ঈদের সিনেমার বক্স অফিস হালচালঃ দেশীয় সিনেমায় নতুন আশার আলো

ঈদের সিনেমার বক্স অফিস

গত বছরের দুই ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাগুলো বক্স অফিসে ভালো ব্যবসা করতে সক্ষম হয়েছিলো। এছাড়া সিনেমাগুলোর প্রচারণায় এগুলো নিয়ে ব্যাপক আলোচনা দেখা গিয়েছিলো দর্শকদের মাঝে। সেই ধারাবাহিকতায় চলতি ঈদেও মুক্তি পেয়েছিলো বেশ কয়েকটি সিনেমা। ঈদের উৎসবকে কেন্দ্র করে গত সপ্তাহে মুক্তি পেয়েছিলো সাতটি সিনেমা। ঈদের সিনেমার বক্স অফিস প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এর মধ্যে তিনটি সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে ভালো দর্শক টানতে সক্ষম হয়েছে। দর্শকদের আগ্রহের কারনে দেশীয় সিনেমায় নতুন আশার আলো দেখছেন সংশ্লিষ্টরা।

মুক্তির এক সপ্তাহের মাথায় ঈদের সিনেমার বক্স অফিস নিয়ে স্বস্তির খবর মিলছে প্রেক্ষাগৃহগুলো থেকে। ঈদের প্রথম দিন থেকেই আশার আলো ফুটেছে প্রেক্ষাগৃহগুলোতে। ঢাকার পাশাপাশি, দেশের অন্যান্য একালা থেকেও পাওয়া যাচ্ছে স্বস্তির খবর। ঈদের দিন সিনেমাগুলোর হাউজফুল প্রদর্শনী নিশ্চিত না হওয়া গেলেও বেশিরভাগ প্রেক্ষাগৃহেই পঞ্চাশ ভাগের বেশি দর্শক সমাগম দেখা গেছে। মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাগুলোর মধ্যে দেশব্যাপী ১০০ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়া ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমাটির সাফল্য এরই মধ্যে প্রত্যাশার বেশি বলেও শোনা যাচ্ছে।

ঈদের সিনেমার বক্স অফিস বিবেচনায় বরাবরের মতই এগিয়ে আছেন সুপারস্টার শাকিব খান। একক স্ক্রিনের প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি আলোড়ন তুলেছে শুরু থেকেই। একক স্ক্রিনের পাশাপাশি মাল্টিপ্লেক্সেও শাকিব খান অভিনীত ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমাটি হাউসফুল যাচ্ছে। সেই কারনে যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমাস কর্তৃপক্ষ মুক্তির দ্বিতীয় দিন থেকে দুটি প্রদর্শনী বাড়িয়েছে। একই চিত্র দেখা গেছে দেশের সবচেয়ে পুরনো মাল্টিপ্লেক্স স্টার সিনেপ্লেক্সে। এই মাল্টিপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দর্শক আগ্রহ বিবেচনায় দ্বিতীয় আগামী সপ্তাহে ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’, ‘জ্বীন’ এবং ‘লোকাল’ সিনেমাগুলোর প্রদর্শনী বাড়াতে হতে পারে।

ঈদের সিনেমার বক্স অফিস

যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমাসে মুক্তি পেয়েছে ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’, ‘জ্বীন’, ‘কিল হিম’, ‘শত্রু’, ‘পাপ’, ‘লোকাল’ ও ‘আদম’। প্রতিষ্ঠানটির সহকারী বিপণন ব্যবস্থাপক মাহাবুবুর রহমান সূত্রে জানা গেছে, সার্বিকভাবে মুক্তিপ্রাপ্ত সাতটি সিনেমার মধ্যে তিনটি সিনেমাই ভালো ব্যবসা করছে। জানা গেছে সাতটি সিনেমার মধ্যে ব্লকবাস্টার সিনেমাসে ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’, ‘জ্বীন’ ও ‘কিল হিম’ সিনেমাগুলো দর্শক টানতে সক্ষম হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ ছবির তিনটা শো রেখেছিলাম, দর্শকের চাহিদার কারণে দুটি শো বাড়ানো হয়েছে। জ্বীন, কিলহিম–এর ও শো বেড়েছে। সামনে আরও বাড়তে পারে।‘

এদিকে ঢাকার পাশাপাশি স্টার সিনেপ্লেক্সের চট্টগ্রাম ও রাজশাহী শাখায় প্রদর্শিত হচ্ছে ঈদের সিনেমা। সব শাখা মিলে স্টার সিনেপ্লেক্সে ছয়টি বাংলা সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। সিনেমাগুলো হচ্ছে ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’, ‘লোকাল’, ‘জ্বীন’, ‘কিল হিম’, ‘পাপ’ ও ‘আদম’। সিনেমাগুলোর বক্স অফিসে নিয়ে আশাবাদ ব্যাক্ত করে প্রতিষ্ঠানটির জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ বললেন, ‘এবার ঈদে মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোর ক্ষেত্রে সবার আগে টিকিট বিক্রি হওয়া, অগ্রিম টিকিট বিক্রি হওয়াটা লক্ষণীয়, যা আমাদের বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের জন্য বেশ ভালো একটা দিক। মানুষের মধ্যে এমনও দেখছি, আতঙ্কে থাকে, পরে যদি কাউন্টারে গিয়ে টিকিট না পাই।’

ঈদের সিনেমার বক্স অফিস হালচালকে দেশীয় চলচ্চিত্রের জন্য নতুন আশার আলো হিসেবে দেখছেন মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ। এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ‘বাংলা সিনেমার দর্শক আছে। নতুন সিনেমা নিয়মিতভাবে পেলেই দর্শক প্রেক্ষাগৃহে আসবেই। বাংলা সিনেমার দর্শক নাই, এটা মোটেও বিশ্বাসযোগ্য কথা না। এখানকার মানুষ যে শুধু হলিউড বা বলিউড মুভি দেখে, সেটা মোটেও ঠিক কথা না। এটার প্রমাণ আমরা প্রতিনিয়ত পাচ্ছি। আমি আশাবাদী, এ বছরের ঈদে দর্শক পুরোপুরি এনজয় করবে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র।’

এদিকে পুরান ঢাকার মাল্টিপ্লেক্স লায়ন্স সিনেমাসে প্রদর্শীত হচ্ছে ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ৭টি সিনেমা। এরমধ্যে ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ এবং ‘কিল হিম’ সিনেমাগুলোর দৈনিক ৪টি প্রদর্শনী চলছে। আর ‘লোকাল’, ‘জ্বীন’, ‘পাপ’ সিনেমাগুলোর ২টি এবং ‘শত্রু’ ও ‘আদম’ সিনেমাগুলোর ১টি করে প্রদর্শনী চলছে। প্রেক্ষাগৃহ সূত্রে জানা গেছে ‘পাপ’ সিনেমার প্রথম প্রদর্শনী দর্শকশূন্য ছিলো কিন্তু একই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ‘জ্বীন’ সিনেমাটি ভালো দর্শক পেয়েছে। তবে ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ এবং ‘কিল হিম’ সিনেমাগুলো ভালো দর্শক টানতে সক্ষম হচ্ছে।

অন্যদিকে প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যায় এগিয়ে থাকা শাকিব খানের ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ সারা দেশে ভালো আয় করতে সক্ষম হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে খানপুর এলাকার নিউ মেট্রোতে ঈদের দিন থেকে শাকিব খান-বুবলীর ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ প্রদর্শীত হচ্ছে। আর ডিআইটি এলাকার সিনেস্কোপ এবং গুলশান প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শীত হচ্ছে যথাক্রমে সজল-পূজার ‘জ্বীন’ এবং বাপ্পী-মিতুর ‘শত্রু’। এছাড়া জয়পুরহাট এবং বগুড়া সহ দেশের অন্যান্য জায়গায় ঈদের সিনেমার বক্স অফিস দেশীয় সিনেমায় নতুন আশার আলো হিসেবে হাজির হয়েছে।

দেশের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে শাকিব খানের পাশাপাশি ভালো দর্শক টানছে বাপ্পী-মিতু জুটির ‘শত্রু’ সিনেমাটি। তবে মুক্তির আগে আলোচনার জন্য দেয়া অনন্ত জলিল অভিনীত ‘কিল হিম’ সিনেমাটি কিছুটা পিছিয়ে আছে। মাল্টিপ্লেক্সে ‘কিল হিম’ সিনেমাটি নিয়ে অনেক প্রত্যাশা থাকলেও সেখানে পূজার ‘জ্বীন’ সিনেমার প্রভাব বেশ লক্ষণীয়। আর অপুর ‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’ আর বুবলীর ‘লোকাল’ নিয়ে উল্লেখযোগ্য কোন আলোচনা দেখা যায়নি প্রথম সপ্তাহের শুরুতে। তবে সপ্তাহের শেষে এসে দর্শকদের প্রশংসা পাচ্ছে ‘লোকাল’ সিনেমাটি। দ্বিতীয় সপ্তাহে সিনেমাটি ঘুরে দাঁড়াবে বলে মনে করছেন সিনেমা সংশ্লিষ্টরা।

আরো পড়ুনঃ
প্রেক্ষাগৃহ ১০০-এর কমঃ ঈদে মুক্তির জন্য প্রস্তুত অর্ধডজনের বেশী সিনেমা!
ট্রেলারে চমক দেখালো আদর এবং বুবলী জুটির সিনেমা ‘লোকাল’: ঈদে মুক্তি
শাকিব খানের দাপট অব্যাহতঃ দর্শক চাহিদার শীর্ষে ঈদের সিনেমা ‘লিডার’

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d