ঐতিহাসিক ষষ্ট দিন পার করলো ‘গাদার ২’: ভারতে ৬০০ কোটি রুপি দৃশ্যমান

ঐতিহাসিক ষষ্ট দিন

‘গাদার – এক প্রেম কথা’ সিনেমার সিক্যুয়েল ‘গাদার ২ – দ্য প্রেম কথা কন্টিনিউস’ মুক্তির পর বক্স অফিসে সুনামি হিসেবে হাজির হয়েছে। মুক্তির আগে সিনেমাটি নিয়ে এরকম প্রত্যাশা কেউই করেননি। কিন্তু সানি দেওল অভিনীত এই সিনেমাটি উদ্বোধনী দিনেই সব প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে গেছে। প্রথম দিনে প্রায় ৪০ কোটি রুপি আয়ের মাধ্যমে বলিউড বক্স অফিসের ইতিহাস নতুন করে লিখেছে বহুল আলোচিত এই সিনেমা। ছুটির সপ্তাহান্ত শেষে বক্স অফিসে ঐতিহাসিক ষষ্ট দিন পার করলো ‘গাদার ২’। ইতিমধ্যে ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির ৬০০ কোটি রুপি আয়ের বিষয়টি অনেকটাই নিশ্চিত।

প্রথম দুই দিন ভারতীয় বক্স অফিসে তাণ্ডবের পর মুক্তির তৃতীয় দিন রবিবার ‘গাদার ২’ সিনেমাটি ভারতীয় বক্স অফিসে ৪৭ থেকে ৫০ কোটি রুপি আয় করতে যাচ্ছে। ঐতিহাসিক প্রথম দুই দিনের পর তৃতীয় দিনের আয় বলিউড বক্স অফিসে সমীকরণকে উলটপালট করে দিয়েছে। এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত হিসেব অনুযায়ী, প্রথম ছয়দিন শেষে ‘গাদার ২’ সিনেমার বক্স অফিস আয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৬২.৪৮ কোটি রুপি। পঞ্চম দিন স্বাধীনতা দিবসের বন্ধে এটি ভারতীয় বক্স অফিসে নতুন রেকর্ড গড়েছে। এরপর ষষ্ট দিন স্বাভাবিক কর্মদিবসে ৩৫ কোটি রুপি আয়ের মাধ্যমে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে ‘গাদার ২’।

প্রথম সপ্তাহান্তে সিনেমাটির বক্স অফিস আয়ে ধারাবাহিকতা বিবেচনা করে, প্রথম সপ্তাহে দুর্দান্ত আয়ের অনুমান করেছিলেন ট্রেড বিশেষজ্ঞরা। তবে স্বাধীনতা দিবসের ছুটির পর স্বাভাবিক কর্মদিবসে সিনেমাটি আবারো সবার প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত ধারাবাহিকতা বিবেচনা করে সানি দেওল এবার ‘পাঠান’ সিনেমার বক্স অফিস রেকর্ড ভাঙ্গতে যাচ্ছেন বলে মনে করছেন অনেকে। শুধু তাই নয়, ষষ্ট দিনে আয় বিবেচনা করে ‘গাদার ২’ ভারতীয় বক্স অফিসের প্রথম ৬০০ কোটি রুপির সিনেমা হতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন সবাই। ইতিমধ্যে ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির আয় ৬০০ কোটি রুপি অনেকটাই দৃশ্যমান।

এর আগে চলতি বছরের ২৫শে জানুয়ারি মুক্তিপ্রাপ্ত ‘পাঠান’ সিনেমাটি বক্স অফিসে সুনামি হিসেবে হাজির হয়েছিলো। মহামারী পরবর্তি বক্স অফিসের অচলাবস্থাকে পিছনে ফেলে বলিউড বক্স অফিসে নতুন প্রাণের সঞ্চার করেছিলো শাহরুখ খান অভিনীত ‘পাঠান’। হিন্দির পাশাপাশি তামিল এবং তেলুগুতেও মুক্তি পেয়েছিলো ‘পাঠান’ সিনেমাটি। সব ভাষা মিলিয়ে ভারতীয় বক্স অফিসে সিনেমাটির আয়ের পরিমাণ ছিলো ৫৪৩ (হিন্দিতে ৫২৪) কোটি রুপি। আর বিশ্বব্যাপী গ্রোস আয়ের হিসেবে সিনেমাটি মোট আয় করেছে ১,০৫০ কোটি রুপি। ধারণা করা হচ্ছে ‘পাঠান’-এর হিন্দি সংস্করণের আয়কে ছাড়িয়ে যাবে ‘গাদার ২’ সিনেমাটি।

মুক্তি ছয়দিন শেষে শাহরুখ খান অভিনীত ‘পাঠান’ এবং সানি দেওল অভিনীত ‘গাদার ২’ সিনেমার বক্স অফিস আয়ের তুলনামূলক চরিত্র নীচে দেওয়া হলো –

দিন কোটি রুপিতে ভারতীয় বক্স অফিসে আয় (হিন্দি)
পাঠান গাদার ২
প্রথম দিন ৫৫.০০ ৪০.১০
দ্বিতীয় দিন ৬৮.০০ ৪৩.০৮
তৃতীয় দিন ৩৮.০০ ৫১.৭০
চতুর্থ দিন ৫১.৫০ ৩৮.৭০
পঞ্চম দিন ৫৮.৫০ ৫৫.৫০
ষষ্ট দিন ২৫.৫০ ৩৩.৫০
মোট (ছয়দিন) ৩০৬.৫০ ২৬২.৪৮
প্রথম সপ্তাহ (সাতদিন) ৩২৮.৫০
সর্বমোট ৫২৪.০০

বলিউডের নব্বইয়ের দশকের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা হচ্ছে সানি দেওল। ১৯৮৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বেতাব’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে অভিষেকের পর সময়ের সবচেয়ে বড় অ্যাকশন তারকা হিসেবে আবির্ভুত হয়েছিলেন তিনি। এরপর একের পর এক অ্যাকশন সিনেমা দিয়ে ভারতীয় দর্শকদের কাছে নিজের অবস্থান অন্য উচ্চতায় নিয়ে যান সানি দেওল। ২০০১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘গাদার – এক প্রেম কাঁথা’ সিনেমার মাধ্যমে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন তিনি। এর ২২ বছর পর ভারতীয় বক্স অফিসে প্রথম সিনেমা হিসেবে ৬০০ কোটি রুপি আয়ের নতুন ইতিহাস লিখতে যাচ্ছেন সানি দেওল।

আরো পড়ুনঃ
ভারতীয় বক্স অফিসে ঝড়: আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যর্থ ‘গাদার ২’ ও ‘ওএমজি ২’
পাঁচ সিনেমায় ভারতীয় চলচ্চিত্রের শত বছরের ইতিহাসে সর্বোচ্চ আয়ের সপ্তাহান্ত
‘পাঠান’ সিনেমার বক্স অফিস রেকর্ড ভাঙ্গতে যাচ্ছে সানি দেওলের ‘গাদার ২’

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d