একসঙ্গে শাপলা মিডিয়ার ১০০ সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা!

একসঙ্গে শাপলা মিডিয়ার ১০০

জৌলুস হারিয়ে অস্তিত্বের লড়াইয়ে ঢালিউড। সিনেমার অভাবে ক্রমাগত কমছে প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা। টিকে থাকা প্রেক্ষাগৃহগুলো নতুন সিনেমার অভাবে পুরোনো সিনেমা দিয়ে চালু রাখা হয়েছে। প্রতিনয়ত লোকসানের মুখোমুখি প্রেক্ষাগৃহ মালিকরা খোঁজছেন নতুন উপায়। এদিকে যে সিনেমাগুলো তৈরী হচ্ছে সেগুলো থেকে লগ্নিকৃত টাকা তুলতে পারছে না প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো। ঢাকাই সিনেমার এই রুগ্ন অবস্থার জন্য এক অপরকে দায়ী করে আসছেন প্রেক্ষাগৃহ মালিক এবং প্রযোজকরা। সিনেমার এই দুঃসময়ে একসঙ্গে ১০০ সিনেমার ঘোষণা দিয়ে আবারো আলোচনায় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া।

- Advertisement -

আজ (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফডিসির) জসিম ২ নম্বর ফ্লোরে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সিনেমাগুলোর ঘোঘণা দেন প্রযোজক সেলিম খান। একইসাথে একসঙ্গে ১৫ টি সিনেমার মহরত অনুষ্ঠানও সম্পন্ন হয়েছে। এই ১৫ টি সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে আগামী ২২শে ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে বলেও জানান সেলিম খান।

এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমকে শাপলা মিডিয়ার কর্নধার সেলিম খান বলেন, ‘আমরা ১০০টি সিনেমা নির্মাণ করার বিশাল একটি পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। তবে সবগুলো সিনেমার কাজ একসঙ্গে শুরু হবে না। বছরজুড়েই চলবে এ পরিকল্পনা। বৈচিত্রময় গল্পে ভিন্ন ভিন্ন পরিচালক ও শিল্পীদের সমাহার ঘটাতে চাই আমরা।পরিকল্পনাটি ঢালিউডকে বদলে দিতে যাচ্ছে বলে বিশ্বাস আমার। সিনেমার অভাবে হল মালিকরা যে লোকসানের মুখে পড়েছেন তার থেকেও পরিত্রাণ পাবেন তারা।’

- Advertisement -

ঘোষিত এই ১০০ সিনেমার সমন্বয়ক হিসেবে যুক্ত রয়েছেন নির্মাতা শাহীন সুমন ও অপূর্ব রানা। এ প্রসঙ্গে শাহীন সুমন বলেন, ‘এই ১০০ সিনেমা নির্মাণ করবেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নির্মাতারা। আমরা মনে করি, পরিচালক সমিতির সকল নির্মাতাই দক্ষ। তাই এগুলো নির্ধারণ করা হবে লটারির মাধ্যমে। এরমধ্যে ১৫টি সিনেমার গল্প, পরিচালক ও শিল্পী সব প্রস্তুত আছে। চলতি মাস থেকেই এগুলোর শুটিং শুরু হবে। টানা লট ধরে ১৫টি করে সিনেমার কাজ চলবে। শুটিং শেষে এগুলো সেন্সরে যাবে। ছাড়পত্র পাওয়ার পর প্রেক্ষাগৃহ, ইউটিউব ও টেলিভিশনে মুক্তি পাবে।’

অন্যদিকে সিনেমাগুলো প্রসঙ্গে অপূর্ব রানা বলেন, ‘অনেক সময় দেখি শুধু মহরতেই সব সীমাবদ্ধ, সিনেমার শুটিং আর হয় না। তবে এই সিনেমার শুটিং শেষ হবে। আমরা একসঙ্গে দীর্ঘ মেয়াদের কাজ শুরু করেছি। একই সঙ্গে ২০টি ক্যামেরার কাজ করবে। এরই মধ্যে কক্সবাজারে চার মাসের জন্য শুটিংয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। একসঙ্গে এতগুলো সিনেমার কাজ করলে স্বাভাবিক কারণে শুটিংয়ের খরচ কম হবে।’

উল্লেখিত সিনেমাগুলোর মধ্যে প্রথম ১০টি সিনেমায় – আঁচল, বিপাশা কবির, মিষ্টি জান্নাত, আফ্রি, তানহা তাসনিয়া, নিরব, ইমন, সাইফ খান, সুমিত সেনগুপ্ত, শিপন মিত্র, সাঞ্জু জন, জয় চৌধুরী, কায়েস আরজু ও আমান রেজাসহ অনেকে।

উল্লেখ্য যে, এই মুহূর্তে শাপলা মিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত হচ্ছে ‘কমান্ডো’, ‘গ্যাংস্টার’সহ বেশ কিছু সিনেমা। এছাড়া দীর্ঘ ১১ মাস পর শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ‘চোখ’ নামের সিনেমা দিয়ে অভিনয়ে ফিরছেন ‘বসগিরি’ খ্যাত বুবলী। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন নিরব ও রোশান।

আরো পড়ুনঃ
নতুন সিনেমায় বুবলী: সাথে আছেন নিরব ও রোশান
সাইমন সাদিক এবং মাহিয়া মাহীকে নিয়ে শাপলা মিডিয়ার নতুন তিন সিনেমা

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ