বক্স অফিসে অক্ষয় কুমারের টানা ফ্লপের তালিকা দীর্ঘায়িত করছে ‘সেলফি’!

বক্স অফিসে অক্ষয় কুমারের

শাহরুখ খানের ‘পাঠান’ সিনেমাটির ঐতিহাসিক সাফল্য দিয়ে শুরু হয়েছিলো বলিউডের নতুন বছরের বক্স অফিস। বলিউডের প্রথম সিনেমা হিসেবে ভারতীয় বক্স অফিসে ৫০০ কোটি রুপির মাইলফলক অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছে ‘পাঠান’। এই সিনেমাটির সাফল্যের পর নতুন বছরে নতুন সময়ের স্বপ্ন দেখছিলেন বলিউড সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু ১৭ই ফেব্রুয়ারি ‘শাহজাদা’ সিনেমাটির পর বলিউড বক্স অফিসে একই চিত্র দেখা গেছে চলতি সপ্তাহে মুক্তিপ্রাপ্ত নতুন সিনেমার ক্ষেত্রেও। জানা গেছে বক্স অফিসে অক্ষয় কুমারের টানা ফ্লপের তালিকা দীর্ঘায়িত করছে সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ‘সেলফি’ সিনেমাটি!

অক্ষয়ের ক্যারিয়ারের ক্যারিয়ারের অন্যতম সফল বছর ছিলো ২০১৯ সাল। এর আগেই এই তারকার সিনেমা নিয়মিত বাণিজ্যিক সাফল্য পেতে সক্ষম হচ্ছিল। কিন্তু মহামারী শুরু পর অক্ষয় অভিনীত ‘সুরিয়াবংশী’ ছাড়া মুক্তিপ্রাপ্ত ৫টি সিনেমাই বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছিলো। এছাড়া ওটিটি প্লাটফর্মে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাগুলোও দর্শকদের প্রশংসা কুঁড়াতে ব্যর্থ হয়েছে। নতুন বছরের শুরুতে ‘সেলফি’ সিনেমার মাধ্যমে এই তারকার সাফল্যের ধারাবাহিকতায় ফেরার প্রত্যাশা ছিলো অনেকের। কিন্তু উদ্বোধনী দিনে সিনেমাটি বক্স অফিস প্রতিবেদন অনুযায়ী, অক্ষয় কুমারের টানা ফ্লপের তালিকা দীর্ঘায়িত করতে যাচ্ছে ‘সেলফি’!

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে, মুক্তির প্রথম দিন সকালে সিনেমাটির দেখতে প্রেক্ষাগৃহে খুবই সীমিত দর্শক দেখা গেছে। ভারতজুড়ে প্রেক্ষাগৃহে উদ্বোধনী দিনের সকালে দর্শক সমাগমের পরিমাণ ছিলো মাত্র ৫%। সংখ্যাটি অনেকটাই, ‘পাঠান’ সিনেমার ৩১তম দিনের কাছাকাছি। অক্ষয় কুমারের মত তারকার সিনেমার জন্য উদ্বোধনী দিনের প্রদর্শনীতে দর্শক সমাগমের পরিমাণ ডিজাস্টার হিসেবে উল্লেখ করেছেন ট্রেড বিশেষজ্ঞরা। প্রাথমিক অনুমান অনুযায়ী, প্রথম দিনে সিনেমাটির বক্স অফিস আয়ের পরিমাণ হবে ৩-৪ কোটি রুপি।

অবশ্য অক্ষয় কুমারের ‘সেলফি’ সিনেমাটির বক্স অফিসের এমন শুরুর কিছুটা অনুমান আগেই পাওয়া দিয়েছিলো। যদিও মুক্তি দুই সপ্তাহ আগে থেকেই সিনেমাটির প্রচারণার জন্য ব্যাপক দৌড়ঝাঁপ দিয়েছেন অক্ষয় কুমার। কিন্তু ব্যাপক প্রচারণার পরও সিনেমাটি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ জন্ম দিতে পারেননি এই তারকা। দুই দিন আগে শুরু হওয়া সিনেমাটির অগ্রিম টিকেট বিক্রির অবস্থাও ছিলো করুন। ভারতের তিনটি জাতীয় চেইন মাল্টিপ্লেক্সে ‘সেলফি’ সিনেমার মাত্র ৮,০০০ টিকেট বিক্রি হয়েছিলো। সব মিলিয়ে সিনেমাটির অগ্রিম টিকেট বিক্রি থেকে আয়ের পরিমাণ ছিলো ১ কোটি রুপিরও কম।

সব মিলিয়ে বক্স অফিসে অক্ষয় কুমারের টানা ফ্লপের তালিকা দীর্ঘায়িত করছে ‘সেলফি’। এর আগে গত বছর অক্ষয় কুমার অভিনীত টানা চারটি সিনেমা বক্স অফিসে ব্যার্থ হয়েছিলো। সিনেমাগুলো হচ্ছে ‘বচ্চন পাণ্ডে’, ‘সম্রাট পৃথ্বীরাজ’, ‘রক্ষা বন্ধন’ এবং ‘রাম সেতু’। এই প্রতিটি সিনেমাই ছিলো বড় বাজেটের এবং এগুলোর প্রতি সবার প্রত্যাশাও ছিলো অনেক। কিন্তু একই বছরে একটানা চারটি বক্স অফিস ডিজাস্টার সিনেমা উপহার দেয়ার লজ্জায় ডুবলেন অক্ষয় কুমার। নতুন বছরে প্রাথমিক অনুমান থেকে সেই তালিকা দীর্ঘায়িত হওয়ারই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

এছাড়া মহামারী পরবর্তি সময়ে অক্ষয় কুমারের মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম সিনেমা ছিলো ‘বেলবটম’। এই সিনেমাটিও বক্স অফিসে ডিজাস্টার হিসেবে আবির্ভুত হয়েছিলো। এছাড়া মহামারীর কারনে অক্ষয় অভিনীত ‘লক্ষ্মী’ এবং ‘কাঠপুটলি’ সিনেমাগুলো ওটিটি প্লাটফর্মে মুক্তি পেয়েছিলো। কিন্তু এই সিনেমাগুলোও দর্শকদের মন জয় করতে ব্যার্থ হয়েছে। একের পর এক দক্ষিণের সিনেমার রিমেক এবং অল্প সময়ের কাজ শেষ করার প্রবণতা অক্ষয়ের প্রতি দর্শকদের ভরসা নষ্ট করে দিয়েছে। ব্যাপক প্রচারণা এবং আলোচনার পরও বক্স অফিসে অক্ষয় কুমারের টানা ফ্লপের তালিকা দীর্ঘায়িত হতে চলেছে!

একজন তারকা এবং তার এক ভক্তের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি। একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় নিজের পছন্দের তারকার বিরুদ্ধে চলে যায় এই ভক্ত। সিনেমাটির ট্রেলার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসা কুড়ালেও প্রেক্ষাগৃহে দর্শক সমাগম নাই বললেই চলে। অক্ষয় কুমার অভিনীত সিনেমা হিসেবে অনেকটা সীমিত প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ‘সেলফি’। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, মাত্র ২,০০০ পর্দায় মুক্তি পাবে অক্ষয় কুমারের ‘সেলফি’ সিনেমাটি। বিষয়বস্তুর কারনে শহরকেন্দ্রিক প্রেক্ষাগৃহগুলোতে মুক্তির পরিকল্পনা করেছেন এই নির্মাতারা।

উল্লেখ্য যে, অক্ষয় কুমারের ‘সেলফি’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন রাজ মেহতা। এর আগে অক্ষয় কুমারকে নিয়ে ‘গুড নিউজ’ নির্মান করেছিলেন এই পরিচালক। সিনেমাটি বক্স অফিসে সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো। এই অভিনেতা নির্মাতা জুটির ‘সেলফি’ নিয়ে সবার প্রত্যাশাও ছিলো অনেক বেশী। এছাড়া সিনেমাটি মালয়ালাম সুপারহিট ‘ড্রাইভিং লাইসেন্স’ এর হিন্দি রিমেক হওয়ায় প্রত্যাশা ছিলো সংশ্লিষ্টদের। সিনেমাটিতে অক্ষয় কুমার ছাড়া আরো অভিনয় করেছেন ইমরান হাসমি, নুসরাত বারুচ্চা এবং ডায়না পেন্টি।

আরো পড়ুনঃ
ব্যাপক প্রচারণার পরও দর্শকদের আগ্রহের তলানিতে অক্ষয় কুমারের ‘সেলফি’
প্রথম শিডিউলের দৃশ্যধারন শেষে অক্ষয় এবং টাইগারের গন্তব্য স্কটল্যান্ড
মূল তিন তারকাকে নিয়েই শুরু হলো ‘হেরা ফেরি’ তৃতীয় পর্বের কাজ

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d