‘দিনঃ দ্য ডে’ সিনেমার পরিচালকের মামলার হুমকির জবাব যা বললেন অনন্ত

‘দিনঃ দ্য ডে’ সিনেমার

গত কোরবানির ঈদে মুক্তি পেয়েছিলো বাংলাদেশ-ইরান যৌথ প্রযোজনার সিনেমা ‘দিনঃ দ্য ডে’। সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন ইরানি পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজম। এই সিনেমাটির বাজেট ১০০ কোটি টাকা বলে দাবি করেন অনন্ত। জানা গিয়েছিলো সিনেমাটির বাংলাদেশ অংশের দৃশ্যধারনের খরচ বহন করবেন অনন্ত জলিল। কিন্তু সম্প্রতি চুক্তি ভঙ্গের অভিযোগে অনন্ত জলিলের বিরুদ্ধে মামলার কথা জানিয়েছেন ‘দিনঃ দ্য ডে’ সিনেমার পরিচালক।

- Advertisement -

ইনস্টাগ্রামে এক দীর্ঘ পোস্টে অনন্ত জলিলের বিরুদ্ধে মামলার সিদ্ধান্তের কথা জানান মুর্তজা অতাশ জমজম। সেই পোস্টে অনন্ত জলিলের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ তুলে ধরেন এই নির্মাতা। ‘দিনঃ দ্য ডে’ সিনেমার পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজম তাঁর পোস্টে জানান, ‘দিনঃ দ্য ডে’ সিনেমা নিয়ে শুরুতে যে চুক্তি ছিল, তার কিছুই রক্ষা করেননি অনন্ত জলিল। সিনেমায় মুর্তজার অর্ধেক প্রোডাকশন জলিল নষ্ট করে নিজের মতো করে সিনেমা বানিয়েছেন বলেও জানান তিনি।‘

এছাড়া নিজেকে ‘দিনঃ দ্য ডে’ সিনেমার প্রধান প্রযোজক বলে দাবি করেন জমজম।জানা গেছে সিনেমাটির চুক্তি অনুযায়ী, বাংলাদেশ অংশের দৃশ্যধারনের খরচ বহন করবেন অনন্ত জলিল আর বাকী খরচ বহন করবে সিনেমাটির ইরানি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। কিন্তু চুক্তি ভঙ্গের অভিযোগে নিজের অংশের টাকা ফেরত চেয়েও পাননি বলে জানিয়েছেন তিনি।

- Advertisement -

চার বছর ধরে নিজের অংশের টাকা ফেরত দিতে মুর্তজা অনেক অনুরোধ করেছেন জলিলকে, কিন্তু জলিল টাকা ফেরত দেননি, কোনও যোগাযোগও করেননি বলে দাবি এই নির্মাতার। সেই প্রেক্ষিতে এখন আন্তর্জাতিক আইনজীবীর মাধ্যমে মামলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই ইরানি পরিচালক। তবে নির্মাতা জমজমের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বাংলাদেশের আলোচিত অভিনেতা-প্রযোজক অনন্ত জলিল।

এ প্রসঙ্গে একটি অনলাইন পত্রিকার সাথে আলাপকালে অনন্ত জলিল বলেন, ‘ওই চুক্তিই হচ্ছে বাংলাদেশে শুটিংয়ের টাকা আমি দেব। আমি বাংলাদেশে শুটিংয়ের অংশের টাকা দিয়েছি। আমি চার বছর ধরে এ কথাই বলছি যে বাংলাদেশের শুটিংয়ের খরচ আমি বহন করব, বাইরের শুটিংয়ের খরচ ওরা বহন করবে। বাংলাদেশের শুটিংয়ের টাকা তো ও (মুর্তজা) দেয়নি, আমিই দিয়েছি।‘

- Advertisement -

বাংলাদেশে ভালো কিছু করতে গেলে দুনিয়ার শত্রু হতে হয় বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেন এই অভিনেতা। মুর্তজার অভিযোগের জবাবে অনন্ত জলিল বলেন, ‘বাংলাদেশে শুটিং করল ইরানের ১৯ জন এসে, সিনেমা আমাদের মতো করে হলো কীভাবে? যা-ই হোক, এটা কোন জায়গা থেকে কী হয়েছে আমি জানি না। দেখে নিই আমি আগে এটা। বাংলাদেশে ভালো কিছু করতে গেলে তো দুনিয়ার শত্রু হতে হয়, দেখছি।‘

প্রসঙ্গত, বিগ বাজেটের এই সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন ইরানি নির্মাতা মুর্তজা অতাশ জমজম। বাংলাদেশ ছাড়াও ইরান, তুরস্ক ও আফগানিস্তানে সিনেমাটির শুটিং হয়েছে। ইরানের মুর্তজা অতাশ জমজম এবং বাংলাদেশের প্রযোজক অনন্ত জলিলের এজে ব্যানারে নির্মাণ হয়েছে সিনেমাটি। সিনেমাটিতে অনন্ত জলিলের বিপরীতে অভিনয় করেছেন বর্ষা। এছাড়াও সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করেছেন ইরান ও লেবাননের অভিনেতারা।

আরো পড়ুনঃ
সিনেমায় সুদিনের ইঙ্গিতঃ ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে কতটুকু প্রস্তুত ঢালিউড
‘দ্য লাস্ট হোপ’ নামে নতুন সিনেমার ঘোষণা দিলেন অনন্ত জলিল

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ