বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে হাজার কোটি ছাড়িয়ে অনন্য এক উচ্চতায় ‘পাঠান’

হাজার কোটি ছাড়িয়ে

মুক্তির পর থেকেই রেকর্ডের পর রেকর্ড গড়ে চলেছে শাহরুখ খান অভিনীত ‘পাঠান’ সিনেমাটি। ইতিমধ্যে বলিউড সিনেমা হিসেবে বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে সব রেকর্ড দখলে নিয়েছে এই সিনেমা। এছাড়া হিন্দি সিনেমা হিসেবে একাধিক রেকর্ড গড়েছে সাম্প্রতিক সময়ের অন্যতম আলোচিত এই সিনেমাটি। সম্প্রতি জানা গেছে বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ‘পাঠান’ সিনেমার আয় ১০০০ কোটি রুপি ছাড়িয়ে গেছে। এর মাধ্যমে বলিউড সিনেমা হিসেবে অনন্য এক উচ্চতায় পৌঁছে গেছে শাহরুখ খানের প্রত্যাবর্তনের সিনেমা ‘পাঠান’।

মুক্তির চতুর্থ সপ্তাহান্তেও বক্স অফিসে আয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছে সিনেমাটি। তিন সপ্তাহ জুড়ে বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ঝড় তোলার পর চতুর্থ শুক্রবার প্রতিযোগিতার মুখে পরেছিলো সিনেমাটি। এদিন মুক্তি পেয়েছিলো কার্তিক আরিয়ানের ‘শাহজাদা’ এবং মার্ভেলের ‘এন্টম্যান’ সিনেমাগুলো। কিন্তু নতুন দুই সিনেমার সাথে প্রতিযোগিতা করেও চতুর্থ সপ্তাহান্তে সিনেমাটি ভালো আয় করতে সক্ষম হয়েছে। ‘শাহজাদা’ এবং ‘এন্টম্যান’ সিনেমাগুলোর তুলনায় চতুর্থ শনিবার এবং রবিবার সিনেমাটির আয়ে দারুণ প্রগতি লক্ষ্য করা গেছে।

মুক্তির চতুর্থ সপ্তাহান্তে ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির আয়ের পরিমাণ ছিলো ৯.৫০ কোটি রুপি। দুটি আলোচিত সিনেমার সাথে পাল্লা দিয়ে সপ্তাহান্তে দারুণ আয়ের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয়েছিলো সিনেমাটি। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত ‘পাঠান’ বক্স অফিস প্রতিবেদন অনুযায়ী চতুর্থ সোমবার ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির আয়ের পরিমাণ দাঁড়াবে ১.২০ কোটি রুপি। এর মাধ্যমে গ্রোস আয়ের হিসেবে বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে হাজার কোটি ছাড়িয়ে অনন্য এক উচ্চতায় পৌঁছে যাবে ‘পাঠান’।

চতুর্থ সপ্তাহান্ত শেষে বিশ্বব্যাপী সিনেমাটির মোট আয় ছিলো ৯৯৬ কোটি রুপি। চতুর্থ সোমবার শেষে বিশ্বব্যাপী সিনেমাটির আয় ১০০০ কোটি রুপি ছাড়িয়ে যাওয়া নিশ্চিত বলে মনে করছেন বলিউডের ট্রেড বিশেষজ্ঞরা। চতুর্থ সপ্তাহান্ত শেষে সিনেমাটির মোট গ্রোস আয়ের হিসেব নীচে দেওয়া হলো –
ভারতীয় বক্স অফিসে নেট – ৫১৫.৬৭ কোটি রুপি
ভারতীয় বক্স অফিসে গ্রোস – ৬২১ কোটি রুপি
আন্তর্জাতিক বক্স অফিসে গ্রোস – ৩৭৫ (৪৫.৭৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার)
বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে গ্রোস – ৯৯৬ কোটি রুপি

যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া এবং মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কয়েকটি দেশে মাত্র ১৬ দিনেই সর্বকালের সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হিসেবে আবর্ভুত হয়েছে সিনেমাটি। তবে চীনের অস্বাভাবিক আয়ের মাধ্যমে এই তালিকায় সবচেয়ে এগিয়ে আছে আমির খানের ‘দাঙ্গাল’। বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে গ্রোস আয়ের হিসেবে শীর্ষ পাঁচটি সিনেমার তালিকা নিম্নরূপ –

ক্রম সিনেমার নাম কোটি রুপিতে গ্রোস আয়
০১ দাঙ্গাল ১৯২৪.৭
০২ বাহুবলীঃ দ্য কনক্লুশন ১৭৪৯.০
০৩ কেজিএফ চ্যাপ্টার ২ ১২০৭.০
০৪ আরআরআর ১১৯০.০
০৫ পাঠান* ৯৯৬
*মুক্তির ২৬ দিনের আয়।

তবে এই তালিকার বাকী চারটি সিনেমার তুলনায় ‘পাঠান’ সিনেমার ১০০০ কোটি রুপি আয় বলিউড সিনেমার জন্য একটি অনন্য বিষয়। আমির খানের ‘দাঙ্গাল’ সিনেমাটি ভারতের নিয়মিত আন্তর্জাতিক বাজার থেকে আয় করেছিলো ৭০০ কোটি রুপির একটু বেশী। সিনেমাটির বিশ্বব্যাপী আয়ের বড় অংশ এসেছে চায়না থেকে। চীন বলিউড সিনেমার জন্য নিয়মিত কোন বাজার নয়। তাই নিয়মিত বাজার বিবেচনা করলে প্রথম ভারতীয় সিনেমা হিসেবে বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১০০০ কোটি রুপি আয়ের রেকর্ড গড়েছে ‘পাঠান’ সিনেমাটি।

অন্যদিকে তালিকার বাকী তিনটি সিনেমাই হচ্ছে দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমা। যার মধ্যে ‘বাহুবলীঃ দ্য কনক্লুশন’ এবং ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ২’ সিনেমাগুলোর বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে এই আয়ের মূল কারণ হচ্ছে  সিনেমাগুলোর প্রথম পর্বের ঐতিহাসিক সাফল্য। এছাড়া দক্ষিণ ভারতীয় এই সিনেমাগুলোর আয়ের বড় একটি অংশ এসেছে হিন্দি সংস্করণ থেকে, যেখানে ‘পাঠান’ সিনেমার আয়ের প্রায় পুরোটাই এসেছে এর হিন্দি সংস্করণ থেকে। আর ‘বাহুবলী’ সিরিজের পর রাজামৌলী পরিচালিত ‘আরআরআর’ সবার আগ্রহের শীর্ষে ছিলো। ফ্র্যাঞ্চাইজি, রাজামৌলী এবং চীন বিবেচনা করলে ‘পাঠান’ সিনেমার সাফল্য একটি অনন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে।

ভারতীয় বক্স অফিসে ৫০০ কোটি রুপি আয় (সব ভাষায়)-এর পর এই মুহুর্তে শাহরুখ খানের ‘পাঠান’ সিনেমাটির সামনে নতুন মাইলফলক অপেক্ষা করছে। সেটি হচ্ছে, ভারতীয় বক্স অফিসে শুধুমাত্র হিন্দিতে ৫০০ কোটি রুপি আয়। চতুর্থ সপ্তাহে প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটির আয়ের ধারাবাহিকতা বিবেচনা করলে এই মাইলফলক অতিক্রম করাও সময়ের ব্যাপার বলে মনে করছেন ট্রেড বিশেষজ্ঞরা। খুব শীগ্রই হিন্দিতে ‘বাহুবলীঃ দ্য কনক্লুশন’ সিনেমাকে পিছনে ফেলে সর্বকালের সর্বোচ্চ আয়ের হিন্দি সিনেমা হতে যাচ্ছে ‘পাঠান’।

প্রসঙ্গত, শাহরুখ খানের বড় পর্দায় প্রত্যাবর্তনের সিনেমাকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রস্তুত ছিলেন ভক্তরা। তাই এর নির্মাতা যশ রাজ ফিল্মস সিনেমাটির মুক্তি দিয়েছে বিশাল আয়োজনে। প্রথমে ভারতে ৫,২০০ স্ক্রিনে মুক্তির পর দর্শকদের চাহিদার কারনে প্রথম দিনে আরো ৩০০ স্ক্রিন বাড়াতে বাধ্য হয়েছিলেন প্রদর্শকরা। এছাড়া ভারত ছাড়া বিশ্বের ১০০ দেশে সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে ২,৫০০ স্ক্রিনে। সব মিলিয়ে বিশ্বব্যাপী মোট ৮,০০০ স্ক্রিনে মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত এই সিনেমাটি।

উল্লেখ্য যে, যশ রাজ ফিল্মসের স্পাই ইউনিভার্সের অংশ হিসেবে নির্মিত হয়েছে শাহরুখের ‘পাঠান’ সিনেমাটি। শাহরুখ খানের সাথে এই সিনেমায় আরো অভিনয় করেছেন দীপিকা পাডুকোন এবং জন আব্রাহাম। দীপিকাকে সিনেমাটিতে পাকিস্থানের গোয়েন্দা সংস্থার একজন কর্মকর্তা চরিত্রে দেখা গেছে। আর এতে জন আব্রাহাম থাকছেন নেতিবাচক চরিত্রে। এছাড়া এতে অতিথি চরিত্রে হাজির হচ্ছেন বলিউডের ভাইজান সালমান খান। আর সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন ‘ওয়ার’ খ্যাত নির্মাতা সিদ্ধার্ত আনন্দ।

আরো পড়ুনঃ
দর্শক টানতে ব্যর্থ ‘শাহজাদা’: দর্শক চাহিদায় প্রেক্ষাগৃহে বাড়ছে ‘পাঠান’ প্রদর্শনী
বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১০০ কোটির যত রেকর্ড গড়েছে শাহরুখ খানের ‘পাঠান’
তৃতীয় সপ্তাহে ‘পাঠান’: সর্ব ভারতীয় বক্স অফিসে চতুর্থ এবং বিশ্বব্যাপী পঞ্চম

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d