‘জুরাসিক পার্ক’ ফ্র্যাঞ্চাইজি বক্স অফিসঃ দেখে নিন সিরিজের মোট আয়

‘জুরাসিক পার্ক’ ফ্র্যাঞ্চাইজি

‘জুরাসিক পার্ক’ ফ্র্যাঞ্চাইজি হলিউডের সবচেয়ে বড় সিরিজগুলোর মধ্যে অন্যতম। ১৯৯৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম সিনেমা দিয়ে শুরু করে প্রায় ত্রিশ বছর ধরে চলছে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি। স্টিভেন স্পিলবার্গ পরিচালিত ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রথম সিনেমাটি বক্স অফিসে আলোড়ন তুলতে সক্ষম হয়েছিলো। এরপর ট্রিলজি শেষ করে সিরিজের আরও দুটি সিনেমা মুক্তি পায়। ২০১৫ ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড’ দিয়ে ডাইনোসর জগতের পুনরুজ্জীবন দেখেছেন দর্শকরা।

- Advertisement -

সামগ্রিকভাবে, কয়েকটি স্পিনঅফ সহ ‘জুরাসিক পার্ক’ ফ্র্যাঞ্চাইজি এর ব্যানারে ছয়টি সিনেমা রয়েছে। পুরো ফ্র্যাঞ্চাইজিতে উপস্থিত অভিনেতাদের একটি দীর্ঘ তালিকা রয়েছে। এতে লরা ডার্ন, জেফ গোল্ডব্লাম, স্যাম নিল, রিচার্ড অ্যাটেনবরো, স্যামুয়েল এল জ্যাকসন, ক্রিস প্র্যাট, ব্রাইস ডালাস হাওয়ার্ড এবং আরও অনেকে অভিনয় করেছেন।

‘জুরাসিক পার্ক’ ফ্র্যাঞ্চাইজির ছয়টি সিনেমার প্রতিটিই বক্স অফিসে ব্যবসায়িকভাবে সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো। যদিও ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড ৩’ সিনেমাটি সবেমাত্র মুক্তি পেয়েছে এবং এখনও প্রেক্ষাগৃহে চলছে। তা সত্ত্বেও, সিরিজটি এখন পর্যন্ত যে পরিমাণ আয় করেছে তা বিশাল। এখন পর্যন্ত ‘জুরাসিক পার্ক’ ফ্র্যাঞ্চাইজির বৈশ্বিক বক্স অফিস আয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

- Advertisement -

এই ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রথম সিনেমা ‘জুরাসিক পার্ক’ বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছে। এরপর সিরিজের দ্বিতীয় সিনেমা ‘দ্য লস্ট ওয়ার্ল্ড’ সিনেমাটির মোট আয়ের পরিমাণ ৬১৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। সিনেমাটির তৃতীয় পর্ব মুক্তি পেয়েছিলো ২০০১ সালে। তৃতীয় পর্বটি সিরিজের সবচেয়ে কম আয়ের সিনেমা হিসেবে আবর্ভুত হয়েছে। বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে সিনেমাটি ৩৬৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার উপার্জন করেছিল।

তারপরে আসে ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড’ ফ্র্যাঞ্চাইজি। ক্রিস প্র্যাট এবং দল সিরিজটিকে পুনরুজ্জীবিত করে এবং বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে একটি দুর্দান্ত প্রভাব ফেলে। ২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাটি বক্স অফিসে ১.৬৭ বিলিয়ন ডলার আয়ের মাধ্যমে এটি ফ্র্যাঞ্চাইজির সবচেয়ে বড় সিনেমা হিসেবে আবির্ভুত হয়। পরবর্তিতে ২০১৮ সালে সিনেমাটির সিক্যুয়েল ‘ফলন কিংডম’ বিশ্বব্যাপী বস অফিসে ১.৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করতে সক্ষম হয়।

- Advertisement -

‘জুরাসিক পার্ক’ ফ্র্যাঞ্চাইজির সর্বশেষ সংযোজন ‘ডোমিনিয়ন’ সিনেমাটিও বক্স অফিসে ভালো আয় করছে। যদিও এটি এখনও এক বিলিয়ন মার্কিন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করতে পারেনি, ক্রিস প্র্যাট অভিনীত সিনেমাটি এখন পর্যন্ত ৯০২ মিলিয়ন ডলার আয় করেছে। সিনেমাটি নিয়ে দর্শকদের মাঝে তেমন ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা না গেলেও বক্স অফিসে ১ বিলিয়ন অসম্ভব নয় বলে মনে করছেন সিনেমার ট্রেড বিশেষজ্ঞরা।

প্রসঙ্গত, মুক্তির আগে ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড ডোমিনিয়ন’ ২০২২ সালের সবচেয়ে বড় সিনেমা হবে বলে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছিল। কিন্তু মুক্তির পর সিনেমাটির বক্স অফিসে সেই প্রত্যাশার প্রতিফলন দেখা যায়নি। তার পরিবর্তে, টম ক্রুজের ‘টপ গান ম্যাভেরিক’ সিনেমাটি ইতিমধ্যে এই বছরের সর্বোচ্চ উপার্জনকারী সিনেমা হিসেবে আবির্ভুত হয়েছে। এমনকি মার্বেলের ‘থরঃ লাভ এবং থান্ডার’ সিনেমাটিও বক্স অফিসে বেশ ভাল আয় করেছে। ইতিমধ্যে মাত্র দুই সপ্তাহে সিনেমাটি বিশ্বব্যাপী ৭১২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার উপার্জন করেছে।

আরো পড়ুনঃ
বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে ৯০০ মিলিয়ন ছাড়ালো ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড ডোমিনিয়ন’
টম ক্রুজের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সফল সিনেমা হতে যাচ্ছে ‘টপ গান ২’
৩০০ মিলিয়ন ডলারের শুরুর প্রত্যাশা নিয়ে মুক্তি পেলো ‘থরঃ লাভ অ্যান্ড থান্ডার’

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ