অন্য ভাষায় রিমেক হওয়া ‘বাহুবলী’ তারকা প্রভাসের আলোচিত তেলুগু সিনেমা

অন্য ভাষায় রিমেক হওয়া

তেলুগু সিনেমার স্বপ্নবাজ পরিচালক এসএস রাজামৌলীর ‘বাহুবলী’ সিরিজ দিয়ে রাতারাতি প্যান ইন্ডিয়া তারকা হয়ে গেছেন তেলুগু সুপারস্টার প্রভাস। বর্তমানে এই তারকার নির্মানাধীন সবগুলো সিনেমাই নির্মিত হচ্ছে প্যান ইন্ডিয়া দর্শকদের কথা চিন্তা করে। এর আগে প্রভাসের কয়েকটি সিনেমা হিন্দিতে ডাবিং হলেও সেগুলো তেমন জনপ্রিয়তা পায়নি। তবে প্রভাস অভিনীত বেশ কয়েকটি সিনেমা পরবর্তিতে অন্য ভাষায় রিমেক হতে দেখা গেছে। এই তালিকায় হিন্দি থেকে রয়েছে বাংলাদেশের সিনেমাও। অন্য ভাষায় রিমেক হওয়া ‘বাহুবলী’ তারকা প্রভাসের ৬টি আলোচিত তেলুগু সিনেমার বিস্তারিত থাকছে এই প্রতিবেদনে।

- Advertisement -

অন্য ভাষায় রিমেক হওয়া

১। রাঘবেন্দ্র
বর্ষীয়ান নির্মাতা সুরেশ কৃষ্ণ পরিচালিত তেলুগু সিনেমা ‘রাঘবেন্দ্র’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০০৩ সালে। অ্যাকশন নির্ভর সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রভাস, অংশু এবং শ্বেতা আগরওয়াল। সিনেমাটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন মানি শর্মা। টলিউডে সিনেমাটি মোটামুটি ব্যবসা করতে সক্ষম হয়েছিলো। পরবর্তিতে সিনেমাটি ঢালিউড এবং বলিউডে রিমেক হয়েছিলো। ঢালিউডে ‘লাভার নাম্বার ১’ নামে নির্মিত এই সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন বাপ্পী চৌধরী এবং পরীমনি। আর হিন্দিতে সিনেমাটি নির্মান করেছেন নির্মাতা সুরেশ কৃষ্ণ নিজেই। ‘রকিঃ দ্যা রেভেল’ নামে এই সিনেমায় অভিনয় করেছেন জায়েদ খান এবং ঈশা শারবানী।

- Advertisement -

২। বর্ষম
২০০৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তেলুগু রোম্যান্টিক একশন সিনেমা ‘বর্ষম’ পরিচালনা করেছেন সোবহান। সুমন্ত আর্ট প্রোডাকশনের ব্যনারে সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন এমএস রাজু। ‘বর্ষম’ সিনেমাটি প্রভাসের প্রথম ব্লকবাস্টার সিনেমা হওয়ার পাশাপাশি ওই বছরের সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা ছিলো। সিনেমাটির দুর্দান্ত বক্স অফিস সাফল্যে অনেক নির্মাতা অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মান করেছেন এই সিনেমা রিমেক। সিনেমাটি তামিল ভাষায় ‘মাজহাই’, ওড়িয়া ভাষায় ‘বারসা মাই ডার্লিং’ এবং হিন্দি ভাষায় ‘বাগি’ নামে রিমেক হয়েছিলো। এরমধ্যে টাইগার শ্রফ এবং শ্রদ্ধা কাপুর অভিনীত ‘বাগি’ সিনেমাটি ‘বর্ষম’ সিনেমার মতো বক্স অফিসে সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো।

অন্য ভাষায় রিমেক হওয়া

৩। ছত্রপাঠী
এসএস রাজামৌলী পরিচালিত তেলুগু অ্যাকশন সিনেমা ‘ছত্রপাঠী’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০০৫ সালে। সিনেমাটিতে প্রভাসের বিপরীতে অভিনয় করেছেন শ্রিয়া সরণ। জানা গেছে বিনিয়োগের চেয়ে বক্স অফিসে প্রায় তিনগুন বেশী আয় করেছিলো সিনেমাটি। ‘ছত্রপাঠী’ সিনেমায় প্রথমবারের মতো একসাথে কাজ করেছিলেন এসএস রাজামৌলী এবং প্রভাস। পরবর্তিতে আরো কয়েকটি ভাষায় রিমেক হয়েছিলো এই সিনেমাটি। রিমেক সিনেমাগুলোর মধ্যে রয়েছে বাংলা ভাষায় ‘রিফিউজি’ এবং কান্নড় ভাষায় একই নামে নির্মিত সিনেমা। এদিকে এই হিন্দিতে সিনেমাটির রিমেক বর্তমানে নির্মানাধীন রয়েছে। ‘ছত্রপাঠী’ নামে এই সিনেমাটির মাধ্যমে হিন্দি সিনেমায় অভিষিক্ত হচ্ছেন বেল্লামকোন্ডা সাই শ্রীনিবাস।

৪। মিরচি
২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত অ্যাকশন ড্রামা ‘মিরচি’ সিনেমাটি লিখেছেন এবং পরিচালনা করেছেন অভিষিক্ত নির্মাতা কোরতলা শিবা। ইউভি ক্রিয়েশনসের ব্যনারে নির্মিত সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন প্রমোদ উৎপলপতি এবং ভি.বামসি কৃষ্ণ রেড্ডি। বেশ কয়েকটি পুরষ্কার জেতার পাশাপাশি ওই বছরের অন্যতম ব্যবসা সফল সিনেমা ছিলো প্রভাস অভিনীত ‘মিরচি’। সিনেমাটি পরবর্তিতে ‘মানিক্যা’ নামে কান্নড়, ‘বিন্দাস’ নামে বাংলা এবং ‘বিশ্বনাথ’ নামে ওড়িয়া ভাষায় রিমেক হয়েছিলো। এছাড়া জানা গেছে ‘মিরচি’ সিনেমাটির হিন্দি রিমেক স্বত্ব কিনেছেন বলিউড তারকা জন আব্রাহাম। তবে হিন্দিতে সিনেমাটির কাজ এখনো শুরু হয়নি।

অন্য ভাষায় রিমেক হওয়া

৫। ডার্লিং
২০১০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত রোম্যান্টিক কমেডি সিনেমা ‘ডার্লিং’ পরিচালনা করেছেন এ করুণাকরণ। শ্রী ভেঙ্কটেশ্বর সিনে চিত্র প্রতিষ্ঠানটির ব্যনারে সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন বিভিএসএন প্রাসাদ। সিনেমাটিতে প্রভাস ছাড়াও অভিনয় করেছেন কাজল আগারওয়াল এবং প্রভু দেবা। সিনেমাটি বক্স অফিসে সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো। পরবর্তিতে সিনেমাটি কান্নড় ভাষায় ‘বুলবুল’ নামে রিমেক হয়েছিলো। ‘বুলবুল’ সিনেমার প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন দর্শন ও রচিত রাম। এছাড়া হিন্দিতে সিনেমাটি ‘সাবসে বারকার হাম’ নামে ডাবিং করে মুক্তি দেয়া হয়েছিলো।

৬। রেবেল
রাঘব লরেন্স পরিচালিত অ্যাকশন সিনেমা ‘রেবেল’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০১২ সালে। সিনেমাটিতে প্রভাসের বিপরীতে অভিনয় করেছেন তামান্না ভাটিয়া। সিনেমাটি বক্স অফিসে সফলতা অর্জন করতে পারনি। তবে প্রভাসের স্টাইল এবং সিনেমাটির অ্যাকশন দৃশ্যগুলো ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছিলো। প্রতিশোধের গল্প নিয়ে নির্মিত সিনেমাটি পরবর্তিতে রিমেক হয়েছিলো বাংলাদেশে। ‘হিরোঃ দ্যা সুপারস্টার’ নামে এই রিমেক সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন বদিউল আলম খোকন। আর সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। অভিনয়ের পাশাপাশি সিনেমাটি প্রযোজনাও করেছেন শাকিব খান। শাকিব সাথে সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করেছেন অপু বিশ্বাস এবং ববি হক।

প্রিয় পাঠক, উপরে উল্লেখিত প্রভাস অভিনীত সিনেমাগুলোর মধ্যে কোন সিনেমাটি আপনার বেশী পছন্দের তা আমাদের জানিয়ে দিন মন্তব্যে। এছাড়া রিমেক হওয়া সিনেমাগুলোর মধ্যে কোন সিনেমাটি আপনার ভালো লেগেছে তাও জানিয়ে দিতে পারেন মন্তব্যে।

আরো পড়ুনঃ
নতুন সিনেমার পারিশ্রমিক দিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করছেন ‘বাহুবলী’ তারকা প্রবাস!
তেলুগু সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির চেহারা বদলে দিয়েছে যে সিনেমা (দ্বিতীয় পর্ব)
অজিত কুমারের ‘ভালিমাই’ সিনেমার মুক্তির তারিখ জানালেন বনি কাপুর

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ