প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ বিজয় দেবেরকোন্ডার প্রথম প্যান ইন্ডিয়া সিনেমা ‘লাইগার’

বিজয় দেবেরকোন্ডার প্রথম

বিজয় দেবেরকোন্ডার প্রথম

২৫শে আগস্ট মুক্তি পেয়েছে আরও একটি নতুন তেলেগু অ্যাকশন সিনেমা ‘লাইগার’। বিজয় দেবেরকোন্ডা অভিনীত এই সিনেমাটি প্যান ইন্ডিয়া মুক্তি পেয়েছে। সিনেমাটিতে বিজয় দেবেরকোন্ডার বিপরীতে অভিনয় করেছেন বলিউডের অনন্যা পাণ্ডে। বিজয় এবং অনন্যা ছাড়াও সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করেছেন রাম্য কৃষ্ণান, রোনিত রায় এবং বিশু রেড্ডি। জানা গেছে মুক্তির পর দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছে বিজয় দেবেরকোন্ডার প্রথম প্যান ইন্ডিয়া সিনেমা ‘লাইগার’।

বিশ্বের প্রাক্তন ভারী ওজনের বক্সিং চ্যাম্পিয়ন মাইক টাইসনের উপস্থিতির কারণে সিনেমাটির মুক্তির মাস দুয়েক আগে থেকেই আক্রমনাত্মকভাবে প্রচার করেছেন নির্মাতারা। সিনেমাটিতে বিজয় দেবেরকোন্ডা একজন তোতলা কিকবক্সারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। রাম্যা কৃষ্ণান বিজয় দেবেরকোন্ডার মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আর রোনিত রায়কে দেখা গেছে তার গুরুর চরিত্রে। সিনেমাটি নিয়ে বিজয় দেবেরকোন্ডার ভক্তদের প্রত্যাশাও ছিলো আকাশচুম্বী।

কিন্তু প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পর বিজয় দেবেরকোন্ডার প্রথম প্যান ইন্ডিয়া সিনেমা ‘লাইগার’ নিয়ে দর্শকদের মাঝে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। যে দর্শকরা সিনেমাটি দেখেছেন তারা এর গল্প, চিত্রনাট্য এবং পরিচালনার জন্য মিশ্র থেকে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছেন। এছাড়া সিনেমাটির প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয়কৃত অনন্যা পাণ্ডেকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ট্রোল করছেন অনেক দর্শক। বিজয় দেবেরকোন্ডার প্রথম প্যান ইন্ডিয়া সিনেমা ‘লাইগার’ নিয়ে বেশীরভাগ দর্শক হতাশা ব্যাক্ত করেছেন।

ব্যাপক প্রচারণার পাশাপাশি মুক্তির আগে বিতর্কিত মন্তব্যের কারনেও আলোচনায় ছিলো বিজয় দেবেরকোন্ডার প্রথম প্যান ইন্ডিয়া সিনেমা ‘লাইগার’। চলমান বয়কট প্রসঙ্গে বিজয় দেবেরকোন্ডার করা একটি মন্তব্যকে ঘীরে এই বিতর্ক দেখা গেছে। একটি সংবাদ মাধ্যমে সাথে আলাপকালে বিজয় দেবেরকোন্ডা বলেছিলেন ‘পছন্দ হলে দেখেন, পছন্দ না হলে দেখবেন না…!’ তার এই মন্তব্যকে সূত্র ধরে সামাজিক মাধ্যমে সিনেমাটির বয়কটের ডাক আরো জোরালো হতে দেখা গেছে।

এছাড়া সিনেমাটি নিয়ে বিজয় দেবেরকোন্ডার অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে দর্শকদের মাঝে। এর আগে একটি ওটিটি প্লাটফর্মে সিনেমাটির স্বত্ব কেনার জন্য নির্মাতাদের ২০০ কোটি রুপির প্রস্তাব দিয়েছিলো। নির্মাতারা সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। সে সময় এই খবরটি টুইটারে শেয়ার করে বিজয় দেবেরকোন্ডা লিখেছিলেন, ‘এটা খুবই অল্প টাকা… আমি প্রেক্ষাগৃহে আরো বেশী আয় করে দেখাবো।‘ অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের কারনে এখন সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক ট্রলের শিকার হচ্ছেন এই তেলুগু অভিনেতা।

এদিকে দর্শকদের পাশাপাশি সিনেমাটি নিয়ে নিজেদের হতাশা ব্যাক্ত করেছেন ভারতের স্বনামধন্য সব চলচ্চিত্র সমালোচকরা। সিনেমাটির গল্প এবং চিত্রনাট্য নিয়ে সমালোচনার মুখোমুখি হচ্ছেন নির্মাতারা। বলিউড থেকে শুরু করে তেলুগু সব জায়গায় সমালোচকরা সিনেমাটির ব্যাপারে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছেন। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই সমালোচকরা সিনেমাটিকে পাঁচের মধ্যে দেড় থেকে দুই স্টার দিচ্ছেন। একাধিক সিনেমার বক্স অফিস ব্যর্থতার পর ‘লাইগার’ নিয়ে সবার প্রত্যাশায় আরো একবার গুড়ে বালি।

রচনা এবং পরিচালনার পাশাপাশি সিনেমাটির সহ-প্রযোজক হিসেবেও আছেন নির্মাতা পুরী জগন্নাধ। স্পোর্টস অ্যাকশন ড্রামা গল্পের এই সিনেমাটির সিনেমাটোগ্রাফি পরিচালনা করেছেন বিষ্ণু শর্মা। আর এর সম্পাদনার দায়িত্বে আছেন জুনায়েদ সিদ্দিকী। ভারতে বহুল প্রতীক্ষিত এই সিনেমাটি তেলেগু, তামিল, হিন্দি, মালায়লাম এবং কন্নড় ভাষায় মুক্তি পেয়েছে। ধর্ম প্রডাকশন্সের ব্যানারে নির্মিত সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন বলিউডের আলোচিত নির্মাতা করণ জোহর।

আরো পড়ুনঃ
শুরুর আগেই টাইগার শ্রফের ‘স্ক্রু ঢিলা’ স্থগিত করলো ধর্মা প্রোডাকশন
‘বয়কট’ ডাক সত্ত্বেও বক্স অফিসে হিট হওয়া বলিউডের ৬টি সিনেমা
ব্যর্থ সব সুপারস্টারঃ এবার তেলুগু তারকার দিকে তাকিয়ে পুরো বলিউড

By নিউজ ডেস্ক

এ সম্পর্কিত

%d