আলোচিত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার অফিসে হামলা ও ভাঙচুর

শাপলা মিডিয়ার অফিসে

সম্প্রতি ঢাকাই সিনেমার আলোচিত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার অফিসে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর কাকরাইলে অবস্থিত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার অফিসে এই ঘটনা ঘটে। ৪০ থেকে ৫০ জন দুর্বৃত্ত এই হামলাটি চালিয়েছে বলে খবরে প্রকাশ। আর শুধু হামলা নয় সেই সাথে প্রতিষ্ঠানটিতে ব্যাপক ভাঙচুরও চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গণমাধ্যমকে এই হামলা এবং ভাঙচুরের খবরটি নিশ্চিত করেছে শাপলা মিডিয়া।

- Advertisement -

এ প্রসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা অপূর্ব রায় বলেন, ‘বিকেল তিনটার দিকে অর্ধশতাধিক হামলাকারী মাস্ক, মুখোশ ও হেলমেট পরিহিত অবস্থায় অতর্কিত হামলা করে। এ সময় অফিসে থাকা ৪০টির বেশি ল্যাপটপ ও ভিডিও তৈরির যন্ত্রপাতি নিয়ে যায় তারা। এছাড়া ৩০টির বেশি ডেস্কটপ কম্পিউটার ভাঙচুর করে অফিসে থাকা সবার মোবাইল, মানিব্যাগ নিয়ে গেছে। হামলার সময় তারা সেলিম খান ও জায়েদ খানকে খোঁজাখুঁজি করেন।‘

এদিকে প্রতিষ্ঠানটির সূত্রে জানা গেছে, এর আগে গত ১১ আগস্ট চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া ও শাপলা মিডিয়া ইন্টারন্যাশনালের মালিক মো. সেলিম খানকে হুমকি দেওয়া হয়েছে। এই হুমকির প্রেক্ষিতে রমনা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছিল। মো. সেলিম খানকে হুমকির এবার সরাসরি তার অফিসে হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। হামলার ঘটনায় থানায় মামলা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন শাপলা মিডিয়া।

- Advertisement -

উক্ত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কর্নধার সেলিম খানকে হুমকির ঘটনায় জিডিতে উল্লেখ করা হয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শৈশব-কৈশোরের ঘটনাবলি নিয়ে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’ সিনেমাটি সিনেবাজ অ্যাপে বিনামূল্যে প্রদর্শন করা হয়। এরপর সেন্সর ছাড় পাওয়া ‘আগস্ট ১৯৭৫’ চলচ্চিত্রটিও ১৪ আগস্ট ১২টা ১ মিনিটে সিনেবাজ অ্যাপে দেখানো হয়। ‘আগস্ট ১৯৭৫’ চলচ্চিত্রটি প্রচারের আগ থেকেই স্বাধীনতা বিরোধী ও তাদের মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীরা হুমকি দেওয়াসহ বিপদে ফেলার চক্রান্ত শুরু করে।

জিডিতে আরও উল্লেখ করা হয়, চলতি বছর ৬ আগস্ট বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের জহির রায়হান ভিআইপি প্রকেজশন হলে এক সংবাদ সম্মেলন করে ‘আগস্ট ১৯৭৫’ চলচ্চিত্রের টিজার অফিসিয়াল পোস্টার রিলিজের পর থেকেই হুমকি দেওয়া শুরু হয়। এছাড়াও কিছু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ইউটিউবে বিভিন্ন উস্কানিমূলক নানা প্রচারণা শুরু করে। এসব কারণে বিপদের আশঙ্কা করে উল্লেখ্য করা হয় জিডিতে।

- Advertisement -

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার অফিসে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন নির্মাতা শামীম আহমেদ রনি এবং চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এই ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি লিখেন, ‘প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ায় ভাঙচুরের ঘটনায় আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাই।‘ অন্যদিকে নির্মাতা শামীম আহমেদ রনি লিখেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করা কি অপরাধ? সেলিম খান ভাই আর শাপলা মিডিয়া একের পর চলচ্চিত্র নির্মাণ করে যাচ্ছে, এটাই কি অপরাধ? নাকি সেলিম খানের কারনে চলচ্চিত্র শিল্পের কয়েক শত মানুষ এবং তাদের পরিবার জীবন-জীবিকা চালাচ্ছে সেটা অপরাধ?’

আরো পড়ুনঃ
চলচ্চিত্র ছাড়ছেন মাহিয়া মাহি! বিপাকে চলমান সিনেমার নির্মাতারা
শালুকের সাথে রোমান্স শেষে ঢাকা ছাড়লেন কলকাতার বনি সেনগুপ্ত
প্রশংসিত ‘শান’ সিনেমার ট্রেলার: অ্যাকশন অবতারে হাজির সিয়াম 

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ