দিওয়ালীতে মুক্তিপ্রাপ্ত সুপারস্টার রজনীকান্তের ব্যবসা সফল পাঁচটি সিনেমা

সুপারস্টার রজনীকান্তের

দিওয়ালী উপলক্ষ্যে মুক্তি পেয়েছে রজনীকান্ত অভিনীত প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘আন্নাথে’। প্রায় ২৬ বছর পর দিওয়ালীতে মুক্তি পেতে যাচ্ছে এই সুপারস্টারের কোন সিনেমা। সর্বশেষ ১৯৯৫ সালে মুক্তি দিওয়ালীতে মুক্তি পেয়েছিলো রজনীকান্ত অভিনীত সিনেমা ‘মুথু’। রজনীকান্তের সিনেমা সাধারণত তামিল নতুন বছর এবং পংগাল উপলক্ষ্যে মুক্তি পেয়ে থাকে। তবে এর আগে দিওয়ালীতেও সিনেমা দিয়ে বক্স অফিস মাত করেছেন এই তারকা। দিওয়ালীতে মুক্তিপ্রাপ্ত সুপারস্টার রজনীকান্তের ব্যবসা সফল পাঁচটি সিনেমা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা থাকছে এই প্রতিবেদনে।

- Advertisement -

সুপারস্টার রজনীকান্তের

১। মুথু (১৯৯৫)
কে এস রবিকুমারের সাথে রজনীকান্তের প্রথম সিনেমা ‘মুথু’ শুধু তামিল নাড়ুতে নয়, দুর্দান্ত ব্যবসা করেছিলো জাপানেও। ১৯৯৫ সালের দিওয়ালীতে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাটির সাথে একই দিনে আরো মুক্তি পেয়েছিলো কমল হাসানের ডার্ক কপ থ্রিলার ‘কুরুথিপুনাল’, বিজয়ের ‘চন্দ্রলেখা’, শরৎ কুমারের ‘রাগাসিয়া পুলিশ’, মামুত্তির ‘মক্কাল আচি’ এবং পান্ডিয়ারাজনের ‘নীলকুয়িল’। তবে এই সবগুলো সিনেমাকে পিছিনে ফেলে সুপারস্টার রজনীকান্তের সিনেমাটি বক্স অফিসে সবচেয়ে বেশী ব্যবসা সফল হয়েছিলো।

- Advertisement -

সুপারস্টার রজনীকান্তের

২। থালাপাথি (১৯৯১)
সুপারস্টার রজনীকান্তকে নিয়ে তামিলের আলোচিত নির্মাতা মনি রত্নমের একমাত্র সিনেমা ‘থালাপাথি’ মুক্তি পেয়েছিলো ১৯৯১ সালের দিওয়ালীতে। মহাভারতের একটি পুনরুক্তিমূলক গ্যাংস্টার ভিত্তিক এই সিনেমাটিতে রজনীকান্তকে অসাধারনভাবে উপস্থাপন করা হয়েছিলো। দিওয়ালী উপলক্ষ্যে ১৯৯১ সালে ৫ই নভেম্বর একসাথে ৯টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছিলো। বক্স অফিসে কমল হাসানের ‘গুনা’, বিজয়কান্তের ‘মুন্দ্রেঝুথিল এন মুচিরুক্কুম’, সত্যরাজের ‘ব্রাম্মা’, কে ভাগ্যরাজের ‘রুদ্র’, প্রভুর ‘থালাট্টু কেকুথাম্মা’ এবং রামারাজনের ‘নেনজামুন্ডু নেরমাইউন্ডু’ সিনেমাগুলোর সাথে ‘থালাপাথি’ এর সংঘর্ষ হয়েছিল!

- Advertisement -

৩। ম্যাপিল্লাই (১৯৮৯)
১৯৮৯ সালের ২৮শে অক্টোবর মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ম্যাপিল্লাই’ সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে টানা ২০০ দিন সফলতার সাথে প্রদর্শিত হয়েছিলো। সিনেমাটি তেলুগু মেগাস্টার চিরঞ্জীবী অভিনীত ‘আত্তাকু ইয়ামুদু আম্মায়িকি মোগুদু’ সিনেমার তামিল রিমেক ছিলো। ‘ম্যাপিল্লাই’ সিনেমায় চিরঞ্জীবীকে অতিথি শিল্পী হিসেবে দেখা গেছে। বক্স অফিসে এই সিনেমা কমল হাসান এবং প্রভু অভিনীত ‘ভেত্রি ভিজা’ সিনেমার মুখোমুখি হয়েছিলো। তবে এবারও, কমল হাসানকে পিছনে ফেলে ৮০ দশক সফলভাবে শেষ করেছিলেন সুপারস্টার রজনীকান্ত।

৪। মনিথান (১৯৮৭)
১৯৮৭ সালের ২১শে অক্টোবর মুক্তিপ্রাপ্ত সুপারস্টার রজনীকান্তের ‘মনিথান’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন এসপি মুথুরমন। আর এই বছর দিওয়ালীতে আরো একবার মুখোমুখি হয়েছিলেন তামিল সিনেমার দুই সুপারস্টার রজনীকান্ত এবং কমল হাসান। সুপারস্টার রজনীকান্তের ‘মনিথান’ সিনেমার সাথে বক্স অফিসে মুখোমুখি হয়েছিলো কমল হাসান অভিনীত ‘নায়কান’। মনি রত্নম পরিচালিত সিনেমাটিকে তামিলের অন্যতম ক্ল্যাসিক সিনেমা হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। তবে শেষ পর্যন্ত দুটি সিনেমাই বক্স অফিসে ভালো ব্যবসা করতে সক্ষম হয়েছিলো।

সুপারস্টার রজনীকান্তের

৫। থাঙ্গা মাগন (১৯৮৩)
১৯৮৩ সালের ৪ঠা নভেম্বর দিওয়ালীতে মুক্তি পায়েছিলো সুপারস্টার রজনীকান্তের সিনেমা ‘থাঙ্গা মাগন’। ৩৮ বছর পর দিওয়ালী উপলক্ষ্যে ২০২১ সালের একই দিনে মুক্তি পাচ্ছে এই তারকার নতুন সিনেমা ‘আন্নাথে’। ভারতের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ি সুপারস্টার হিসেবে রজনীকান্তের অবস্থান পরিষ্কার করে ‘থাঙ্গা মাগন’। এই সিনেমাটিও বক্স অফিসে আরো দুইটি বড় সিনেমার সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছিলো। ১৯৮৩ সালে দিওয়ালীতে ‘থাঙ্গা মাগন’ সিনেমার সাথে আরো মুক্তি পেয়েছিলো কমল হাসানের ‘থুনগাঠে থামবি থুনগাথে’ এবং শিবাজি গণেসানের ‘ভেলাই রোজা’ সিনেমা দুটির সাথে।

প্রিয় পাঠক সুপারস্টার রজনীকান্ত অভিনীত উপরে উল্লেখিত সিনেমাগুলোর মধ্যে কোন সিনেমাটি আপনার কাছে বেশী ভালো লেগেছে, তা আমাদের জানিয়ে দিন মন্তব্যে। আর এই সিনেমাগুলোর মধ্যে কোন সিনেমা আপনার না দেখা থাকলে এখনই বসে পরুন আর উপভোগ করুন সুপারস্টার রজনীকান্তের সুপারহিট সব দিওয়ালী মুক্তি।

আরো পড়ুনঃ
দিওয়ালীতে ঝড় তুলতে দুই ভাষায় আসছে সুপারস্টার রজনীকান্তের ‘আন্নাথে’
বয়সের বিশাল পার্থক্য নিয়ে পর্দায় রোমান্স করা দক্ষিনি সিনেমার অদ্ভুত জুটি
থালাপাতি ৬৬: তৃতীয়বারের মতো একসাথে থালাপাতি বিজয় এবং কীর্তি সুরেশ

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ