মুক্তির তৃতীয় সপ্তাহে আরও বেশি প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শীত হচ্ছে ‘হাওয়া’

মুক্তির তৃতীয় সপ্তাহে

সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকাই সিনেমায় যে জোয়ার চলছে তার অন্যতম বড় সাক্ষী ‘হাওয়া’। ‘পরাণ’ সিনেমার পর দর্শকদের মাঝে আলোড়ন তুলেছে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ‘হওয়া’ সিনেমাটি। শুরুতে মাল্টিপ্লেক্স দর্শকদের মাঝে সিনেমাটি নিয়ে বেশী আগ্রহ দেখা গেলেও সময়ের সাথে সাথে সিনেমাটি নিয়ে উম্মাদনা ছড়িয়ে পড়েছে সাড়া দেশে। মুক্তির দ্বিতীয় সপ্তাহে প্রায় দ্বিগুণ প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনের পর মুক্তির তৃতীয় সপ্তাহে আরও বেশি প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শীত হচ্ছে ‘হাওয়া’।

- Advertisement -

গত ২৯ জুলাই মাত্র ২৩টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিলো মেজবাউর রহমান সুমনের প্রথম নির্মান ‘হাওয়া’। প্রথম সপ্তাহ থেকেই সবগুলো মাল্টিপ্লেক্স ও একক স্ক্রিনে হাউজফুল প্রদর্শনী পাচ্ছে ‘হাওয়া’ সিনেমাটি। দর্শক চাহিদা থাকায় রাজধানীর বাইরের প্রেক্ষাগৃহ মালিকরাও ‘হাওয়া’ নিয়ে শুরু থেকেই বেশ আগ্রহী ছিলেন। অগ্রিম টিকেট চেয়েও পাচ্ছে না সিনেপ্রেমী দর্শকরা। তারই প্রেক্ষিতে তৃতীয় সপ্তাহে ‘হাওয়া’ আরও কিছু নতুন প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে।

- Advertisement -

প্রথম সপ্তাহে ‘হাওয়া’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিলো ২৩টি প্রেক্ষাগৃহে। দর্শক আগ্রহে দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে সিনেমাটি দেশের ৪১টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়। এরপর তৃতীয় সপ্তাহের প্রথম দিন শুক্রবার (১২ আগস্ট)  থেকে আলোচিত এই সিনেমাটি প্রদর্শীত হচ্ছে ৪৮টি প্রেক্ষাগৃহে। ‘হাওয়া’ সিনেমার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে এমনটাই জানা গেছে। এরমধ্যে শুধু স্টার সিনেপ্লেক্সের ৫টি শাখায় দিনে ২৮টি শো রয়েছে। যা নিকট অতীতে বাংলা সিনেমার ক্ষেত্রে বিরল ঘটনা।

এছাড়া সিনেমাটির প্রযোজনা সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশের পর ‘হাওয়া’ খুব শিগগির আন্তর্জাতিক পরিবেশক সংস্থা ‘স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো’-র মাধ্যমে উত্তর আমেরিকায় এবং ‘পথ প্রোডাকশন’ ও ‘দেশি ইভেন্টস’-এর মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এছাড়া সামনে আরো বেশকিছু দেশে ‘হাওয়া’-র মুক্তি দেয়ার প্রচেষ্টা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রযোজনা সংস্থা সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেডের চলচ্চিত্র ‘হাওয়া’-র নির্বাহী প্রযোজক অজয় কুমার কুন্ডু।

- Advertisement -

টিভি ফিকশন ও বিজ্ঞাপনের খ্যাতিমান নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমনের পরিচালনায় নির্মিত হয়েছে সমুদ্র, পানি, সম্পর্ক ও প্রতিশোধের গল্পের সিনেমা ‘হাওয়া’। মাঝসমুদ্রে গন্তব্যহীন একটি মাছ ধরার ট্রলারে আটকে পড়া আট জন মাঝি-মাল্লা এবং এক রহস্যময় বেদেনিকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে হয়েছে সিনেমাটির কাহিনি । ‘হাওয়া’র মাধ্যমে রূপকথানির্ভর সিনেমাকে পর্দায় নতুন আঙ্গিকে দেখতে পাবেন দর্শকেরা।

মেজবাউর রহমান সুমনের কাহিনী এবং সংলাপে সিনেমাটির চিত্রনাট্য রচনা করেছেন যৌথভাবে মেজবাউর রহমান সুমন, সুকর্ণ সাহেদ ধীমান এবং জাহিন ফারুক আমিন। সিনেমাটি প্রসঙ্গে নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমন বলেন, ‘এটি সমুদ্র, পানি, সম্পর্ক ও প্রতিশোধের গল্প, যেখানে উপজীব্য সমুদ্র। গভীর সমুদ্র ও সেখানে মাছ ধরার ট্রলারকে কেন্দ্র করে নির্মিত গল্পের চলচ্চিত্র। ৮ জন মাঝিমাল্লার ও একজন বেদেনিকে নিয়েই গল্পটি তৈরি।’

উল্লেখ্য যে, তারকাবহুল এ সিনেমায় অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, নাজিফা তুশি, শরিফুল রাজ, সুমন আনোয়ার, নাসির উদ্দিন খান, সোহেল মণ্ডল, রিজভী রিজু, মাহমুদ হাসান এবং বাবলু বোস। চিত্রগ্রহণ করেছেন কামরুল হাসান খসরু এবং সম্পাদনায় আছেন সজল অলক। রাশিদ শরীফ শোয়েবের আবহ সংগীতে সিনেমাটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ইমন চৌধুরী। সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড এবং নির্মাণ সংস্থা ফেইসকার্ড প্রোডাকশন।

আরো পড়ুনঃ
বক্স অফিসে ‘হাওয়া’ ঝড়ঃ মুক্তির ৩ দিনের সব প্রদর্শনী হাউসফুল!
সিনেপ্লেক্সে রেকর্ড প্রদর্শনী নিয়ে মুক্তি পাচ্ছে আলোচিত সিনেমা ‘হাওয়া’
নকলের অভিযোগ প্রসঙ্গে যা বললেন ‘হাওয়া’ সিনেমার নির্মাতা সুমন

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ