অস্কারে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’: ১২ই নভেম্বরে বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি!

অস্কারে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’

প্রথমবারের মত কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে অফিশিয়াল সিলেকশনে স্থান পেয়েছিলো বাংলাদেশের সিনেমা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। প্রদর্শনের পর পৃথিবীর অন্যতম প্রাচীন ও গৌরবময় এই  চলচ্চিত্র উৎসবে প্রশংসিতও হয়েছিলো তরুণ নির্মাতা আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের পরিচালনায় সিনেমাটি। ছবিটি শেষ হওয়ার পর দর্শক দাঁড়িয়ে সম্মান প্রদর্শনের সাথে করতালিতে মুখরিত হয়েছিলো ডবসি থিয়েটার। কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের পর এবার অস্কারে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ প্রতিনিধিত্ব করবে বাংলাদেশকে। জানা গেছে আগামী ৯৪তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ডে ‘বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম’ বিভাগে বাংলাদেশ থেকে লড়াই করতে যাচ্ছে সিনেমাটি।

- Advertisement -

অস্কারে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ বাংলাদেশ থেকে লড়াই করার আগে অস্কার কমিটির শর্ত অনুযায়ী নভেম্বরে বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে সিনেমাটি। অস্কার বাংলাদেশ সাবমিশন কমিটি সূত্রে জানা গেছে, সব ঠিক থাকলে শীগ্রই সিনেমাটি অনলাইনে অস্কার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে। অন্যদিকে সিনেমাটির নির্বাহী প্রযোজক এহসানুল হক বাবু জানিয়েছেন, নভেম্বরে দেশে মুক্তি পাচ্ছে সিনেমাটি। নিয়ম অনুযায়ী কোনো সিনেমার মুক্তির জন্য তারিখ বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করতে হয় চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতিতে। সেখানে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সিনেমাটির মুক্তির জন্য আবেদন জমা পড়েছে। সমিতির দেয়া তথ্য অনুযায়ী আগামী ১২ই নভেম্বর মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’।

এদিকে কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের পর আরো একটি চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। জানা গেছে সিঙ্গাপুর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের তরফ থেকে এবছরের নির্বাচিত ফিচার ছবি এবং স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। যেখানে বাংলাদেশের ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সহ আছে শতাধিক ছবি। গত ২৬ অক্টোবর এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়। এবছর ৪০টি দেশের ১০০টির বেশি সিনেমা দেখানো হবে উৎসবে। ২৫ নভেম্বর থেকে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে উৎসব।

- Advertisement -

প্রাইভেট মেডিকেল কলেজের একজন শিক্ষক রেহানা মরিয়ম নূরকে কেন্দ্র করেই এই সিনেমার গল্প। যেখানে রেহানা একজন মা, মেয়ে, বোন ও শিক্ষক হিসেবে জটিল জীবনযাপন করে। এরমধ্যে এক সন্ধ্যায় কলেজ থেকে বেরোনোর সময় রেহানা একটি অপ্রত্যাশিত ঘটনার সাক্ষী হয়। এরপর থেকে সে এক ছাত্রীর পক্ষ হয়ে সহকর্মী এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ঘটনার প্রতিবাদ করতে শুরু করেন এবং ক্রমশ একরোখা হয়ে ওঠেন। কিন্তু একই সময়ে তার ৬ বছর বয়সী মেয়ের বিরুদ্ধে স্কুল থেকে রূঢ় আচরণের অভিযোগ করা হয়। এমন অবস্থায় অনড় রেহানা তথাকথিত নিয়মের বাইরে থেকে সেই ছাত্রী ও তার সন্তানের জন্য ন্যায় বিচারের খোঁজ করতে থাকেন।

পোটোকল ও মেট্রো ভিডিওর ব্যানারে ছবিটি প্রযোজনা করেছেন সিঙ্গাপুরের প্রযোজক জেরেমী চুয়া এবং নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে আছেন এহসানুল হক বাবু। আর সিনেমাটি সহ-প্রযোজনা করেছেন রাজীব মহাজন, আদনান হাবিব এবং সাঈদুল হক খন্দকার। বাঁধন ছাড়াও এ সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন ফারজানা বিথী,আফিয়া জাহিন জাইমা, কাজী সামি হাসান, আফিয়া তাবাসসুম বর্ন, ইয়াছির আল হক, সাবেরী আলমসহ অনেকে।

- Advertisement -

আরো পড়ুনঃ
পুরষ্কার না জিতলেও ভালোবাসা নিয়ে ফিরছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সিনেমার টিম
কানে স্ট্যান্ডিং ওভেশন পেল ‘রেহানা মরিয়ম নূর’: বাঁধনের চোখে আনন্দ অশ্রু
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেক্ষাগৃহে ‘মরিয়ম’: পরিবেশনার স্বত্ব যৌথভাবে নিলো দুই প্রতিষ্ঠান

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ