তামিল থেকে রিমেক হওয়া সেরা দশটি সিনেমার ক্রমিক তালিকা

তামিল থেকে রিমেক

‘বিক্রম ভেদা’ থেকে ‘সুরারাই পোত্রু’ সহ বেশ কয়েকটি তামিল সিনেমা রিমেক হচ্ছে বলিউডে। এছাড়া তামিল থেকে রিমেক হওয়া আরো কয়েকটি সিনেমা বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। তবে তামিল থেকে শুধু বুলউডে নয়, নির্মিত হচ্ছে ভারতের অন্য ভাষায়ও। তবে সব ক্ষেত্রেই যে অরিজিনাল সিনেমা থেকে হুবহু রিমেক হয় সেরকম নয়। কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায় মুল সিনেমার গল্পকে ঠিক রেখে চিত্রনাট্যে পরিবর্তন করে নিজেদের দর্শকদের জন্য উপযুক্ত করে রিমেক করা হয়ে থাকে সিনেমাগুলো। উদাহরণ স্বরূপ বলা যায় ‘নারাপ্পা’ সিনেমাটি তামিল ‘আশুরান’ এর মত করেই নির্মিত হয়েছে। কিন্তু ‘কাঠথি’ সিনেমাটি চিরঞ্জীবীর স্টারডম বিবেচনায় কিছুটা পরিবর্তন করে তেলুগুতে নির্মিত হয়েছিলো ‘কয়েদি নাম্বার ১৫০’ নামে।

- Advertisement -

তবে রিমেক সবসময়ই যে ভালো হয়ে থাকে বিষয়টা সেরকম নয়। যেমন তামিলের প্রশংসিত সিনেমা ‘মুধলভান’ হিন্দিতে ‘নায়ক’ নামে রিমেক করেছিলেন নির্মাতা শঙ্কর। কিন্তু তামিল সিনেমাটির মত তেমন আলোচিত হয়নি অনিল কাপুর অভিনীত ‘নায়ক’। অন্যদিকে এ আর মুরুগুদাস একই নামে তার তামিল ‘গজনী’ রিমেক করেছিলেন আমির খানকে নিয়ে। তামিল সিনেমার চেয়ে নির্মানের দিক থেকে হিন্দি সিনেমাটি অনেক উন্নতমানের বলে মনে করেন অনেকে। আর বক্স অফিসেও দুর্দান্ত ব্যবসা করতে সক্ষম ছিলো আমির খান অভিনীত ‘গজনী’। সাম্প্রতিক সময়ে তামিল থেকে অন্য ভাষায় নির্মিত সেরা দশটি সিনেমা নিয়ে আজাকের প্রতিবেদন।

১০। নারাপ্পা (তামিল – আশুরান)
শ্রীকান্ত আডালা পরিচালিত ‘নারাপ্পা’ সিনেমাটি তামিল ‘আশুরান’ সিনেমার হুবহু রিমেক ছিলো। শুধুমাত্র সামাজিক বিষয়বস্তু বিবেচনায় সংলাপে কিছু পরিবর্তন করা হয়েছিলো। জাতিগত দ্বন্দ্ব নিয়ে ভেত্রিমারন পরিচালিত ‘আশুরান’ সিনেমাটির তেলুগু এই রিমেকেও একই ভাবে উঠে এসেছে। এছাড়া পর্দায় নিজের চরিত্র ফুটিয়ে তুলতে ভেঙ্কটেশ হেঁটেছেন ধনুশে পথেই। তামিল ‘আশুরান’ সিনেমার মত তেলুগু ‘নারাপ্পা’ সিনেমাটিও প্রশংসিত হয়েছে দর্শক সমালোচকদের কাছে।

- Advertisement -

০৯। গডফাদার (তামিল – ভারালারু)
নির্মাতা কেএস রবিকুমার সুপারস্টার অজিত কুমারকে নিয়ে নির্মান করেছিলেন ‘ভারালারু’। সিনেমাটিতে অজিত কুমারকে তিনটি চরিত্রে দেখা গেছে – একজন ভারতনাট্যম নৃত্যশিল্পী এবং তার দুই জমজ সন্তান। অজিতের দুর্দান্ত অভিনয়ের কারনে বক্স অফিসে সফলতার পাশাপাশি সমালোচকদেরও প্রশংসা কুঁড়াতে সক্ষম হয়েছিলো। পরবর্তিতে সিনেমাটি কন্নড় ভাষায় রিমেক করেছিলেন নির্মাতা সেতু শ্রীরাম। ‘গডফাদার’ নামে সিনেমাটি উপেন্দ্রর দুর্দান্ত অভিনয়ের কারনে ‘ভারালারু’ সিনেমার মতই প্রশংসিত হয়েছিলো।

০৮। কয়েদি নাম্বার ১৫০ (তামিল – কাঠথি)
এআর মুরুগুদাস পরিচালিত ‘কাঠথি’ সিনেমাটিতে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেন তামিল সুপারস্টার থালাপাতি বিজয়। ভূগর্ভস্থ পানি নিয়ে সিনেমাটির গল্পে একজন অপরাধী এবং সমাজকর্মীর চরিত্রে দেখা গেছে বিজয়কে। এদিকে ভিভি বিনায়েক পরিচালিত সিনেমাটির তেলুগু রিমেকে অভিনয় করেন মেগাস্টার চিরঞ্জীবী। ‘কয়েদি নাম্বার ১৫০’ নামে নির্মিত সিনেমাটিতে চিরঞ্জীবীর স্টারডামের সাথে সামঞ্জস্য রেখেই কিছুটা ভিন্নভাবে নির্মান করেছিলেন বিনায়েক। ফলশ্রুতিতে ২০১৭ সালের অন্যতম ব্যবসা সফল সিনেমা হিসেবে আবির্ভুত হয়েছিলো ‘কয়েদি নাম্বার ১৫০’।

০৭। সুরিয়াবংশম (তামিল – সুরিয়াবংশম)
অ্যাকশন তারকা শরতকুমার অভিনীত ড্রামা ভিত্তিক ‘সুরিয়াবংশম’ নামের তামিল সিনেমায় একজন অশিক্ষিত এক সন্তান এবং তার বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সিনেমাটি হিন্দিতে রিমেক করেন ইভিভি সত্যনারায়ণ। হিন্দি ‘সুরিয়াবংশম’ সিনেমায় দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেন অমিতাভ বচ্চন। মূল তামিল সিনেমাটির মত হিন্দি রিমেক সিনেমাটিও দর্শকনন্দিত হয়েছিলো।

০৬। চাচি ৪২০ (তামিল – আভভি শানমুগি)
কেএস রবিকুমার পরিচালিত তামিল সিনেমা ‘আভভি শানমুগি’ হিন্দিতে রিমেক করেছিলেন খ্যাতিমান অভিনেতা কমল হাসান। হিন্দিতে পুনঃনির্মিত কমেডি নির্ভর সিনেমাটির নাম ‘চাচি ৪২০’। পারিবারিক দ্বন্ধের সিনেমাটিতে নিজের সন্তানের কাছাকাছি থাকতে নারীর রূপে দেখা গেছে কমল হাসানকে। আর তার শ্বশুর গেমিনি গনেশান চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউডের শক্তিমান প্রয়াত অভিনেতা অমরেশ পুরি। মূল তামিল সিনেমার মত বলিউডের সিনেমাটিও দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো।

০৫। ধ্রুব (তামিল – থানি অরুভান)
মোহন রাজা পরিচালিত ‘থানি অরুভান’ সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন জায়াম রবি এবং অরবিন্দ স্বামী। নিজের মানসিক শক্তিকে কাজে লাগিয়ে একজন অপরাধীকে এককভাবে মোকাবেলার গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছিলো সিনেমাটি। ‘থানি অরুভান’ সিনেমাটির তেলুগু সংস্করণে অভিনয় করেন রাম চরন। ‘ধ্রুব’ নামের এই সিনেমায় আরো অভিনয় করেন আরবিন্দ স্বামী এবং রাকুল প্রীত সিং। নির্মাতা সুরিন্দর রেড্ডি মুল তামিল সিনেমা থেকে কিছুটা পরিবর্তন করে নির্মান করেন এর তেলুগু সংস্করণ। তামিল সিনেমার সিদ্ধার্ত অভিমন্যুর চরিত্রটিতে কিছুটা পরিবর্তন আনেন সিনেমাটির তেলুগু সংস্করণের নির্মাতা সুরিন্দর রেড্ডি।

০৪। গজনী (তামিল – গজনী)
হলিউডের আলোচিত নির্মাতা ক্রিস্টফার নোলান পরিচালিত ‘মেমেন্টো’ সিনেমার উপর ভিত্তি করে পরিচালক এআর মুরুগুদাস নির্মান করেছিলেন তামিল সিনেমা ‘গজনী’। সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সুরিয়া। পরবর্তিতে ২০০৮ সালে মুরুগুদাস একই নামে সিনেমাটির হিন্দি সংস্করণ নির্মান করেন। সিনেমাটিতে অভিনয় করেন আমির খান। ২০০৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাটি বক্স অফিসে ঝড় তুলে বলিউডের প্রথম সিনেমা হিসেবে ১০০ কোটি রুপি আয় করা প্রথম সিনেমা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছিলো। ‘গজনী’ সিনেমাকে রিমেক হওয়া অন্যতম সেরা সিনেমাগুলোর একটি হিসবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে।

০৩। ভিরাসাত (তামিল – তেভার মাগান)
ভারাথানের তামিল সিনেমা ‘তেভার মাগান’ এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন কমল হাসান। ঠাকুর বাবা এবং তার ছেলের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছিলো এই সিনেমা। ‘তেভার মাগান’ সিনেমাটি হিন্দিতে ‘ভিরাসাত’ নামে নির্মান করেছিলেন নির্মাতা প্রিয়দর্শন। ‘ভিরাসাত’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন অনিল কাপুর, টাবু এবং অমরেশ পুরি। সিনেমাটি ১৯৯৭ সালের অন্যতম অন্যতম সেরা ব্যবসা সফল সিনেমাগুলোর একটি ছিলো।

০২। সাথিয়া (তামিল – আলাইপায়ুথে)
মনি রত্নম পরিচালিত নতুন প্রজন্মের সিনেমা ‘আলাইপায়ুথে’। বাবা-মায়ের অমতে বিয়ে করা এক যুগলের বিয়ের পরের ঘটনা নিয়ে নির্মিত সিনেমাটি দর্শক সমালোচকদের কাছে দারুন গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো। শুধু তাই নয়, সিনেমাটি তামিলে আধুনিক সম্পর্কের সমীকরনের এক নতুন ধারা তৈরি করেছিলো। ‘আলাইপায়ুথে’ সিনেমাটির হিন্দি সংস্করণে অভিনয় করেন বিবেক অরেরয় এবং রানী মুখার্জি। বলিউডের রোম্যান্টিক সিনেমাগুলোর মধ্যে অন্যতম সেরা সিনেমা হিসেবে বিবেচনা করা হয় ‘সাথিয়া’ সিনেমাকে।

০১। সাদমা (তামিল – মন্দ্রাম পিরাই)
বালু মাহেন্দ্র পরিচালিত ট্র্যাজিক সিনেমা ‘মন্দ্রাম পিরাই’ ছিনু (কমল হাসান) এবং ভিজি (শ্রিদেবি) নামে দুজন মানুষের প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে নির্মিত। সিনেমাটির ক্লাইম্যাক্সে ভিজির কাছে নিজেকে চেনাতে কমল হাসানের বানরের অভিনয় সবাইকে মুগ্ধ করেছিলো বিশেষভাবে। একই শিল্পীদের নিয়ে হিন্দিতে সিনেমাটি ‘সাদমা’ নামে রিমেক হয়েছিলো। মূল তামিল সিনেমার মত হিন্দি ‘সাদমা’ সিনেমাটিও ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়েছিলো। তামিল এবং হিন্দি দুই ভাষার অন্যতম জনপ্রিয় রোম্যান্টিক সিনেমা হিসেবে স্বকৃত এই সিনেমা।

প্রিয় পাঠক, উপরে উল্লেখিত সিনেমাগুলোর মধ্যে কয়টি সিনেমা আপনি দেখেছেন সেটা জানিয়ে দিতে পারেন আমাদের। এছাড়া এর বাইরে তামিল থেকে রিমেক হওয়া আর কোন সিনেমা এই তালিকায় থাকা উচিৎ বলে মনে করছেন তাও জানিয়ে দিন আমাদের।

আরো পড়ুনঃ
তামিল রিমেক: যে আলোচিত সিনেমাগুলো বক্স অফিসে ছিলো পুরোপুরি ব্যর্থ!
শেষ হচ্ছে ‘রাধে শ্যাম’: আপডেট জানালেন নায়িকা পূজা হেগ নিজেই
শঙ্করের নতুন সিনেমায় রাম চরনের বিপরীতে অভিনয় করছেন কিয়ারা আদভানি

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ