ঢাকার বাইরে ‘সাইকো’ সিনেমাকে হিট দাবী করলেন জিয়াউল রোশান

ঢাকার বাইরে ‘সাইকো’

ঢাকার বাইরে ‘সাইকো’

গত ঈদুল আযহায় মুক্তি পেয়েছে মোট তিনটি সিনেমা – ‘দিনঃ দ্য ডে’, ‘পরাণ’ এবং ‘সাইকো’। মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাগুলোর মধ্যে ‘দিনঃ দ্য ডে’ এবং ‘পরাণ’ ব্যাপকভাবে আলোচিত হলেও সে তুলনায় আলোচনায় পিছিয়ে আছে অন্য সিনেমা ‘সাইকো’। ঢাকার বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে অন্য দুই সিনেমা নিয়ে মাতামাতি দেখা গেলেও ঢাকার বাইরে ‘সাইকো’ সিনেমাকে হিট দাবী করেছেন চিত্রনায়ক জিয়াউল রোশান। ঢাকার বাইরের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে সিনেমাটি দেখতে দর্শকদের আগ্রহ আছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

‘সাইকো’ সিনেমাটি নিয়ে একটি অনলাইন পত্রিকার সাথে আলাপকালে সিনেমাটির প্রধান তারকা জিয়াউল রোশান বলেন, ‘অন্য দুই ছবির তুলনায় ঢাকার বাইরে সবচেয়ে বেশি দর্শক সাইকো দেখছে।‘ ঢাকার বাইরে দুটি প্রেক্ষাগৃহে দর্শকদের সাথে সিনেমা দেখেছেন উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ‘শেরপুর ও দেওয়ানগঞ্জের দুটি সিনেমা হলে গিয়েছিলাম। নিজে উপলব্ধি করেছি দর্শকরা খুব আনন্দ করে সাইকো দেখছে।‘

অনন্য মামুন পরিচালিত ‘সাইকো’ সিনেমাটিতে জিয়াউল রোশানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন পূজা চেরী। এ সিনেমার মাধ্যমে ‘রক্ত’ এবং ‘বেপরোয়া’ এর পর তৃতীয়বারের মতো ঈদে মুক্তি পেয়েছে রোশানের ছবি। ঢাকায় সিনেমাটির প্রেক্ষাগৃহ প্রতিবেদন নিয়ে তিনি বলেন, ‘ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে সাইকো না চললেও যমুনা ব্লক বাস্টারে ভালো চলছে। আজ (রবিবার) দুপুরে ব্লক বাস্টার কিছু টিকেট থাকলেও সন্ধ্যার শো-তে নেই।‘

ঈদ উপলক্ষ্যে ‘সাইকো’ দেশের ১৭টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিলো। এ প্রসঙ্গে আলাপকালে জিয়াউল রোশান বলেন, ‘ঢাকার বাইরের হলগুলোতে (সিঙ্গেল স্ক্রিন) সাইকো ভালো চলছে এতে কোনো সন্দেহ নেই। এর পাশে অন্য কোনো সিনেমা নেই। তবে সিনেপ্লেক্সে সাইকো না দিতে পারার কারণে আমরা হয়তো আলোচনায় একটু পিছিয়ে আছি।‘

এছাড়া এবারের ঈদের সিনেমা নিয়ে সিনেপ্লেক্সে আলোচনা বেশি হচ্ছে বলে মনে করছেন চিত্রনায়ক জিয়াউল রোশান। তবে নিয়মিত ছবির দর্শকরা ঠিকই ‘সাইকো’ দেখছেন বলে মনে করছেন এই তারকা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আগেই যদি প্রস্তুত করে সাইকো সিনেপ্লেক্সে যেতো, তাহলে অন্য ছবির সঙ্গে আমাদেরটাও আলোচনা হতো। ঢাকার বাইরে যে হলগুলোতে সাইকো চলছে, ভালো চলছে। এ কারণে দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে সাইকো-এর হল বাড়বে।‘

উল্লেখ্য যে, ২০১৬ সালে জাজ মাল্টিমিডিয়ার ‘রক্ত’ সিনেমার মাধ্যমে ঢাকাই সিনেমায় নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন জিয়াউল রোশান। অভিষেকের পর ‘বেপরোয়া’, ‘ককপিট’, ‘মেকাপ’ সিনেমারগুলোর মাধ্যমে দর্শক এবং নির্মাতাদের নজরে আসেন তিনি। ইতিমধ্যে ঢালিউডের নির্মতাদের কাছে নির্ভরযোগ্য নাম হিসেবে আবির্ভুত হয়েছেন রোশান। গেল ঈদে সিনেমার পাশাপাশি বিজ্ঞাপন, ওটিটি, টেলিভিশন ও ইউটিউবেও এই তারকার সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে জিয়াউল রোশান অভিনীত অনেকগুলো সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এই অভিনেতার মুক্তির অপেক্ষায় থাকা সিনেমাগুলোর মধ্যে ‘অপারেশন সুন্দরবন’, ‘রিভেঞ্জ’, ‘আশীবার্দ’, ‘জামদানী’, ‘পাপ’ এবং ‘প্রেম পুরাণ’ অন্যতম। এই সিনেমাগুলোতে বৈচিত্রময় চরিত্রে দেখা যাবে রোশানকে। এছাড়া খুব শীগ্রই এই অভিনেতার বড় দুটি সিনেমার ঘোষণা আসবে বলেও জানা গেছে।

আরো পড়ুনঃ
দ্বিতীয় সপ্তাহেও শতাধিক প্রেক্ষাগৃহে অনন্ত জলিলের সিনেমা ‘দিনঃ দ্য ডে’
দর্শক চাহিদায় দ্বিতীয় সপ্তাহে বেড়েছে ‘পরাণ’ সিনেমার প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা!
ঈদের সিনেমার বক্স অফিস: দর্শক আগ্রহে এগিয়ে ‘পরাণ’ ও ‘দিন- দ্য ডে’

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত