বক্স অফিসে ‘হাওয়া’ ঝড়ঃ মুক্তির ৩ দিনের সব প্রদর্শনী হাউসফুল!

বক্স অফিসে ‘হাওয়া’

বাংলা সিনেমার নবজাগরণের বার্তা নিয়ে ২৯শে জুলাই মুক্তি পেয়েছে চলতি বছরের অন্যতম আলোচিত সিনেমা ‘হাওয়া’। সমুদ্র, পানি, সম্পর্ক ও প্রতিশোধের গল্পে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ‘হাওয়া’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে দেশের ২৪টি প্রেক্ষাগৃহে। পোস্টার ও ট্রেইলারে মুগ্ধতা ছড়ানো সিনেমাটির গান ও প্রচারণার কৌশলে বক্স অফিসে ‘হাওয়া’ ঝড় বইছে। জানা গেছে সবগুলো প্রেক্ষাগৃহের বাইরে ঝুলছে হাউজফুল বোর্ড! বাংলা সিনেমার ইতিহাসে এটি খুবই বিরল ঘটনা।

- Advertisement -

মুক্তির প্রথম দিন শুক্রবার সকালের শো থেকে সব প্রেক্ষাগৃহেই লক্ষ্য করা গেছে দর্শকের উপচে পড়া ভিড়! রাজধানীর সব মাল্টিপ্লেক্স, শ্যামলী সিনেমা সহ চট্টগ্রাম, সিলেট ও নারায়ণগঞ্জের সিনেস্কোপ এ খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সবগুলো প্রেক্ষাগৃহই প্রথম শো থেকেই হাউজফুল যাচ্ছে! দেশের সবচেয়ে বড় মাল্টিপ্লেক্স স্টার সিনেপ্লেক্সে রেকর্ড সংখ্যক প্রদর্শনী নিয়ে মুক্তি পেয়েছিলো সিনেমাটি।

দেশের সবচেয়ে অত্যাধুনিক এই সিনেপ্লেক্সটিতে প্রতিদিন সিনেমাটির ২৬টি প্রদর্শনী চলবে। এ প্রসঙ্গে স্টার সিনেপ্লেক্সের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দিন একটি অনলাইন পত্রিকার সাথে আলাপকালে বলেন, ‘শুক্রবার, শনিবার ও রোববারের আমাদের প্রতিটি শো-ই হাউসফুল যাবে। আগামী তিন দিনের সব টিকেট বিক্রি হয়ে গেছে আমাদের। দারুণ সাড়া পাচ্ছি।’

- Advertisement -

অন্যদিকে একই চিত্র দেখা গেছে রাজধানীর ব্লকবাস্টার সিনেমাসে। এই মাল্টিপ্লেক্সটিতে ‘হাওয়া’ সিনেমার দৈনিক প্রদর্শনীর সংখ্যা ১৩টি। প্রতিষ্ঠানটির সহকারী মার্কেটিং ম্যানেজার মো. মাহবুবুর রহমান সিনেমাটি প্রসঙ্গে বলেন, ‘প্রথম দিনের সব শো হাউসফুল গেছে, বিকেল-সন্ধ্যার সব টিকেট বিক্রি হয়ে গেছে আগেই। সিনেমাটি নিয়ে দারুণ আশাবাদী আমরা।’

এদিকে সিনেমাটি দেখে ইতিমধ্যে দর্শক তাদের অভিমত জানাতে শুরু করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সিনেমাটিকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন দর্শকরা। দর্শকদের অনেকে এমন সিনেমা অতীতে দেখেননি বলে তাদের অভিমত ব্যাক্ত করছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, এই সিনেমা দিয়েই বাংলা চলচ্চিত্রের মোড় ঘুরে যেতে পারে! সিনেমাটি নিয়ে দর্শক চাহিদা এমন যে, মাল্টিপ্লেক্সগুলোতে প্রথম দু’দিনের অগ্রিম টিকেট চেয়েও খালি হাতে ফিরে গেছেন দর্শক! বাংলা নিয়ে এমন উত্তেজনা খুব একটা দেখার সৌভাগ্য হয়নি চলতি প্রজন্মের!

- Advertisement -

বক্স অফিসে ‘হাওয়া’

সিনেমাটির টিকেট নিয়ে উম্মাদনা প্রসঙ্গে গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেছেন চঞ্চল চৌধুরী। শুক্রবার স্টার সিনেপ্লেক্স শাখা পরিদর্শনে এসে সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের চঞ্চল চৌধুরী বলেছেন, ‘আমরা জানি টিকেটের চাহিদাটা একটু বেশি, অনেকেই টিকেট পাচ্ছেন না। সেজন্য একটু ধৈর্য ধরুন, আপনারা দেখতে চাইলে যত দিন পর্যন্ত চলা উচিত, আপনাদের দেখার জন্য তত দিনই আমরা সিনেমা হলে হাওয়া চালাব। ভালো লাগলে, গানটাকে যেভাবে ছড়িয়ে দিয়েছেন, সিনেমার কথাটা সবার কাছে বলুন।‘

এছাড়া সিনেমাটির প্রযোজনা সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশের পর ‘হাওয়া’ খুব শিগগির আন্তর্জাতিক পরিবেশক সংস্থা ‘স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো’-র মাধ্যমে উত্তর আমেরিকায় এবং ‘পথ প্রোডাকশন’ ও ‘দেশি ইভেন্টস’-এর মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এছাড়া সামনে আরো বেশকিছু দেশে ‘হাওয়া’-র মুক্তি দেয়ার প্রচেষ্টা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রযোজনা সংস্থা সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেডের চলচ্চিত্র ‘হাওয়া’-র নির্বাহী প্রযোজক অজয় কুমার কুন্ডু।

টিভি ফিকশন ও বিজ্ঞাপনের খ্যাতিমান নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমনের পরিচালনায় নির্মিত হয়েছে সমুদ্র, পানি, সম্পর্ক ও প্রতিশোধের গল্পের সিনেমা ‘হাওয়া’। মাঝসমুদ্রে গন্তব্যহীন একটি মাছ ধরার ট্রলারে আটকে পড়া আট জন মাঝি-মাল্লা এবং এক রহস্যময় বেদেনিকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে হয়েছে সিনেমাটির কাহিনি । ‘হাওয়া’র মাধ্যমে রূপকথানির্ভর সিনেমাকে পর্দায় নতুন আঙ্গিকে দেখতে পাবেন দর্শকেরা।

মেজবাউর রহমান সুমনের কাহিনী এবং সংলাপে সিনেমাটির চিত্রনাট্য রচনা করেছেন যৌথভাবে মেজবাউর রহমান সুমন, সুকর্ণ সাহেদ ধীমান এবং জাহিন ফারুক আমিন। সিনেমাটি প্রসঙ্গে নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমন বলেন, ‘এটি সমুদ্র, পানি, সম্পর্ক ও প্রতিশোধের গল্প, যেখানে উপজীব্য সমুদ্র। গভীর সমুদ্র ও সেখানে মাছ ধরার ট্রলারকে কেন্দ্র করে নির্মিত গল্পের চলচ্চিত্র। ৮ জন মাঝিমাল্লার ও একজন বেদেনিকে নিয়েই গল্পটি তৈরি।’

উল্লেখ্য যে, তারকাবহুল এ সিনেমায় অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, নাজিফা তুশি, শরিফুল রাজ, সুমন আনোয়ার, নাসির উদ্দিন খান, সোহেল মণ্ডল, রিজভী রিজু, মাহমুদ হাসান এবং বাবলু বোস। চিত্রগ্রহণ করেছেন কামরুল হাসান খসরু এবং সম্পাদনায় আছেন সজল অলক। রাশিদ শরীফ শোয়েবের আবহ সংগীতে সিনেমাটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ইমন চৌধুরী। সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড এবং নির্মাণ সংস্থা ফেইসকার্ড প্রোডাকশন।

আরো পড়ুনঃ
সিনেপ্লেক্সে রেকর্ড প্রদর্শনী নিয়ে মুক্তি পাচ্ছে আলোচিত সিনেমা ‘হাওয়া’
প্রথম সপ্তাহে বাজিমাতঃ দ্বিতীয় সপ্তাহে অর্ধশতাধিক প্রেক্ষাগৃহে ‘পরাণ’
সমুদ্রসৈকতে উম্মোচিত হচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত ‘অপারেশন সুন্দরবন’ ট্রেলার

এ সম্পর্কিত

আরো পড়ুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ

মুক্তি প্রতীক্ষিত

  • লিডার আমিই বাংলাদেশ
    লিডার আমিই বাংলাদেশ