অবিস্মরণীয় যে চরিত্রগুলো অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা প্রমাণ করে

অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা

কামাল হাসান, ভারতীয় সিনেমার বহুমুখী এবং আইকনিক তারকাদের মধ্যে অন্যতম। সিনেমার পর্দায় তার দীর্ঘ যাত্রায় ভারতের সবকটি ইন্ডাস্ট্রির সিনেমায় অভিনয় করেছেন এবং সফল হয়েছেন। বর্তমানে কামাল হাসান অভিনীত ‘বিক্রম’, ‘ইন্ডিয়ান ২’ এবং ‘পাপনাসম ২’ সিনেমা দুটি নির্মানাধীন রয়েছে। কিছুদিন তিনি জানিয়েছেন ‘মালিক’ খ্যাত নির্মাতা মহেশ নারায়ণনের জন্য একটি চিত্রনাট্য লিখছেন বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী এই অভিনেতা। অভিনয়ের পাশাপাশি সিনেমা পরিচালনাও করেছেন কামাল হাসান। আর অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে পুরষ্কার জয়ে কথা আসলে কামাল হাসানের সমকক্ষ কাউকে ভারতে পাওয়া যাবে না। অবিস্মরণীয় সব চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা প্রমাণ পাওয়া গেছে অসংখ্যবার। অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসবে ১৯৯০ এবং ২০১৪ সালে যথাক্রমে পদ্মশ্রী এবং পদ্মভূষণ উপাধিতে ভূষিত হয়েছেন। শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে জিতেছেন তিন বার জাতীয় পুরষ্কার। পাঁচটি ভাষায় তার অর্জিত ফিল্মফেয়ার পুরষ্কারের সংখ্যা ১৯ টি। ২০০০ সালে ফিল্মফেয়ার কতৃপক্ষ্যকে চিঠি দিয়ে তাকে পুরষ্কারের আওতা থেকে বাইরে রাখার অনুরোধ না করলে গত ২০ বছরে এই সংখ্যাটা আরো অনেক বড় হতে পারতো।

- Advertisement -

শুধু তামিল নয়, পুরো ভারতীয় সিনেমায় কামাল হাসান একজন জীবন্ত কিংবদন্তী। তামিল সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে উলাগানায়কন (যার অর্থ সর্বজনীন হিরো) হিসেবে পরিচিত। শিশুশিল্পী হিসেবে রূপালী পর্দায় যাত্রা শুরুর পর কামাল হাসান আজ নিজেই একটি ইন্ডাস্ট্রি, নিজের মাঝে নিজেই একটি প্রতিষ্ঠান। তার অভিনীত সিনেমাগুলোতে চরিত্রের প্রয়োজনে প্রতিনিয়ত রূপান্তর কামাল হাসানকে করেছেন অন্যদের থেকে স্বতন্ত্র। অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা প্রমাণ করে এমন কয়েকটি অবিস্মরণীয় চরিত্র নিয়ে কথা বলবো আজকের এই আলোচনায়।

অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা

- Advertisement -

১। চাচি ৪২০
কামাল হাসান প্রযোজিত, পরিচালিত এবং অভিনীত অন্যতম একটি অবিস্মরণীয় সিনেমা ‘চাচি ৪২০’ মুক্তি পেয়েছিলো ১৯৯৭ সালে। কামাল হাসান বেশ কয়েকটি সিনেমায় দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন যার মধ্যে এই সিনেমাটি বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। পুরোপুরি বিপরীতধর্মী দুইটি চরিত্রে অসাধারণ অভিনয় দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন এই অভিনেতা। একজন বাবা এবং একজন নারী – দুই চরিত্রেই কামাল হাসান ছিলেন অনবদ্য। মুক্তির এতদিন পরেও সিনেমাটি আজও একই রকম প্রাণবন্ত। সিনেমাটি দেখে বিরক্তিবোধ করেছেন এমন দর্শক নেই বললেই চলে।

অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা

২। দশাবথারাম
এই সিনেমা দিয়ে একটি অনন্য রেকর্ড গড়েছেন কামাল হাসান। সিনেমাটিতে তিনি একটি বা দুটি বা তিনটি নয় বরং দশটি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। একই সিনেমায় তার অভিনীত এই দশটি চরিত্রই লিঙ্গ, পটভূমি এবং বয়সের ক্ষেত্রে অনন্য এবং বৈচিত্র্যময় ছিল। প্রতিটি চরিত্রের জন্য তাকে ব্যাপক মেকআপ করতে হয়েছিলো এবং কামাল হাসান প্রতিটি চরিত্রকে পর্দায় নিখুঁতভাবে উপস্থাপন করতে পেরেছিলেন।

অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা

৩। বিশ্বরূপম
‘বিশ্বরূপম’ সিনেমায় জাতীয় পুরস্কার বিজয়ী এই অভিনেতাকে আবারো দ্বৈত চরিত্রে দেখা গেছে। তার অভিনীত দুটি চরিত্রের একটি ছিলো একজন ধ্রুপদী নৃত্যের শিক্ষকের এবং অন্যটি ছিল একজন গোপন RAW এজেন্ট। বলা বাহুল্য যে, দুটি চরিত্রই আলাদা ছিল এবং কামাল হাসান তা পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে কোন কার্পন্য করেননি। সমানভাবে চরিত্রগুলোর প্রতি ন্যায়বিচার একমাত্র কামাল হাসানের পক্ষ্যেই সম্ভব। উল্লেখ্য যে, ‘বিশ্বরূপম’ সিনেমার অন্যতম প্রধান আকর্ষন হচ্ছে একটি চরিত্র থেকে অন্য চরিত্রে কামাল হাসানের রূপান্তর।

৪। আনবে শিবম
ভিন্নভাবে প্রতিবন্ধী নাল্লা শিবমের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন কামাল হাসান। ‘আনবে শিবম’ সিনেমায় কামাল হাসান আর মাধবনের সাথে পর্দা ভাগাভাগি করেছিলেন। সিনেমাটি বক্স অফিসে তেমন ব্যবসা করতে পারেনি, তবে সমালোচকদের প্রশংসা কুঁড়াতে সক্ষম হয়েছিল। সিনেমাটিতে তার চেহারা এবং ভূমিকা বেশ কঠিন ছিল কিন্তু তিনি সূক্ষ্মতার সাথে এটি উপস্থাপন করেছিলেন। অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা দেখতে চাইলে এই সিনেমাটি বিশেষভাবে উল্লেখের দাবী রাখে।

৫। হে রাম
‘হে রাম’ সিনেমায় সাকেথ রামের চরিত্রটি তার ক্যারিয়ারে অন্যতম স্মরণীয় একটি চরিত্র। সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা নিয়ে নির্মিত সিনেমাটি বিতর্কিত ছিল। সিনেমাটিতে কামাল হাসান একজন নিয়মিত হিন্দু পুরুষের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন যিনি তার প্রিয়তমা স্ত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার জন্য অপরাধীদের উপর প্রতিশোধ নিয়েছিলেন। এই সিনেমায়ও তিনি তার অন্যান্য চরিত্রগুলো থেকে বেশ আলাদাভাবে পর্দায় হাজির হয়েছিলেন। আর প্রতিবারের মতো এবারও তিনি তার বহুমুখী অভিনয় দিয়ে মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন।

অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা

৬। ইন্ডিয়ান
আগেই বলেছি যে কামাল হাসান বেশ কয়েকটি সিনেমায় দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন এবং ‘ইন্ডিয়ান’ সিনেমাটি তার মধ্যে অন্যতম। এই সিনেমায় তার অভিনীত দুটি চরিত্রই ছিলো সম্পূর্ণ আলাদা এবং তা পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে কামাল হাসান নিজেকে উজার করে দিয়েছিলেন। বর্তমানে সিনেমাটির সিক্যুয়েল নির্মানাধীন রয়েছে এবং তার ভক্তরা অধীর আগ্রহে সিনেমাটির জন্য অপেক্ষা করছে। তামিল ভাষার এই ভিজিলান্ট অ্যাকশন সিনেমাটি লিখেছেন ও পরিচালনা করেছেন শঙ্কর এবং প্রযোজনা করেছেন এ.এম. রথনাম। ‘হিন্দুস্তানি’ শিরোনামে এই সিনেমাটি হিন্দিসহ বেশ কয়েকটি ভাষায় ডাব করা হয়েছিলো। এছাড়া ১৯৯৬ সালের একাডেমি পুরস্কারের জন্য সেরা বিদেশী ভাষার চলচ্চিত্র হিসেবে ভারতের অফিশিয়াল এন্ট্রি ছিলো সিনেমাটি।

৭। আলাবন্দন
‘আলাবন্দন’ সিনেমায় আরো একবার দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন কামাল হাসান। একই সাথে হালকা-পাতলা একজন পুলিশ অফিসার এবং তার ভারী পেশীবহুল মানসিক প্রতিবন্ধী ভাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন এই বর্ষীয়ান অভিনেতা। শারীরিক এবং মানসিকভাবে পরস্পর বিপরীতমুখী দুটি চরিত্রে সমান্তরাল অভিনয় অবশ্যই চ্যালেঞ্জিং, তবে এই কথাটি কামাল হাসানের জন্য মনে হয় প্রযোজ্য নয়। উভয় ভূমিকার জন্য ভক্তরা তাকে সমানভাবে ভালবাসে ছিলো এবং ঘৃণা করেছিল। সিনেমাটি অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা প্রমাণের সাথে আরো বুঝিয়ে দেয় যে শুধুমাত্র তিনিই এই ধরনের প্রতিক্রিয়া পেতে পারেন

কামাল হাসানের মত বহুমুখী প্রতিভা সম্পন্ন একজন অভিনেতার সিনেমা এবং চরিত্র নিয়ে কিছু বলা বা লিখাটাও আমার জন্য অনেক চ্যালেঞ্জিং। এরকম অগণিত সিনেমা হয়তো পাওয়া যাবে যেখানে কমল হাসান সবাইকে বিমোহিত করেছেন কোন ধরনের প্রযুক্তি বা মেকআপের সহায়তা ছাড়াই। আমার নিজের দেখা সিনেমাগুলো থেকে উপরে উল্লেখিত সিনেমাগুলো নিয়ে একটু বিস্তারিত লিখার চেষ্টা করলাম। এর বাইরে অভিনেতা কামাল হাসানের বহুমুখিতা প্রমাণ করে এমন কোন সিনেমা এই তালিকায় থাকা উচিৎ মনে করলে জানিয়ে দিতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ
যে দশটি সিনেমা শাহরুখ খানকে বলিউড বাদশা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে
দিওয়ালীতে মুক্তিপ্রাপ্ত সুপারস্টার রজনীকান্তের ব্যবসা সফল পাঁচটি সিনেমা
মুক্তির প্রথম দিনে তামিলনাড়ু বক্স অফিস মাতানো সেরা পাঁচটি সিনেমা

হোসেন মৌলুদ তেজোhttps://iammoulude.com/
হোসেন মৌলুদ তেজো একজন নিয়মিত ব্লগার যিনি সিনেমা নিয়ে লিখতে ভালোবাসেন। সিনেমার পাশাপাশি কবিতা, ছোট গল্প, সমসাময়িক এবং ব্যবসা সম্পর্কিত বিষয়েও লিখে থাকেন। প্রফেশনালী একটি বেসকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন। ব্যক্তি জীবনে তিনি বই পড়ে, সিনেমা দেখে এবং তার একমাত্র ছেলের সাথে সময় কাটাতে পছন্দ করেন।

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ