তৃতীয় শুক্রবার বক্স অফিসে ভালো অবস্থানে ‘গাদার ২’: ৫০০ কোটি নিশ্চিত

তৃতীয় শুক্রবার বক্স অফিসে

সানি দেওল এবং আমিশা পাটেল অভিনীত ‘গাদার ২ – দ্য প্রেম কথা কন্টিনিউস’ সিনেমাটি মুক্তির পর বক্স অফিসে সুনামি হিসেবে হাজির হয়েছে। মুক্তি প্রথম দিনেই সব প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে প্রায় ৪০ কোটি রুপি আয়ের মাধ্যমে বলিউড বক্স অফিসের ইতিহাস নতুন করে লিখেছে বহুল আলোচিত এই সিনেমা। এছাড়া পাঁচ দিনের ছুটির সপ্তাহান্ত শেষে ষষ্ট দিনে সিনেমাটি আয় করেছিলো ৩০ কোটি রুপির বেশী। এর মাধ্যমে বলিউডে চলতি বছরের সবচেয়ে বড় চমক হিসেবে আবির্ভুত হয়েছে ‘গাদার ২’। প্রথম দুই সপ্তাহে রেকর্ড আয়ের পর তৃতীয় শুক্রবার বক্স অফিসে ভালো অবস্থানে  রয়েছে সিনেমাটি। আর এর মাধ্যমে ভারতীয় বক্স অফিসে ৫০০ কোটি আয় অনেকটাই নিশ্চিত করেছে ‘গাদার২’।

প্রথম সপ্তাহান্তে সিনেমাটির বক্স অফিস আয়ে ধারাবাহিকতা বিবেচনা করে, প্রথম সপ্তাহে দুর্দান্ত আয়ের অনুমান করেছিলেন ট্রেড বিশেষজ্ঞরা। তবে স্বাধীনতা দিবসের ছুটির পর স্বাভাবিক কর্মদিবসে সিনেমাটি আবারো সবার প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে গেছে। সব মিলিয়ে স্বাধীনতা দিবসের সপ্তাহে বক্স অফিস রীতিমত তাণ্ডব চালিয়েছে সানি দেওল অভিনীত ‘গাদার ২ – দ্য প্রেম কথা কন্টিনিউস’। নির্মাতাদের সূত্রে জানা গেছে প্রথম সপ্তাহে ভারতীয় বক্স অফিসে ‘গাদার ২’ সিনেমাটি মোট আয় করেছে ২৮৪.৬৩ কোটি রুপি। ‘পাঠান’ সিনেমার পর সাতদিনে এটি ভারতীয় বক্স অফিসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আয়।

অবিশ্বাস্য প্রথম সপ্তাহের পর দ্বিতীয় সপ্তাহেও রেকর্ড আয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছিলো ‘গাদার ২ – দ্য প্রেম কথা কন্টিনিউস’ সিনেমাটি। দ্বিতীয় সপ্তাহের প্রথম তিনদিনে ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটি আয় করেছিলো ৯০ কোটি রুপির বেশী। পরবর্তীতে দ্বিতীয় সপ্তাহের স্বাভাবিক কর্মদিবসগুলোতে আয় কিছুটা কমলেও, তা অনেক ক্ষেত্রে রেকর্ড পরিমাণ ছিলো। সব মিলিয়ে দ্বিতীয় সপ্তাহে ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির মোট আয় ছিলো ১৩৪.৪৭ কোটি রুপি। দ্বিতীয় সপ্তাহের আয়ের হিসেবে এটি ‘বাহুবলীঃ দ্য কনক্লুশন’ সিনেমার পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আয় ছিলো। অন্যদিকে দ্বিতীয় সপ্তাহে ‘পাঠান’ সিনেমার আয় ১০০ কোটি রুপির কম ছিলো।

প্রথম দুই সপ্তাহ রেকর্ড আয়ের পর তৃতীয় সপ্তাহে ‘গাদার ২ – দ্য প্রেম কথা কন্টিনিউস’ সিনেমার আয়ে কিছুটা পতন দেখা গেছে। তবে সেটি খুবই স্বাভাবিক ধারাবাহিকতা ছিলো। অ্যাকশন নির্ভর সিনেমাগুলো দুই সপ্তাহ পর বক্স অফিসে নিম্নমুখী প্রবণতার স্বীকার হয়। এছাড়া তৃতীয় সপ্তাহে মুক্তি পেয়েছে আয়ুষ্মান খোরানা অভিনীত নতুন সিনেমা ‘ড্রীম গার্ল ২’। প্রথম পর্বের দারুণ সাফল্যের কারনে এই সিনেমাটি নিয়ে দর্শকরা বেশ আগ্রহী ছিলেন। তাই তৃতীয় সপ্তাহে সানি দেওল অভিনীত সিনেমাটির পর্দা সংখ্যাও কমেছে অনেকগুলো। এরপর সিনেমাটি বেশ ভালো আয় দিয়ে শুরু করেছে মুক্তির তৃতীয় সপ্তাহ।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে মুক্তির তৃতীয় শুক্রবার ভারতীয় বক্স অফিসে ‘গাদার ২ – দ্য প্রেম কথা কন্টিনিউস’ আয় করেছে ৭ কোটি রুপি। এর মাধ্যমে ১৫দিনে সিনেমাটির মোট আয় ৪২০ কোটি রুপি ছাড়িয়ে গেছে। তৃতীয় শুক্রবার শেষে সিনেমাটির মোট আয়ের হিসবে নীচে দেওয়া হলো –

প্রথম সপ্তাহ ২৮৪.৬৩ কোটি রুপি
দ্বিতীয় সপ্তাহ ১৩৪.৪৭ কোটি রুপি
তৃতীয় শুক্রবার ০৭.০০ কোটি রুপি
মোট (১৫ দিন শেষে) ৪২৬.১০ কোটি রুপি

মুক্তির পর সানি দেওল অভিনীত ‘গাদার ২ – দ্য প্রেম কথা কন্টিনিউস’ সিনেমাটির সাথে শাহরুখ খান অভিনীত ‘পাঠান’ সিনেমার আয়ের তুলনা হচ্ছে। অনেকেই মনে করছেন শেষ পর্যন্ত ‘পাঠান’ সিনেমার মোট আয়কে পিছনে ফেলে বলিউডের ইতিহাসের সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হতে যাচ্ছে ‘গাদার’। তবে ‘পাঠান’ সিনেমার রেকর্ড ভাঙ্গতে না পারলেও ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির ৫০০ কোটি রুপির মাইলফলক অতিক্রম অনেকটাই নিশ্চিত। এখন পর্যন্ত ধারাবাহিকতা বিবেচনা করলে, মুক্তির ষোলতম দিনে সিনেমাটি ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ২’ সিনেমার হিন্দি আয়কে ছাড়িয়ে যাবে। এর মাধ্যমে মাত্র ১৬ দিনে ভারতীয় বক্স অফিসে তৃতীয় সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হিসেবে আবির্ভুত হতে যাচ্ছে এটি।

এর আগে চলতি বছরের ২৫শে জানুয়ারি মুক্তিপ্রাপ্ত ‘পাঠান’ সিনেমাটি বক্স অফিসে সুনামি হিসেবে হাজির হয়েছিলো। মহামারী পরবর্তি বক্স অফিসের অচলাবস্থাকে পিছনে ফেলে বলিউড বক্স অফিসে নতুন প্রাণের সঞ্চার করেছিলো শাহরুখ খান অভিনীত ‘পাঠান’। হিন্দির পাশাপাশি তামিল এবং তেলুগুতেও মুক্তি পেয়েছিলো ‘পাঠান’ সিনেমাটি। সব ভাষা মিলিয়ে ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির আয়ের পরিমাণ ছিলো ৫৪৩ (হিন্দিতে ৫২৪) কোটি রুপি। আর বিশ্বব্যাপী গ্রোস আয়ের হিসেবে সিনেমাটি মোট আয় করেছে ১,০৫০ কোটি রুপি।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বেতাব’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে অভিষেকের পর সময়ের সবচেয়ে বড় অ্যাকশন তারকা হিসেবে আবির্ভুত হয়েছিলেন তিনি। এরপর একের পর এক অ্যাকশন সিনেমা দিয়ে ভারতীয় দর্শকদের কাছে নিজের অবস্থান অন্য উচ্চতায় নিয়ে যান সানি দেওল। ২০০১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘গাদার – এক প্রেম কাঁথা’ সিনেমার মাধ্যমে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন তিনি। এর ২২ বছর পর সিনেমাটির দ্বিতীয় পর্ব দিয়ে আবারো নতুন ইতিহাস লিখতে যাচ্ছেন সানি দেওল। বক্স অফিসে বাম্পার উদ্বোধনীর পর দুর্দান্ত প্রথম সপ্তাহ শেষে বছরের সবচেয়ে বড় হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে ‘গাদার ২’।

আরো পড়ুনঃ
বছরের সবচেয়ে বড় চমক ‘গাদার ২’: প্রথম সপ্তাহে বক্স অফিস সুনামি
ঐতিহাসিক ষষ্ট দিন পার করলো ‘গাদার ২’: ভারতে ৬০০ কোটি রুপি দৃশ্যমান
ভারতীয় বক্স অফিসে ঝড়: আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যর্থ ‘গাদার ২’ ও ‘ওএমজি ২’

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d