ‘রাজা রানী রাজি’ নামে রিমেক করা হয়েছিলো।

লেডি সুপারস্টার নয়নতারা

৩। রাজা রানী
তামিলের জনপ্রিয় নির্মাতা এটলি কুমার পরিচালিত ‘রাজা রানী’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিলো ২০১৩ সালে। এই সিনেমার মাধ্যমে এটলি কুমার প্রথমবারের মতো পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। এছাড়া ‘রাজা রানী’ সিনেমার মাধ্যমে তিন বছর তামিল সিনেমায় অভিনয় করেন লেডি সুপারস্টার নয়নতারা। সিনেমাটিতে দুর্দান্ত অভিনয় দিয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী। মুক্তির পর সমালোচকদের প্রশংসার পাশাপাশি সিনেমাটি বক্স অফিসেও ভালো ব্যবসা করতে সক্ষম হয়েছিলো। আর অভিনয়ের জন্য নয়নতারা সেরা অভিনেত্রী হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরষ্কারও জিতেছিলেন। উল্লেখ্য যে, একই নামে সিনেমাটি তেলুগু ভাষায়ও মুক্তি পেয়েছিলো আর পরবর্তিতে বাংলা এবং ওড়িয়াতে সিনেমাটির রিমেক হয়েছিলো।

৪। নানুম রাউডি থান
‘পোড়া পুড়ি’ সিনেমার পর পরিচালক ভিগ্নেশ শিবান নির্মান করেন ‘নানুম রাউডি থান’। তামিল রোম্যান্টিক কমেডি সিনেমাটিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন বিজয় সেতুপতি এবং নয়নতারা। ব্যানার ওয়ান্ডারবার ফিল্মসের ব্যানারে সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন অভিনেতা ধানুশ। সিনেমাটির সঙ্গীতে ছিলেন অনিরুধ রবিচন্দর। একজন বধির নারীর চরিত্রে নয়নতারা অসাধারণ অভিনয় করেছিলেন। বক্স অফিসে সাফল্যের পাশাপাশি সমালোচকদেরও প্রশংসা কুড়িয়েছিল এই সিনেমাটি।

৫। শ্রী রাম রাজ্যম
২০১১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তেলুগু ‘শ্রী রাম রাজ্যম’ সিনেমাটিকে লেডি সুপারস্টার নয়নতারার ক্যারিয়ার সেরা পারফরম্যান্স হিসাবে বিবেচনা করা যেতে পারে। সাধারণত সিনেমার পর্দায় গ্ল্যামারের কারনে আলোচিত এই অভিনেত্রী সিনেমাটিতে দেবী সীতার ভূমিকায় অভিনয় করার সাহস করেছিলেন। আর সন্দেহাতীত ভাবে নয়নতারা এই চরিত্রটি পরিপূর্ণতার সাথে করতে পেরেছিলেন। এমনকি এই সিনেমায় তার দুর্দান্ত অভিনয়ের জন্য রাজ্য পুরস্কার জিতেছিলেন তিনি। সিনেমাটি ব্যবসায়িক সাফল্যের পাশাপাশি আন্তর্জাতিকভাবেও প্রশংসিত হয়েছিলো। ২০১১ সালের নভেম্বরে ইন্টারন্যাশলান ফিল্ম ফেস্টিভল অফ শ্রীলংকা-তে এই সিনেমার বিশেষ প্রদর্শনি হয়েছিলো।

৬। কাশমোরা
তামিল ফ্যান্টাসি কমেডি সিনেমা ‘কাশমোরা’ পরিচালনা করেছেন গোকুল। এই নির্মাতা এর আগে ‘রৌথিরাম’ এবং ‘আইধাবা’ সিনেমা দুটি নির্মান করেছিলেন। ‘কাশমোরা’ সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন কার্তি, নয়নতারা এবং শ্রী দিব্যা। সিনেমাটিতে নয়নতারা অভিনীত চরিত্রের নাম রত্না। একজন আত্মার চরিত্রে দেখা গেছে তাকে। কাশমোরার (কার্তি) সাহায্যে প্রতিশোধের জন্য লড়াই করতে দেখা গেছে তাকে।

লেডি সুপারস্টার নয়নতারা

৭। বিশ্বসম
‘বিশ্বসম’ সিনেমার মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর অজিত কুমারের সাথে জুটি হয়ে আসেন লেডি সুপারস্টার নয়নতারা। যথারীতি আরো একবার দর্শকদের মুগ্ধ করেছে এই জুটির রসায়ন। সিনেমাটিতে অজিত কুমারের স্ত্রী নিরঞ্জনা চরিত্রে অভিনয় করেছেন লেডি সুপারস্টার। রোম্যান্স এবং সম্পর্কের অনুভূতির দৃশ্যগুলি অসাধারণ ছিল এবং সিনেমাটি বক্স অফিসে ভাল ব্যবসা করতে সক্ষম হয়েছিলো। যদিও এটি থালার সিনেমা কিন্তু নয়নতারা অজিতের সমান গুরুত্ব পেয়েছিলেন। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন শিব।

লেডি সুপারস্টার নয়নতারা

৮। নেত্রিকান্ন
লেডি সুপারস্টার নয়নতারা অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘নেত্রিকান্ন’। তামিল এই ক্রাইম থ্রিলার সিনেমাটি ২০১১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সাউথ কোরিয়ান সিনেমা ‘ব্লাইন্ড’ এর রিমেক। সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন নয়নতারা। সিনেমাটিতে তার চরিত্রের নাম দূর্গা, একজন অন্ধ পুলিশ অফিসার যে একজন সিরিয়েল কিলারের খোঁজে রয়েছে। মিলিন্দ রাউ পরিচালিত সিনেমাটিতে নয়নতারা সাথে রয়েছেন আজমল আমীর। করোনার কারনে সিনেমাটি সরাসরি ওটিটি প্লাটফর্ম ডিজনি+হটস্টারে মুক্তি পেয়েছিলো।

প্রিয় পাঠক লেডি সুপারস্টার অভিনীত উপরে উল্লেখিত সিনেমাগুলো মধ্যে কতটি আপনি ইতিমধ্যে দেখেছেন? এছাড়া উপরে উল্লেখিত সিনেমাগুলোর বাইরে আর কোন সিনেমা এই তালিকায় থাকা উচিত বলে আপনি মনে করছেন তা আমাদের জানিয়ে দিন ঝটপট।

আরো পড়ুনঃ
শাহরুখ খানের বিপরীতে সিনেমা দিয়ে বলিউডে অভিষিক্ত হচ্ছেন নয়নতারা!
পঞ্চম দিনে বক্স অফিসে পতনের শিকার সুপারস্টার রজনীকান্তের ‘আন্নাথে’
শাহরুখ খান এবং এটলি কুমারের সিনেমা: নেটিজেনরা বলছেন ‘সুপার ফ্লপ’!

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ