‘বিউটি সার্কাস’ নিয়ে দর্শকদের পছন্দ প্রসঙ্গে আত্মবিশ্বাসী জয়া আহসান

‘বিউটি সার্কাস’ নিয়ে দর্শকদের

২৩শে সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছে জয়া আহসান অভিনীত সিনেমা ‘বিউটি সার্কাস’। দেশের ১৯টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। মুক্তির পর এই সিনেমাটি দর্শকদের সঙ্গে উপভোগ করতে এক প্রেক্ষাগৃহ থেকে আরেক প্রেক্ষাগৃহে ছুটছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। তবে কম সংখ্যক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেলেও বিষয়টি নিয়ে কোন আক্ষেপ নেই জয়া আহসানের। দর্শকদের পছন্দ হলে সিনেমাটির প্রচার মুখে মুখে হবে বলে মনে করছেন তিনি।

- Advertisement -

‘বিউটি সার্কাস’ নিয়ে দর্শকদের পছন্দ প্রসঙ্গে আত্মবিশ্বাসী জয়া আহসান এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ছবির মেরিট থাকলে দর্শক বাড়বে, হল বাড়বে। ছবির সবচেয়ে বড় প্রচার করে দর্শক। ভালো লাগলে তারা মুখে মুখে প্রচার করে দেয়। আমি নিশ্চিত বিউটি সার্কাস’-র ক্ষেত্রে তাই হবে।‘ রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সে দর্শকের সঙ্গে ‘বিউটি সার্কাস’ উপভোগ করেন জয়া আহসান। প্রদর্শনী শেষে জয়া প্রেক্ষাগৃহ থেকে বের হওয়ার সময় দর্শকরাই হাত উঁচু করে বলছিল বিউটিদের জয় হোক, বিউটি সার্কাসের জয় হয়েছে। অসাধারণ ছবি ‘বিউটি সার্কাস’।

ভিন্ন ধারার গল্পের এই সিনেমাটি দেখে দর্শক হতাশ হবেন না বলে উল্লেখ করেন জয়া আহসান। সিনেমাটির গল্প প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিউটি সার্কাস নারী শক্তি, প্রতিশোধ ও ভালোবাসার গল্প। এই ধরনের গল্পের ছবি আমাদের এখানে আগে হয়নি। দর্শক দেখে হতাশ হবে না। দেড় বছর পর আমার ছবি মুক্তি পেল। যারা আমাকে ও আমার কাজকে পছন্দ করেন তারা অবশ্যই হলে এসে বিউটি সার্কাস দেখবেন।‘ দর্শকের উপর পূর্ণ বিশ্বাস আছে উল্লেখ করে জয়া আরো বলেন, ‘জোর করে ছবি হলে রাখা যায় না। দর্শকের যেটা ভালো লাগবে সেটাই দেখবে।‘

- Advertisement -

স্টার সিনেপ্লেক্সের বসুন্ধরা শাখায় সিনেমাটির প্রথম প্রদর্শনীতে উপস্থিত হন নাটক-সিনেমার নামিদামি প্রযোজক, নির্মাতা, অভিনেতা ও অভিনেত্রী সহ ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমার সংশ্লিষ্টরা। টিকিট কাউন্টারে সাধারণ দর্শকের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। মুক্তির আগেই ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমার টিকিটের বড় একটি অংশ অনলাইনে বিক্রি হয়েছে বলে জানা গেছে। ঈদের পর সিনেমা হলে দর্শকদের আসার ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে ‘বিউটি সার্কাস’ ভূমিকা রাখবে বলে মতামত দিয়েছেন সিনেমা সংশ্লিষ্টরা।

দেড় বছর পর দেশীয় প্রাক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে জয়া আহসানের নতুন সিনেমা। সিনেমাটিতে জয়ার বিপরীতে অভিনয় করেছেন ফেরদৌস এবং এবিএম সুমন। জয়া আহসানের ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন মাহমুদ দিদার। এই সিনেমার মাধ্যমে দেশীয় সিনেমায় পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করছেন এই নির্মাতা। জয়া আহসানের মত সিনেমাটি নিয়ে উচ্ছ্বাসিত মাহমুদ দিদার নিজেও। সিনেমাটি নিয়ে আত্মবিশ্বাসী এই নির্মাতাও।

- Advertisement -

মাহমুদ দিদারের হাত ধরে ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমার মাধ্যমে রুপালী পর্দায় ফিরে আসছে দেশের আবহমান সার্কাসশিল্পের আনন্দযজ্ঞ। যেখানে থাকছে চিরায়ত সার্কাসের দুর্ধর্ষ সব প্রদর্শনী। গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী সার্কাস, জাদুর পাশাপাশি সম্পর্ক, সমাজ ও প্রতিশোধের গল্পে নির্মিত হয়েছে ‘বিউটি সার্কাস’। আর এই সিনেমায় সার্কাসকন্যা বিউটি হয়ে বড়পর্দায় উপস্থিত হতে যাচ্ছেন দুই বাংলার নন্দিত অভিনেত্রী জয়া আহসান। সার্কাসের বিভিন্ন কঠিন সব প্রদর্শনীতে অংশ নিতে দেখা গেছে জয়া আহসানকেও।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয় ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমার দৃশ্যধারনের কাজ। দুই শতাধিক নির্মাণ সঙ্গী নিয়ে প্রায় দুই হাজার গ্রামবাসীর অংশগ্রহণে সিনেমাটির চিত্রধারণ করেন নির্মাতা দিদার। সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমায় জয়া আহসান ছাড়া অন্যান্য চরিত্রে আরো অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস আহমেদ, তৌকির আহমেদ, এবিএম সুমন, শতাব্দী ওয়াদুদ, গাজী রাকায়েত, হুমায়ূন সাধু, মানিসা অর্চি প্রমুখ।

পাঁচবছরের নির্মাণ কাজ শেষে ২৩ সেপ্টেম্বর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। এদিকে একই দিনে মুক্তি পেয়েছে চলতি বছরের অন্যতম আলোচিত সিনেমা ‘অপারেশন সুন্দরবন’। সিনেমাটির পরিচালনা করেছেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত নির্মাতা দীপঙ্কর দীপন। উল্লেখ্য যে, ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমাটির সংগীত পরিচালনা করেছেন পাভেল আরিন। আর গেন কণ্ঠ দিয়েছেন চিরকুট ব্যান্ডের শারমিন সুলতানা সুমী ও এশেজ ব্যান্ডের জুনায়েদ ইভান। সিনেমাটির চিত্রগ্রহণে আছেন কামরুল ইসলাম শুভ।

আরো পড়ুনঃ
অন্য সিনেমা দেখার আগে সবাইকে ‘বিউটি সার্কাস’ দেখতে বললেন জয়া
ট্রেলারে প্রশংসিত সার্কাসকন্যা জয়া: মুক্তি পাচ্ছে ২৩শে সেপ্টেম্বর
বক্স অফিসে মুখোমুখি ‘অপারেশন সুন্দরবন’ এবং ‘বিউটি সার্কাস’!

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ